ঢাকা, মঙ্গলবার   ০২ মার্চ ২০২১, || ফাল্গুন ১৭ ১৪২৭

সান্তাহারে শিশু ধর্ষণের চেষ্টাকারিকে গণপিটুনি 

নওগাঁ প্রতিনিধি 

প্রকাশিত : ২২:৫৯, ৪ অক্টোবর ২০২০ | আপডেট: ২৩:৪৯, ৪ অক্টোবর ২০২০

বগুড়ার আদমদীঘি উপজেলার সান্তাহার ইউনিয়নের ছাতনী-ঢেকড়া বাজারে ৮ বছরের কণ্যা শিশুকে ধর্ষণের চেষ্টার ঘটনায় সোহেল রানা (৩৫) নামে এক মুদিদোকানীকে এলকাবাসী গণপিটুনী দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করেছে। শনিবার সন্ধ্যায় এই ঘটনা ঘটেছে। 

রোববার ওই শিশুর মা বাদী হয়ে থানায় মামলা দায়ের করলে পুলিশ ওইদিন বিকেলে মুদী দোকানীকে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠিয়েছে। এদিকে পুলিশ ওই শিশুকে উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে ভর্তি করে দিয়েছে। এই ঘটনায় এলাকায তীব্র ক্ষোভের সৃষ্ঠি হয়েছে। আটক সোহেল রানা ছাতনীর পাচঁভাগা পাড়ার মোজাম্মেল হকের ছেলে বলে জানা গেছে।

আদমদীঘি থানার ওসি জালাল উদ্দীন জানান ওইদিন সন্ধ্যার সময় ওই শিশু সোহেল রানার মুদি দোকানে খাবার জিনিস ক্রয করতে আসে। এসময় আশে-পাশে কেউ না থাকায় দোকানী সোহেল রানা শিশুটিকে দোকানের ভিতরে আসতে বলে। নিতে আসে ওই এলাকার বাদল প্রামানিকের আট বছরের শিশুকণ্যা। দোকানের আশে পাশে লোকজন না থাকার সুযোগে ওই শিশুকে দোকানের ভিতরে প্রবেশ করতে বলে দোকানি সোহেল রানা। শিশুটি দোকানে প্রবেশের পর সোহেল রানা তাকে জাপটে ধরে ধর্ষনের চেষ্টা চালায়। 

এসময় শিশুটির চিৎকারে আশপাশের লোকজন ছুটে এসে ওই শিশুকে উদ্ধার করে  এবং উত্তেজিত এলাকাবাসী সোহেল রানাকে উত্তম মধ্যম দিয়ে রাতেই পুলিশের নিকট সোর্পদ করে। 

আদমদীঘি থানার ওসি জালাল উদ্দীন বলেন এই ঘটনায় রোববার থানায মামলা হয়েছে। ওই মামলায় সোহেল রানাকে গ্রেপ্তার দেখিয়ে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে। একই সময়ে শিশুটি পুলিশ হেফাজতে নিয়ে চিকিৎসা প্রদান করা হচ্ছে।

আরকে//


Ekushey Television Ltd.

© ২০২১ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি