ঢাকা, বুধবার   ১২ মে ২০২১, || বৈশাখ ২৮ ১৪২৮

সনদ ব্যবসায়ী প্রতারক তানভীর গ্রেফতার

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১৫:২৯, ১৩ এপ্রিল ২০২১

অর্থ আত্মসাৎ ও বেশ কয়েকটি প্রতারণার অভিযোগে ওয়ারেন্ট ভুক্ত পলাতক আসামি তানভীর হায়দার ভূইয়া (লিংকন)কে গ্রেফতার করেছে ভাটারা থানা পুলিশ। রোববার (১১ এপ্রিল) সন্ধ্যায় তাকে রাজধানীর কুড়িল এলাকা থেকে গ্রেফতার করা হয়েছে বলে নিশ্চিত করেছেন ওসি মোক্তারুজ্জামান।

থানা সূত্র জানিয়েছে, চট্টগ্রামের আদালত পাচলাইশ থানার সিআর মামলা ৭২৯/১৫ এর আদেশে তাকে ৮ মাসের জেল ও ৬ লাখ টাকা জরিমানা করেছে। যার ওয়ারেন্ট কপি এসেছে থানায়। এছাড়াও সূত্রাপুর থানার সিআর ২১৯/১৫ মামলায়ও তার বিরুদ্ধে ওয়ারেন্ট রয়েছে।

অভিযোগ রয়েছে, তানভীর হায়দার ভূইয়া (লিংকন) লিংকন দি ইউভার্সিটি অব কুমিল্লার বহিস্কৃত ট্রেজারার। টাকার বিনিময়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের অনার্স ও মাস্টার্সের সনদ বাণিজ্য ও নারী কেলেঙ্কারির দায়ে তাকে বহিস্কার করা হয়। তারপরও দীর্ঘদিন কুড়িল এলাকায় এডুকেশন কনসালন্সির অফিস খুলে ভুয়া সনদ বিক্রি করছিলেন। 

এ বিষয়ে ভাটারা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোক্তারুজ্জামান বলেন, রাজধানীর কুড়িল এলাকা থেকে রোববার সন্ধ্যার পরে তানভীর হায়দার লিংকনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। মামলার ওয়ারেন্টভুক্ত আসামি তিনি।

জানা গেছে, ইউজিসির বেসরকারি ইউনিভার্সিটি শাখার সাবেক পরিচালক জেসমিন পারভীনের সাথে খারাপ আচরণ এর অভিযোগ রয়েছে তার বিরুদ্ধে। এমনকি তাঁর শাড়ি খুলে নেয়ার হুমকি দিয়েছিলেন তানভীর। এজন্য এই প্রতারককে তার পদ থেকে বহিষ্কার করে দি ইউনিভার্সিটি অব কুমিল্লা অথরিটি।

নিজে ইন্টারমেডিয়েট পাস হলেও গোপনে নিজের নামে সনদ ইস্যু করেছেন তানভীর হায়দার লিংকন। ইউনিভার্সিটি থেকে বহিষ্কারের পরও সে ৩/৪টা ওয়েবসাইট চালু করেছে। যেগুলোর সবই অবৈধ। তার বিরুদ্ধে সনদ বাণিজ্য, নারী কেলেংকারীর অভিযোগ ওঠায় এক বছর আগেই তাকে ট্রাস্টি বোর্ড থেকে বহিষ্কার করা হয়। তারপরও সে নিজেকে ট্রেজারার দাবি করে বিভিন্ন জায়গায় প্রভাব বিস্তারের চেষ্টা করে আসছিল।

এনএস/


Ekushey Television Ltd.

© ২০২১ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি