ঢাকা, শুক্রবার   ০৩ ডিসেম্বর ২০২১, || অগ্রাহায়ণ ১৯ ১৪২৮

বৃন্দাবনে উৎপাদিত হলুদ চা এখন বাজারে (ভিডিও) 

হবিগঞ্জ প্রতিনিধি

প্রকাশিত : ১১:২৫, ২৬ মার্চ ২০২১

দেশে প্রথমবারের মতো ইয়োলো টি বা হলুদ রঙের চা-এর উৎপাদন হচ্ছে হবিগঞ্জে। বাহুবল উপজেলার বৃন্দাবন চা বাগানে বাণিজ্যিকভাবে উৎপাদন শেষে শুরু হয়েছে বাজারজাতকরণও। দেশের বাজারে ইয়োলো টি’র পরিচিতি ও চাহিদা খুব একটা না থাকলেও ইউরোপের বাজারে রয়েছে এর ব্যাপক চাহিদা।

হবিগঞ্জের বাহুবল উপজেলায় ১১৮৩ একর জমিজুড়ে বিস্তৃত বৃন্দাবন চা বাগান। ১৯২০ সাল থেকে সাধারণ মানের চা উৎপাদন করে আসছিলো বাগানটি। আর এখন প্রথমবারের মতো উৎপাদন হচ্ছে ইয়েলো টি ও হোয়াইট টি।

হোয়াইট টি বা সাদা রঙের চা প্রতি কেজি পাঁচ হাজার একশত টাকা। আর ইয়েলো টি বা হলুদ রঙের চা প্রতি কেজি সাড়ে ছয় হাজার টাকায় নিলামে উঠছে। পরীক্ষামূলকভাবে উৎপাদন শেষে এখন হচ্ছে বাণিজ্যিকভাবে উৎপাদন।

পরীক্ষামূলকভাবে ইয়োলো টি উৎপাদন শেষে বাজারজাত করার পর বেড়েছে এর চাহিদা। এ বিষয়ে বৃন্দাবন চা বাগানের ব্যবস্থাপক নাসির উদ্দীন খান বলেন, ইয়োলো টি কি এটা বাংলাদেশের অনেকেই জানেন না। তবে যারা ইন্টারনেট ঘাটে তাদের মধ্যে কিছু লোক এখন জানতে পারেন। বহির্বিশ্বে এটার প্রচুর চাহিদা।

তিনি আরও বলেন, বাংলাদেশে যেহেতু আমরাই প্রথম ইয়োলো টি উৎপাদন করেছি, তাই এটা বাজারে ছাড়ার সঙ্গে সঙ্গেই রীতিমত কাড়াকাড়ি শুরু হয়ে গেছে। 

এদিকে, যে কোনও চায়ের তুলনায় ইয়েলো টি বা হলুদ রঙের এই চায়ের স্বাদ ভিন্ন, তাই চাহিদা থাকবে বলেই জানালেন বৃন্দাবন চা বাগানের গবেষক মাহমুদ হাসান প্রিন্স। তিনি বলেন, ইয়েলো টি আসলে যে কোনও চায়ের থেকে আলাদা। এটার যে টেস্ট এবং স্ট্রেন- এরকম চা আসলে বাংলাদেশে এর আগে আসে নাই বা উৎপাদিত হয় নাই। তাই আশা করছি এই ইয়েলো টি একটা নতুনত্ব তৈরী করবে। 
 
আর ইয়োলো টি’র উৎপাদন ছড়িয়ে দেয়া গেলে বিদেশের বাজার ধরাও সহজ হবে বলে আশা প্রকাশ করেন সংশ্লিষ্টরা। 

ভিডিওতে দেখুন- 

এনএস/


Ekushey Television Ltd.

© ২০২১ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি