ঢাকা, সোমবার   ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, || আশ্বিন ১১ ১৪২৮

পুলিশের হাতে ‘ভাদাইমা’

প্রকাশিত : ২০:২০, ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ | আপডেট: ২০:২২, ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

ইন্টারনেটে অশ্লীল ভিডিও ছাড়ার অভিযোগে ভাদাইমাকে নিয়ে আসা হয়েছে পুলিশের কার্যালয়ে। ইউটিউবে অশ্লীল শর্টফিল্ম তৈরি করে সেগুলো প্রচার এবং যুব সমাজকে অবক্ষয়ের দিকে ঠেলে দেয়ার অভিযোগে ভাদাইমাসহ আরও তিনজনকে হেফাজতে নিয়ে আসা হয়।

সোমবার বিকেলে রাজধানীর বিজয়নগর থেকে তাদের ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) সাইবার সিকিউরিটি অ্যান্ড ক্রাইম ইউনিটের মিন্টো রোডের কার্যালয়ে আনা হয়।

এ বিষয়ে ডিএমপির সাইবার সিকিউরিটি ও ক্রাইম বিভাগের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (এডিসি) নাজমুল ইসলাম একুশে টেলিভিশন অনলাইনকে বলেন, ইউটিউব চ্যানেল ডিজিটাল ভাদাইমার মালিকসহ সংশ্লিষ্ট তিনজনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আমরা নিয়ে এসেছি। আমরা তাদের অপরাধ খতিয়ে দেখছি।

তিনি বলেন, আমরা তাদেরকে গ্রেফতার করিনি। মূলত তাদের বিষয়গুরো খতিয়ে দেখা এবং তাদেরকে সতর্ক করার জন্য নিয়ে আসা। পাশাপাশি আমরা তাদের কাউন্সিলিং করছি। নিরাপদ ইন্টারনেটের স্বার্থে আমাদের এ ধরণের অভিযান অব্যাহত থাকবে।

এর আগে রোববার ইন্টারনেটে অপেশাদার এবং অপ্রাসঙ্গিক ভিডিও ছড়ানোর অভিযোগে মডেল সানাই মাহবুব সুপ্রভাকে জিজ্ঞাসাবাদ করে মুচলেকা নিয়ে ছেড়ে দেয় ডিএমপির সাইবার সিকিউরিটি অ্যান্ড ক্রাইম ইউনিট। পুলিশের হেফাজতে থেকে নিজের ফেসবুক আইডি দিয়ে লাইভে এসে নিজের কৃতকর্মের জন্য ক্ষমা চান সানাই।

এভাবে মঙ্গলবার সালমান মুক্তাদিরকেও ডেকে নিয়ে আসা হয়। তাকেও সতর্ক করা হয় এবং কাউন্সিলিং করা হয়। এ ধরণের অভিযান অব্যাহত থাকবে বলে জানান নাজমুল আলম। তিনি বলেন, ‘যারাই ইন্টারনেটকে কলুষিত করবে তাদেরকেই আইনের আওতায় আনা হবে।’

এসি

 


Ekushey Television Ltd.

© ২০২১ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি