ঢাকা, বুধবার   ১৬ অক্টোবর ২০১৯, || কার্তিক ১ ১৪২৬

Ekushey Television Ltd.

সাংবাদিককে হেনস্থার প্রতিবাদে হাবিপ্রবিসাসের মানববন্ধন

হাবিপ্রবি সংবাদদাতা

প্রকাশিত : ২০:৫৩ ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (বশেমুরবিপ্রবি) শিক্ষার্থী ও ক্যাম্পাসে কর্মরত সাংবাদিক ফাতেমা তুজ জিনিয়াকে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সাময়িক বহিষ্কারের মাধ্যমে হয়রানিতে জড়িতদের শাস্তি, বিশ্ববিদ্যালয় ‘আলোকিত বাংলাদেশ’ পত্রিকার সাংবাদিক শামস জেবিনের ওপর হামলা এবং ক্যাম্পাসে স্বাধীন সাংবাদিকতার পরিবেশ নিশ্চিত করা এবং উপাচার্যের পদত্যাগের দাবিতে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেছে ও প্রতিবাদ সমাবেশ করেছে  হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতি (হাবিপ্রবিসাস)। 

বৃহস্পতিবার দুপুরে হাবিপ্রবি সাংবাদিক সমিতির আয়োজনে দিনাজপুর প্রেস ক্লাবের সামনে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। এতে বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতির সভাপতি মো.আব্দুল মান্নান, সাধারণ সম্পাদক মো.আব্দুর রব, সাংগঠনিক সম্পাদক মশিউর রহমান মোমিন ও মিরাজুল মিশকাতসহ সমিতির অন্যান্য সদস্যবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

মানববন্ধনে সাংবাদিক সমিতির সভাপতি আব্দুল মান্নান বলেন, ‘বিশ্ববিদ্যালয়ের মতো একটি জায়গার উচ্চ পদে থেকে একজন উপাচার্য কিভাবে একজন শিক্ষার্থীকে ‘বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের কাজ কি’ তোর আব্বাকে জিজ্ঞেস করিস এমন কুরুচিপুর্ন ভাষায় কথা বলতে পারেন তা আমার জানা নেই । কোন কারণ ছাড়াই একজন শিক্ষার্থীকে সাময়িকভাবে বহিষ্কার করতে পারেন তার বিধান আমার জানা নেই। ফাতেমা-তুজ-জিনিয়া শুধু একজন শিক্ষার্থীই নন তিনি একজন দৈনিক পত্রিকার ক্যাম্পাস প্রতিনিধিও। তার সাথে এ ধরণের আচরণ মূলত সাংবাদিককে দমন ও সত্য কথা বলার স্বাধীনতাকে রোধ করার অপচেষ্টা।’

তিনি আরও বলেন, ‘সাংবাদিকদের সাথে এ ধরণের ব্যবহার স্বাধীনতা বিরোধী কার্যকলাপের শামিল। স্বাধীন দেশে প্রতিটি নাগরিকের স্বাধীনভাবে মত প্রকাশের অধিকার আছে। কিন্তু বঙ্গবন্ধু বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য মহোদয় ক্ষমতার অপব্যবহার করে যেভাবে সাংবাদিককে হুমকি–ধমকি প্রদান করেছেন তা কখনোই মেনে নেয়া যায় না। এর জন্য ওনাকে জাতির কাছে নিঃশর্ত ক্ষমা চাইতে হবে।’

এমএস/এসি
 

© ২০১৯ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি