ঢাকা, শনিবার   ২২ জুন ২০২৪

মাদারীপুরে কৃষক মারধরের ঘটনায় ইউপি চেয়ারম্যানসহ আটক ২১

মাদারীপুর প্রতিনিধি

প্রকাশিত : ১৪:৫০, ৩০ জুন ২০২১

মাদারীপুরের রাজৈরে খাল ভরাট করে আশ্রয়ণ প্রকল্প করাকে কেন্দ্র করে আমগ্রাম ইউনিয়নের সেনখালী গ্রামবাসীর সাথে ইউপি চেয়ারম্যানের লোকজনের সংঘর্ষ হয়। এ সময় বিচরণ বাড়ৈ নামের এক কৃষককে মারধর করা হলে তার বড়ভাই মামলা দায়ের করেন। ওই মামলায় চেয়ারম্যান জাহিদুর রহমানর টিপুসহ ২১ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

মঙ্গলবার (২৯ জুন) রাতে তাদেরকে গ্রেফতার করে রাজৈর পুলিশ।

জানা গেছে, বঙ্গবন্ধু আশ্রয়ণ প্রকল্প করার জন্য রাজৈরের সেনখালী গ্রামের খালটি ভরাট করে উপজেলা প্রশাসন। এতে ক্ষুব্দ হয় এলাকাবাসী। তাদের দাবি, এ খালটি ভরাট করা হলে বাঘিয়ার বিলে হাজার হাজার একর ফসলী জমিতে চাষাবাদ ব্যাহত হবে। তাই খালটি ভরাট না করে সরকারি জমিতে প্রকল্পটি করার দাবি করে আসছিল তারা। 

এ ঘটনায় ১৮ জুন শুক্রবার বিকালে ইউনিয়ন পরিষদে বিচরণ বাড়ৈকে ডেকে নিয়ে খালের জমিতে প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করা হবে বলে জানায় চেয়ারম্যান। এনিয়ে উভয়ের মধ্যে কথা কাটকাটি হলে এক পর্যায় বিচরণ বাড়ৈকে চেয়ারম্যানসহ তার লোকজন মারধর করে। 

এ খবর পেয়ে সেনগ্রামের লোকজন ইউনিয়ন পরিষদে হামলা করে পরিষদ ভবন ভাংচুর করে। পরে পুলিশ এসে ৬৬ রাউন্ড ফাঁকা গুলি করে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। এ ঘটনায় বিচরণ বাড়ৈর বড় ভাই বিজয় বাড়ৈ রাজৈর থানায় একটি হত্যা চেষ্টার মামলা করেন। 

অপরদিকে, ইউনিয়ন পরিষদ ভাংচুর ও পুলিশের উপর হামলা হয়েছে উল্লেখ করে আরেকটি মামলা হয়। এই মামলার বাদি হয় পুলিশ। এছাড়া চেয়ারম্যান জাহিদুর রহমান টিপুও রাজৈর থানায় লিখিত অভিযোগ করেন।

তবে, বিজয় বাড়ৈর করা হত্যা চেষ্টার মামলায় মঙ্গলবার রাতে পুলিশ আমগ্রাম চেয়ারম্যান জাহিদুর রহমান টিপুসহ ২১ জনকে গ্রেফতার করে।

এএইচ/


Ekushey Television Ltd.


Nagad Limted


© ২০২৪ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি