ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ১২ ডিসেম্বর ২০১৯, || অগ্রাহায়ণ ২৮ ১৪২৬

Ekushey Television Ltd.

স্বর্ণলুটের ঘটনায় আটক ৭ ডাকাতের আদালতে স্বীকারোক্তি

সাভার প্রতিনিধি

প্রকাশিত : ২০:২৬ ১১ নভেম্বর ২০১৯ | আপডেট: ২১:১৭ ১১ নভেম্বর ২০১৯

রাজধানী ঢাকার অদূরে শিল্পাঞ্চল আশুলিয়ার বাইপাইলে নামাবাজারে স্বর্ণ ব্যবসায়ীকে ছুরিকাঘাতের পর ককটেল ফাঁটিয়ে স্বর্ণ লুটের ঘটনায় ৭ জনকে গ্রেফতার করেছে গোয়েন্দা পুলিশ।

গত রোববার ১০ নভেম্বর রাতে আশুলিয়ার বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করা হয়। সোমবার ডাকাতির মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে ডাকাতদের আদালতে প্রেরণ করলে তারা ১৬৪ ধারায় ডাকাতির দায় স্বীকার করেছে বলে ডিবি সূত্র জানান। 

গ্রেফতারকৃতরা হলো, বরিশাল জেলার আগৈলঝড়া থানার নাগিরপার গ্রামের মৃত প্রভুদান সরকারের ছেলে পলাশ সরকার (২৬), বগুড়া জেলার শাহজাহানপুর থানার রহিমাবাদ গ্রামের মৃত হারুনুর রশিদের ছেলে মামুন (৩৩), হবিগঞ্জ জেলার চুনারঘাট থানার দুধপাতিল গ্রামের আব্দুল কাইয়ুমের ছেলে জহিরুল ইসলাম সানী (২৬), ঢাকা জেলার ধামরাইয়ের মৃত রিয়াজ উদ্দিনের ছেলে জাকির হোসেন (৩০), আশুলিয়া থানার ডেন্ডাবর গ্রামের মৃত দেলোয়ার হোসেনের ছেলে জামান (৩১), বাগেরহাট জেলার কচুয়া থানার গজারিয়া গ্রামের হাবিবুর রহমান মৃধার ছেলে নাসির উদ্দিন মৃধা (২৭) এবং মানিকগঞ্জ জেলার দৌলতপুর থানার শামসুল হকের ছেলে জহিরুল ইসলাম ওরফে জাহাদ আলী (২৫)।

ঢাকা জেলার উত্তর গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) উপ-পরিদর্শক (এস আই) কাওসার সুলতান জানান, তারা সংঘবদ্ধভাবে আশুলিয়ার বিভিন্ন স্থানে ডাকাতি করে আসছিল। সর্বশেষ ৩ নভেম্বর রাতে আশুলিয়ার বাইপাইল নামাবাজারের ফাল্গুনী জুয়েলারী'র ব্যবসায়ীরা দোকান বন্ধ করে ৫ ভরি স্বর্ণ ও নগদ ২ লাখ ৭০ হাজার টাকা নিয়ে বাড়ির উদ্দেশ্যে রওয়ানা করলে কিছু দূর পরেই ডাকাতরা তাদের গতিরোধ করে। 

এসময় অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে স্বর্ণ ও নগদ টাকা ছিনিয়ে নিয়ে যায় ডাকাত দল। পালানোর সময় ডাকাতরা ৮টি থেকে ১০টি ককটেল ফাটিয়ে এলাকায় আতংক সৃষ্টি করে। আশুলিয়ার বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে মুঠোফোনে আধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহার করে তাদের আটক করা হয়েছে। আটককৃতদের আদালতে প্রেরণ করা হলে তারা চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট এর আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোকিতমূলক জবানী প্রদান করেছে। 
  
উল্লেখ্য, গত রোববার রাতে জুয়েলারী ব্যবসায়ী গৌরাঙ্গের বুকে ছুরিকাঘাত করে স্বর্নালংকার নিয়ে ৮/১০ টি ককটেল ফাঁটিয়ে ফিল্মি স্টাইলে এলাকা ত্যাগ করে ডাকাতদল। এ ঘটনায় পরবর্তীতে আশুলিয়া থানায় মামলা করেন স্বর্ণ ব্যবসায়ী গৌরাঙ্গের ছোট ভাই বাদল চন্দ্র সরকার। মামলা দয়েরের পর ঢাকা জেলা উত্তর গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশ বিভিন্ন স্থান থেকে সংঘবদ্ধ ডাকাতদের আটক করেছে। 

কেআই/আকে
 

© ২০১৯ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি