ঢাকা, রবিবার   ২৪ অক্টোবর ২০২১, || কার্তিক ৮ ১৪২৮

করোনায় আক্রান্ত নড়াইল পুলিশ সুপার

নড়াইল প্রতিনিধি

প্রকাশিত : ১৩:২৩, ১৮ জুলাই ২০২০ | আপডেট: ১৩:২৪, ১৮ জুলাই ২০২০

নড়াইল পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জসিম উদ্দিন পিপিএম (বার)

নড়াইল পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জসিম উদ্দিন পিপিএম (বার)

নড়াইল পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জসিম উদ্দিন পিপিএম (বার) করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। শুক্রবার (১৭ জুলাই) রাত ১০দিকে পুলিশ সুপারের করোনা পরীক্ষার রিপোর্ট ‘পজিটিভ’ আসে। 

করোনায় আক্রান্ত হওয়ার বিষয়টি তিনি নিজেই নিশ্চিত করেছেন। পুলিশ সুপার, গত কয়েকদিন ধরে বাসায় আইসোলেশনে আছেন এবং তার শারীরিক অবস্থা ভালো আছে।

এদিকে, করোনা আক্রান্ত হয়ে নড়াইলের কালিয়া উপজেলার বড়দিয়ার শেখ ফজিলাতুন্নেছা মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক আরিফুল ইসলাম চৌধুরী (৫৭) মারা গেছেন। শুক্রবার (১৭ জুলাই) রাত ৮টার দিকে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে তার মৃত্যু হয়। আরিফুলের স্ত্রী একই বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আসমা চৌধুরীও (৪৭) করোনা আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসাধীন আছেন।

পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, করোনার উপসর্গ নিয়ে পাঁচদিন আগে অসুস্থ হন শিক্ষক আরিফুল ইসলাম। তাকে প্রথমে কালিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। সেখানে অবস্থার অবনতি হলে আরিফুলকে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। গতকাল (শুক্রবার) বিকেলে করোনার রিপোর্ট ‘পজিটিভ’ আসে এবং ওইদিন রাত ৮টার দিকে তিনি মারা যান।

এদিকে, প্রায় আট মাস আগে (২০১৯ সালের ৭ নভেম্বর) আরিফুল ইসলামের বড় ছেলে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মাস্টার্সের শিক্ষার্থী চৌধুরী নাইম মাহমুদ আরমান অসুস্থজনিত কারণে মৃত্যুবরণ করেন। সেই শোকে স্কুলশিক্ষক আরিফুল ভেঙ্গে পড়েন এবং অনেকটা ধ্যানমগ্ন ছিলেন। শুক্রবার রাত ৪টার দিকে বড় ছেলে আরমানের কবরের পাশে বাবা আরিফুলকে দাফন করা হয়েছে। ছোট ছেলে দশম শ্রেণির শিক্ষার্থী ফাহিম চৌধুরী করোনামুক্ত আছে।  

কালিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) নাজমুল হুদা বলেন, স্কুলশিক্ষক আরিফুল-আসমা দম্পতি করোনা আক্রান্ত ছিলেন। এর মধ্যে আরিফুল ইসলাম মারা গেছেন। আর স্ত্রী বাড়িতে চিকিৎসা নিচ্ছেন এবং ভালো আছেন। এছাড়া বড়দিয়া এলাকায় করোনা আক্রান্ত হয়ে তিনজন এবং উপসর্গ নিয়ে দু’জনসহ মোট পাঁচজনের মৃত্যু হয়েছে। এছাড়া বেশ কয়েকজন আক্রান্ত আছেন।

সিভিল সার্জন ডাক্তার আবদুল মোমেন জানান, গত ২৪ ঘন্টায় নড়াইলে নতুন করে ২২জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। এর মধ্যে নড়াইল সদরে পুলিশ সুপারসহ ১৬জন এবং লোহাগড়া উপজেলায় ছয়জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। এ নিয়ে নড়াইলে মোট ৫০৯জনের করোনা শনাক্ত হলো। এর মধ্যে ২১২জন সুস্থ হয়েছেন এবং নয়জন মারা গেছেন।

এমবি//


Ekushey Television Ltd.

© ২০২১ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি