ঢাকা, মঙ্গলবার   ০৭ ডিসেম্বর ২০২১, || অগ্রাহায়ণ ২৩ ১৪২৮

মাগুরায় একজনকে কুপিয়ে হত্যা

মাগুরা প্রতিনিধি

প্রকাশিত : ১৬:০২, ১৭ নভেম্বর ২০২০

আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে মাগুরা সদরের নন্দলালপুর গ্রামে জাকির হোসেন লিটন (৪৮) নামের এক ব্যক্তিকে কুপিয়ে হত্যা করেছে প্রতিপক্ষের লোকজন। এ ঘটনায় ১৫টি বাড়ি ভাঙচুর এবং ৫ জন আহত হয়েছেন। 

নিহত লিটন নন্দলালপুর গ্রামের মুন্সী মুনসুর আহমেদের ছেলে। 

মাগুরা সদর থানার অফিসার ইনচার্জ জয়নাল আবেদিন জানান, ‘হাজরাপুর ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান সদর থানা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল মান্নান ও বর্তমান চেয়ারম্যান জেলা যুবলীগ নেতা কবির হোসেনের সাথে আধিপত্য বিস্তার নিয়ে দীর্ঘদিন দরে বিরোধ চলে আসছিল। এরই ধারাবাহিকতায় জমিতে পানি দেয়াকে কেন্দ্র করে সোমবার বিকেলে আব্দুল মান্নানের সমর্থক শরিফুল ইসলামের সাথে কবির হোসেনের সমর্থক লিটনের কথা কাটাকাটি হয়। রাত সাড়ে ১০টার দিকে গ্রামের পশ্চিম পাড়ার একটি চায়ের দোকানে লিটন বসে ছিল। এ সময় আব্দুল মান্নানের সমর্থক শরিফুলের নেতৃত্বে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে লিটনের পায়ের রগ কেটে দেয়। এ সময় তার সাথে থাকা ৫ জন আহত হয়। মারাত্মক আহত অবস্থায় স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে মাগুরা ২৫০ শয্যা হাসপতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।’ 

ময়নাতদন্তের জন্য মৃতদেহ মাগুরা হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। ঘটনার সাথে জড়িতদের গ্রেফতারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে বলেও জানান তিনি। 

উল্লেখ্য, ১ নভেম্বর একই ইউনিয়নের সাচানী গ্রামের আব্দুল মান্নানের সমর্থক মাসুদ হোসেন (৩০) কে কুপিয়ে হত্যা করে কবির হোসের সমর্থকরা। মাত্র ১৫ দিনের ব্যবধানে অত্র হাজরাপুর ইউনিয়নের আওয়ামী লীগ নেতা সাবেক ও বর্তমান চেয়ারম্যানের বিরোধের জের ধরে একই এলাকায় পরপর ২টি হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় এলাকায় ভীতিকর অবস্থা বিরাজ করছে।
এআই/এসএ/


Ekushey Television Ltd.

© ২০২১ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি