ঢাকা, মঙ্গলবার   ১০ ডিসেম্বর ২০১৯, || অগ্রাহায়ণ ২৬ ১৪২৬

Ekushey Television Ltd.

সাভারে নারী শ্রমিকদের নির্যাতন বন্ধে মানববন্ধন

সাভার প্রতিনিধি

প্রকাশিত : ২০:৫৭ ১৫ নভেম্বর ২০১৯

নারী শ্রমিকদের সকল ধরনের নির্যাতন ও মজুরি বৈষম্য দূর করাসহ নিরাপদ অভিবাসন নিশ্চিত করার দাবিতে সাভারে মিছিল, মানববন্ধন ও সমাবেশ করেছে একটি শ্রমিক সংগঠনের নেতাকর্মীরা।

শুক্রবার সকালে আশুলিয়ার বাইপাইল বাসস্ট্যান্ড এলাকায় গার্মেন্ট শ্রমিক ট্রেড ইউনিয়ন কেন্দ্রে’র উদ্যোগে এই কর্মসূচিত অনুষ্ঠিত হয়। 
এসময় গার্মেন্ট শ্রমিক ট্রেড ইউনিয়ন কেন্দ্রের সাভার-আশুলিয়া আঞ্চলিক শাখার সভাপতি সাইফুল্লাহ আল মামুন, সাধারণ সম্পাদক খাইরুল মামুন মিন্টু, বাংলাদেশ ট্রেড ইউনিয়ন কেন্দ্রে’র সাভার-আশুলিয়া আঞ্চলিক কমিটি’র সাধারণ সম্পাদক মঞ্জুরুল ইসলাম মঞ্জু, আশুলিয়া থানা সড়ক নির্মান শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি নবীয়াল ফকির, সাধারণ সম্পাদক চাঁন মিয়া, আশুলিয়া থানা রিকশা-ভ্যান শ্রমিক ইউনিয়নের যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক মামুন দেওয়ান, রানা প্লাজা গার্মেন্ট শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি এমদাদুল ইসলাম ও নারী নেত্রী সনি খান। 

মানববন্ধনে অংশ নিয়ে শ্রমিক নেতারা বলেন, দীর্ঘদিন যাবত সৌদি আরবসহ মধ্য প্রাচ্যের দেশসমূহে উন্নত জীবনের প্রলোভনের শিকার হয়ে যাওয়া নারী অভিবাসী কর্মীরা প্রতিদিনই মারাত্মকভাবে শারীরিক, মানসিক ও যৌন নির্যাতনের শিকার হচ্ছেন। কিন্তু বাংলাদেশ সরকারের পক্ষে প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়সহ সংশ্লিষ্ট অপরাপর মন্ত্রণালয় এবং সরকারের কোনো পর্যায় থেকেই কোনো প্রকার পদক্ষেপ দৃশ্যমান নয়। বরং সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ব্যবহার করে ঐ সকল দেশে কর্মরত নারী কর্মীরা তাদের অবস্থা তুলে ধরেও রাষ্ট্রের দায়িত্বশীল ভ‚মিকা থেকে বঞ্চিত হয়েছেন। ফলশ্রুতিতে নারী কর্মীদের মৃত্যুর মিছিল শুরু হয়েছে; প্রতিদিনই দেশে ফিরছে অমিত সম্ভাবনাময় নারীর মৃতদেহ।

বিভিন্ন সময় বাংলাদেশের বিভিন্ন সংগঠনের পক্ষ থেকে মধ্য প্রাচ্যের দেশসমূহে বিশেষ করে সৌদি আরবে নারীকর্মী নির্যাতনের প্রতিবাদ এবং সংবাদ মাধ্যমে একাধিক প্রতিবেদন প্রকাশিত হওয়া সত্বেও বাংলদেশ সরকারের পক্ষ থেকে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয় কোনো প্রকার দায়িত্বশীল পদক্ষেপ গ্রহণ কিংবা আশ্বস্ত হওয়ার মতো কোনো প্রকার বক্তব্য-বিবৃতি প্রদান করেননি। বরং নারী কর্মীদের প্রতি দায়িত্বহীন ও অবমাননাকর বক্তব্য বিবৃতি প্রদান করে নারীর মানবিক সত্তাকে অপমান করা হয়েছে, নারীকে অবজ্ঞা করা হয়েছে, যা রীতিমতো বিষ্ময়কর। এমতাবস্থায় রাষ্ট্রের প্রতিটি নাগরিক ক্ষুব্ধ।

তারা আরও বলেন, ফিলিপাইন ও শ্রীলঙ্কাসহ বিভিন্ন দেশ সৌদি আরবের বর্বরতার বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়ে ওই দেশে তাদের দেশ থেকে নারীকর্মী প্রেরণ বন্ধ করে দিয়েছে যে প্রকাশ্য তথ্যটি আমাদের দেশের সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ জানা সত্বেও শুধুমাত্র রেমিটেন্সের লোভে বাংলাদেশের নারীদের নির্যাতন নিপীড়নের মুখে ঠেলে দিচ্ছে, যা রীতিমতো বিষ্ময়কর।

এছাড়া আগামী ১৭ নভেম্বর ২০১৯ ইং তারিখ সকাল ১০ টায় সাভার উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবর নারী শ্রমিকদের সকল ধরনের নির্যাতন ও মজুরি বৈষম্যমুক্ত নিরাপদ অভিবাসন নিশ্চিত করার দাবিতে স্মারকলিপি প্রদান করা হবে বলেও জানান বক্তারা।

আরকে// 
 

© ২০১৯ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি