ঢাকা, রবিবার   ০৮ ডিসেম্বর ২০১৯, || অগ্রাহায়ণ ২৪ ১৪২৬

Ekushey Television Ltd.

নতুন সড়ক আইন

সচেতনতা সৃষ্টিতে মাঠে নামছে শিক্ষার্থীরা

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ০৯:১০ ১৫ নভেম্বর ২০১৯ | আপডেট: ০৯:৪৯ ১৫ নভেম্বর ২০১৯

নতুন সড়ক আইন কার্যকরের আগে সচেতনতা সৃষ্টিতে কয়েক দফা সময় বাড়নো হয়েছে। যা এখনো চলমান। এবার পুলিশের সঙ্গে জনসাধারণকে সচেতন করতে মাঠে নামছে শিক্ষার্থীরা।

আগামী ডিসেম্বর থেকে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের ট্রাফিক বিভাগ শিক্ষার্থীদের নিয়ে এ লক্ষ্যে মাঠে নামবে। পাশাপাশি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানেও সচেতনা কার্যক্রম পরিচালিত হবে। গত ২২ অক্টোবর জাতীয় নিরাপদ সড়ক দিবসে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা বাস্তবায়নে এই কর্মসূচি হাতে নেওয়া হয়েছে। সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগে এ সংক্রান্ত প্রস্তাব করা হয়েছে পুলিশ সদর দফতরের পক্ষ থেকে।

জানা গেছে, সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগের উদ্যোগে নেওয়া এই কর্মসূচিতে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষও (বিআরটিএ) যৌথভাবে কাজ করবে। আগামী ১৫ ডিসেম্বর থেকে সচেতনতামূলক এই কর্মসূচি চালু করার প্রস্তাব করা হয়েছে। কর্মসূচিতে যুক্ত করা হবে রোভার স্কাউট, গার্লস গাইড ও বিএনসিসিসহ (বাংলাদেশ ন্যাশনাল ক্যাডেট কোর) বিভিন্ন স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থীদের।

শিক্ষা মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, শিক্ষার্থীদের মাঝে সড়ক আইন সম্পর্কে সচেনতনতা বৃদ্ধির জন্য গত বুধবার (১৩ নভেম্বর) সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগের সভাকক্ষে ‘শিক্ষার্থীদের মধ্যে সচেতনতা বৃদ্ধিতে করণীয়’ শীর্ষক বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। বৈঠকে জানানো হয়, শিগগিরই  ‘নিরাপদ সড়ক পক্ষ’ আয়োজন করা হবে। এতে রাজধানীর স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থীদের সচেতন করার প্রস্তাব করা হয় ট্রাফিক বিভাগের পক্ষ থেকে।

জানতে চাইলে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের ট্রাফিক বিভাগের অতিরিক্ত কমিশনার মফিজ উদ্দিন গণমাধ্যমকে বলেন, ‘নতুন আইন কার্যকর করতে আমরা ১৫ দিনের জন্য ‘নিরাপদ সড়ক পক্ষ’ পালন করবো। শিগগিরই সেটা শুরু হবে।’ শিক্ষার্থীদের সচেতন করার বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘সড়ককে নিরাপদ করতে আমরা মানুষকে সব সময় সচেতন করে যাচ্ছি। নতুন আইন হয়েছে, এখন আমরা আরও বেশি সচেতন করবো। তবে এই সময় শিক্ষার্থীদের পরীক্ষা চলছে, তাই শিক্ষার্থীদের সড়কে কতটা নামানো যাবে সেটি একটি বিষয়।’

শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের উপসচিব ড. মো. মোকছেদ আলী বলেন, ‘জাতীয় নিরাপদ সড়ক দিবস উপলক্ষে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা বাস্তবায়নে রাজধানীর শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের তালিকা চাওয়া হয়েছে। এই উদ্যোগে শিক্ষা মন্ত্রণালয় সার্বিক সহযোগিতা করবে। শিক্ষার্থীদের সচেতন করার বিষয়ে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোকে নির্দেশনা দেবে মন্ত্রণালয়।’

বৈঠক সূত্রে জানা গেছে, শিক্ষার্থীদের চলমান পরীক্ষা শেষ হতে সময় লাগবে। পরীক্ষা শেষ হলে তাদের যুক্ত করা হবে। আগামী ১৫ ডিসেম্বর থেকে এই কর্মসূচি পরিচালনার বিষয়টি উঠে আসে।

উল্লেখ্য,গত বছর রাজধানীর বিমানবন্দর সড়কে বেপরোয়া বাসের চাপায় দুই শিক্ষার্থী নিহতের পর শিক্ষার্থীরা দেশব্যাপী নিরাপদ সড়কের আন্দোলনে মাঠে নামে। এরপর সরকার সামগ্রিক দিক বিবেচনা করে নিরাপদ সড়ক বাস্তবায়নের প্রতি মনযোগী হয়।

নতুন সড়ক পরিবহন আইন চলতি মাসের ১ তারিখ থেকে বাস্তবায়নের কথা থাকলেও, শাস্তির বিধান কঠোর হওয়ায় মানুষের মাঝে সচেতনতা সৃষ্টি করে এরপর বাস্তবায়নের দিকে যেতে যায় সরকার। সে লক্ষ্যে বেশ জোরালোভাবে নতুন আইন কার্যকরে সচেনতনতার দিকে জোর দিয়েছে সরকার ও সংশ্লিষ্ট বিভাগ।

এআই/

 

© ২০১৯ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি