ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ২০ ফেব্রুয়ারি ২০২০, || ফাল্গুন ৯ ১৪২৬

Ekushey Television Ltd.

সংগীত পরিচালক খৈয়াম আর নেই

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১৫:১৮ ২০ আগস্ট ২০১৯

সংগীত পরিচালক খৈয়াম আর নেই। সোমবার রাতে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে জীবনাবসান হয় তার। মৃত্যুকালে বয়স হয়েছিল ৯২ বছর। কাভি কাভি, উমরাও জানের মতো বিখ্যাত হিন্দি সিনেমার সংগীত পরিচালক ছিলেন তিনি।

বিখ্যাত এই শিল্পীর প্রয়াণে শোকের ছায়া নেমে আসে ভারতীয় সংগীত মহলে। সোশ্যাল মিডিয়ায় শোকবার্তা জানাচ্ছেন অনেকে। শোক প্রকাশ করেছেন লতা মঙ্গেশকরও।

খৈয়াম ট্রাস্টের মুখপাত্র প্রীতম শর্মা এক বিবৃতিতে বলেন, ‘বর্ষীয়ান সংগীত পরিচালক খৈয়াম সাহেব আর আমাদের মধ্যে নেই। জুহুর সুজয় হাসপাতালে রাত সাড়ে ৯টা নাগাদ প্রয়াত হলেন তিনি। শারীরিক অসুস্থতার কারণে বিগত কিছুদিন হাসপাতালেই ভর্তি ছিলেন তিনি।’

এর আগে জুলাইয়ের শেষ দিকে ফুসফুসের সংক্রমণ নিয়ে মুম্বাইয়ের হাসপাতালে ভর্তি হন খৈয়াম। ওই সময় থেকেই আইসিইউ-তে ছিলেন তিনি। তার দেখাশোনা করছিলেন স্ত্রী জগজিৎ কউর ও গজল গায়ক তালাত আজিজ।

উল্লেখ্য, এই সংগীত ব্যক্তিত্বের পুরো নাম মোহাম্মদ জাহুর খৈয়াম হাসমি। ব্রিটিশ ভারতের পাঞ্জাবে ১৯২৭ সালের ১৮ ফেব্রুয়ারি জন্ম তার। ছোটবেলা থেকেই হিন্দি ফিল্মের গানের প্রতি টান ছিল। প্রায় চার দশক ধরে হিন্দি ফিল্মের পর্দায় গজলকে এক অন্য উচ্চতায় নিয়ে গিয়েছিলেন খৈয়াম।

সুরের জাদুতে তিনি চিরস্মরণীয় করেছেন ‘বাজার’ ছবির ‘দিখায়ি দিয়ে ইয়্যু’, ‘নূরী’ ছবির ‘আজা রে’, ‘কাভি কাভি’র ‘তেরে চেহেরে সে’ এবং ‘উমরাও জানে’র ‘ইন আঁখো কি মাস্তি’-র মতো গানগুলোকে।

১৯৬১ সালে ‘শোলা অউর শবনম’ সিনেমা দিয়ে সংগীত পরিচালনা শুরু করেন তিনি। ‘উমরাও জান’ সিনেমার জন্য জাতীয় পুরস্কার পান। ‘কাভি কাভি’ ও ‘উমরাও জান’ তার ঝুলিতে এনে দেয় ফিল্মফেয়ার অ্যাওয়ার্ড। সংগীত-নাটক একাডেমি পুরস্কারে ভূষিত হন ২০০৭ সালে। ২০১১ সালে ভারত সরকার তাকে পদ্মভূষণে সম্মানিত করে।

এদিকে বুধবার মুম্বাইয়ে খৈয়ামের শেষকৃত্য সম্পন্ন হবে।

এসএ/

 

 

New Bangla Dubbing TV Series Mu
New Bangla Dubbing TV Series Mu

© ২০২০ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি