ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ২৬ মে ২০২২, || জ্যৈষ্ঠ ১১ ১৪২৯

বেগমগঞ্জের ঘটনায় ইউপি মেম্বারের পরিবারকে হয়রানির অভিযোগ

নোয়াখালী প্রতিনিধি 

প্রকাশিত : ০৯:৪২, ১৫ অক্টোবর ২০২০

নোয়াখালীর বেগমগঞ্জ উপজেলার একলাশপুরে নারীকে বিবস্ত্র করে নির্যাতনের ঘটনাকে পুঁজি করে ইউপি মেম্বার সোহাগের পরিবারকে হয়রানির অভিযোগ উঠেছে। 

বুধবার (১৪ অক্টোবর) সন্ধ্যায় একলাশপুর ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ডের সদস্য মোয়াজ্জেম হোসেন সোহাগের বাড়িতে সহধর্মিণী কানিজ ফারহানা এক সংবাদ সম্মেলনে এই অভিযোগ করেন।

তিনি বলেন, ‘পূর্বের জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে স্থানীয় ভূমিদস্যু নুর হোসেন বাবলু গংরা আমার স্বামী জেলহাজতে থাকার সুযোগ নিয়ে কিছু মিডিয়ার কাছে অপপ্রচার চালিয়ে দলবল নিয়ে সংবাদ সংগ্রহের নামে আমাদের বাড়িতে হামলা করে। এ সময় বাড়িতে কোনো পুরুষ সদস্য না থাকায় তারা বসত ঘরের কলাপসিবল গেট ভেঙে ভিতরে ঢুকার চেষ্টা করে। একপর্যায়ে আমাদের শোর চিৎকারে আশেপাশের লোকজন ছুটে এলে ভূমিদস্যু সন্ত্রাসীরা পালিয়ে যায়।’

কান্নাজড়িত কণ্ঠে তিনি বলেন,‘নারী নির্যাতনের ঘটনায় আমার স্বামীর কোনও ভূমিকা ছিল না। শুধুমাত্র নির্যাতনের ঘটনাটি আগে জানার পরও পুলিশকে না জানানোর কারণে পরিস্থিতির শিকার হয়ে এখন জেলহাজতে আছেন। তবুও যদি তদন্তে তার কোনো দোষ প্রমাণিত হয়, তাহলে আইনের আলোকে তার বিচার হবে। কিন্তু তার অনুপস্থিতির সুযোগ নিয়ে ভূমিদস্যু বাবুল কয়েকজন ভাড়াটিয়া লোক সাথে নিয়ে আমাদের পরিবারের লোকদের হয়রানি করে। আমি এ বিষয়ে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নিকট সুষ্ঠ বিচার ও আমার পরিবারের নিরাপত্তার দাবি করছি।’

সংবাদ সম্মেলনে জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও মুক্তিযোদ্ধা আবুল হাশেম বিএ, গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গসহ এলাকার সর্বস্তরের লোকজন উপস্থিত ছিলেন।

এ সময় এলাকার লোকজনও সোহাগ মেম্বারের পক্ষে নানা স্লোগান দিয়ে হামলাকারীদের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ প্রদর্শন করেন।

এআই/এমবি


Ekushey Television Ltd.

© ২০২২ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি