ঢাকা, মঙ্গলবার   ১৮ জুন ২০২৪

সৌদি ফেরত স্ত্রীকে হত্যা করে থানায় স্বামী

মৌলভীবাজার প্রতিনিধি

প্রকাশিত : ১৩:৫৬, ৬ মে ২০২৪

মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জে সৌদি ফেরত স্ত্রীকে হত্যা করে রক্তাক্ত দা নিয়ে থানায় আত্মসমর্পণ করেছেন স্বামী। এ ঘটনায় ঘাতক স্বামীকে আটক করা হয়েছে। 

এই লোমহর্ষক ঘটনাটি ঘটেছে রোববার দুপুরে কমলগঞ্জ উপজেলার সদর ইউনিয়নের বাঘমারা গ্রামে। নিহত গৃহবধূর নাম শিল্পী বেগম ও তার ঘাতক স্বামী সফল আলী।

কমলগঞ্জ থানার ওসি সাইফুল আলম বলেন, কমলগঞ্জ উপজেলার বাঘমারা গ্রামের কুদ্দুস মিয়ার ছেলে সফর আলী রং মিস্ত্রির কাজ করেন নারায়ণগঞ্জ শহরে। ৬ বছর আগে শ্রীমঙ্গল উপজেলার ভাড়াউড়া এলাকার মুক্তার মিয়ার মেয়ে শিল্পী বেগমকে প্রেম করে বিয়ে করেন। সোহাগ নামের ৫ বছরের এক পুত্র সন্তানও রয়েছে তাদের। 

সফর আলীর বরাত দিয়ে ওসি জানান, বেশ কিছুদিন ধরে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে বনিবনা হচ্ছিল না। এমতাবস্থায় বিগত মার্চ মাসের প্রথম সপ্তাহে শ্রীমঙ্গল উপজেলার হেলাল নামের একজনের মাধ্যমে স্বামীর অনুমতি ছাড়াই সৌদি আরব যায় শিল্পী। বিষয়টি জানার পর স্ত্রীকে দেশে ফিরিয়ে আনতে ওই দালালকে চাপ দিয়ে আসছিলেন সফর আলী। 

স্বামীর চাপে দালাল এজেন্সির মাধ্যমে টিকিটের টাকা পরিশোধ করে শিল্পী আক্তারকে দেশে নিয়ে আসেন। শিল্পী দেশে আসার পর তার স্বামী জানতে পারেন শিল্পী তিন মাসের অন্তঃসত্ত্বা। পরকীয়ায় লিপ্ত থাকার সন্দেহে সফল আলী দা দিয়ে জবাই করে তার স্ত্রীকে হত্যা করে থানায় আসে এবং ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে। 

পার্শ্ববর্তী ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য সোলেমান হোসেন জানান, শনিবার দেশে এসে রোববার সকালে স্বামীর বাড়িতে উঠেন শিল্পী। স্বামীর বাড়িতে উঠার পর স্বামী সফর আলী জানতে পারেন তার স্ত্রী তিন মাসের অন্তঃসত্ত্বা। স্ত্রী অন্তঃসত্ত্বা হওয়ার বিষয় শোনার পর এর বিচার নিয়ে তার কাছে আসে সফর আলী। এ সময় তিনি তার নিজের ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য আব্দুল মতিনের কাছে গিয়ে বিষয়টি জানানোর পরামর্শ দেন। কিন্তু স্ত্রীর অভিযোগ নিয়ে ইউপি সদস্য আব্দুল মতিনের কাছে না গিয়ে বাড়িতে এসে তিনি স্ত্রীকে দা দিয়ে জবাই করে হত্যা করেন বলে শুনেছেন।

সফর আলীর মা সরুফা বেগম বলেন, সকালে সফর আলী বৌয়ের বিষয়ে নালিশ করতে মেম্বারের বাড়ি যায়। সেখানে থেকে বাড়ি এসেই পুত্রবধূকে মারধর শুরু করে। মারধরের এক পর্যায়ে দা দিয়ে শিল্পীকে গলা কেটে হত্যা করে সফর আলী। পরে রক্তাক্ত দা নিয়ে কমলগঞ্জ থানায় গিয়ে সে আত্মসমর্পণ করে।

ওসি বলেন, দালাল হেলালের সাথে অবৈধ সম্পর্কে তার স্ত্রী গর্ভবতী হয়েছে এমন সন্দেহে সফল আলী তার স্ত্রীকে হত্যা করেছে বলে সে জানিয়েছে। 

শ্রীমঙ্গল–কমলগঞ্জ সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার আনিসুর রহমান বলেন, আসামি পুলিশের হেফাজতে রয়েছে।  নিহতের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মৌলভীবাজার মর্গে পাঠানো হয়েছে। ঘটনার বিষয়ে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ঘাতক সফর আলীর বাবা কদ্দুস মিয়া ও মা সরুফা বেগমকে থানায় নিয়ে আসা হয়েছে। এ ঘটনায় মামলা দায়েরের প্রক্রিয়াধীন। সোমবার সকালে তাকে আদালতে সোপর্দ করা হবে।

এএইচ


Ekushey Television Ltd.


Nagad Limted


© ২০২৪ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি