ঢাকা, বুধবার   ২০ অক্টোবর ২০২১, || কার্তিক ৪ ১৪২৮

বঙ্গবন্ধুর জন্মদিনে স্বপ্নের ঠিকানায় ২৩ গৃহহীন

ফারুক আহমেদ চৌধুরী, চাঁপাইনবাবগঞ্জ  

প্রকাশিত : ২২:৪৭, ১৮ মার্চ ২০২১

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকীতে চাঁপাইনবাবগঞ্জের ২৩ গৃহহীন পেয়েছেন স্বপ্নের নতুন ঠিকানা। বুধবার বঙ্গবন্ধুর জন্মদিনে গৃহহীনদের মাঝে বাড়ির চাবি তুলে দেন জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা মঈনুদ্দিন মণ্ডল ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (উপ-সচিব) মো. এনামুল হক। বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন পূরণে মুজিবর্ষে কেউ গৃহহীন থাকবে না- এমন ঘোষণা দেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণা বাস্তবায়নে চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা পরিষদের নিজস্ব অর্থায়নে ২৩টি বাসগৃহ নির্মাণ করা হয়েছে। এতে মাথা গোঁজার ঠাঁই পেল চাঁপাইনবাবগঞ্জের ২৩ অসহায় গৃহহীন পরিবার। একই নকশায় তৈরি হয়েছে গৃহহীনদের স্বপ্নের বাসভবন। চারদিকে ইটের দেয়াল এবং উপরে লাল-সবুজ টিনের ছাউনি। প্রধানমন্ত্রীর পক্ষ থেকে জেলা পরিষদের বিশেষ এ উপহার পেয়ে দারুণ খুশি গৃহহীন পরিবারগুলো।

চাঁপাইনবাবগঞ্জের গৃহহীনদের মাঝে বাড়ির চাবি হস্তান্তর অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন- জেলা পরিষদ সদস্য আবুল বাসার, রফিকুল ইসলাম, আব্দুল হাকিম, হারুন-অর-রশিদ, কামাল উদ্দীন, রয়েল বিশ্বাস, কবির খান, হুসনেয়ারা পাখি, হালিমা বেগম, শান্তনা হক, কাজলেমা বেগম, প্রধান হিসাবরক্ষক মামুনুর রশিদসহ জেলা পরিষদরে বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা।

উপকারভোগী চরবাগডাঙ্গা ইউনিয়নের সাইফুদ্দন জানান, পদ্মানদীর ভাঙনে বাড়িঘর হারিয়ে কুঁড়েঘরে জীবনযাপন করতেন তিনি। অন্য ছেলেদের অবস্থাও একই। এক মেয়ের বিয়ে হয়নি। মেয়ে ও অন্য সন্তানদের নিয়েই জেলা পরিষদের দেয়া বাড়িতে থাকবেন সাইফুদ্দিন। বয়সের ভারে ঠিকমতো চলতেও পারছেন না। তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রীর উপহার হিসেবে বাড়ি পাওয়ায় আমি খুব খুশি। আজীবন প্রধানমন্ত্রীর জন্য দোয়া করবো।

উপকারভোগী সুন্দরপুরের ইউনিয়নের গৃহহীন দিনমজুর আনারুল জানান, চার সন্তান নিয়ে টিনের বেড়া দেয়া ঘরে থাকতেন। কখনো ভাবেননি নিজের এরকম বাড়ি হবে। এ রকম বাড়ি তৈরির সামর্থও তার ছিল না। বাড়ি পাওয়ার আনন্দে তিনি প্রধানমন্ত্রীর প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মো. এনামুল হক জানান, হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সুযোগ্য কন্য বর্তমান সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর একান্ত ইচ্ছা ও অভিপ্রায় মুজিবর্ষে বাংলাদেশের একটি মানুষও গৃহহীন থাকবে না। প্রধানমন্ত্রীর এমন ঘোষণার পর জেলা পরিষদের নিজস্ব অর্থায়নে ২৩ গৃহহীন পরিবারকে বাড়ি নির্মাণ করে দেয়া হয়েছে। দুই কক্ষের প্রতিটি বাড়ির নির্মাণ ব্যয় হয়েছে ২ লাখ ১৫ হাজার টাকা। এ প্রকল্প বাস্তবায়নে জেলা পরিষদের মোট ব্যয় হয়েছে ৫২ লাখ টাকা। প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের নির্ধারিত নকশা অনুযায়ী সবগুলো ঘর তৈরি করা হয়েছে।

এনামুল হক আরোও বলেন, আনন্দের বিষয় হচ্ছে; জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মদিনেই সুবিধাভোগী পরিবারের কাছে বাড়ির চাবি হস্তান্তর করা হয়েছে। চাঁপাইনবাবগঞ্জের প্রতিবন্ধী, বিধবাসহ অনেক গৃহহীন আছেন যারা এই বাড়িগুলো পেয়েছেন। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর অভিপ্রায় বাস্তবায়নে সামান্য ভূমিকা রাখতে পেরে আমরা সত্যিই গর্বিত।

আরকে//


Ekushey Television Ltd.

© ২০২১ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি