ঢাকা, শুক্রবার   ২৪ মে ২০২৪

স্বামী হত্যার দায়ে প্রেমিকসহ স্ত্রীর যাবজ্জীবন কারাদণ্ড

জয়পুরহাট প্রতিনিধি

প্রকাশিত : ১৬:০৬, ৮ নভেম্বর ২০২১

জয়পুরহাটের পাঁচবিবি উপজেলার পশ্চিম রামচন্দ্রপুর গ্রামের পলাশ হোসেনকে হত্যার দায়ে প্রেমিকসহ স্ত্রীর যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছে আদালত। একইসঙ্গে তাদের ২০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরও  এক বছরের কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। 

সোমবার (৮ নভেম্বর) দুপুরে জয়পুরহাট জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক নূর ইসলাম এ রায় দেন।

কারাদণ্ডপ্রাপ্ত আসামিরা হলেন- নওগাঁর বদলগাছীর শমাপুর গ্রামের শফিউর রহমানের মেয়ে ছনি খাতুন (২৯) এবং তার প্রেমিক পাঁচবিবি উপজেলার পশ্চিম রামচন্দ্রপুর গ্রামের বাবলু মণ্ডলের ছেলে রনি হোসেন (২৬)।

মামলা সূত্রে জানা যায়, ২০১৫ সালের ১১ মার্চ সকালে পাঁচবিবি উপজেলার পশ্চিম রামচন্দ্রপুর গ্রামের পলাশ হোসেনের মরদেহ নিজ বাড়ির সামনের পুকুরে গলায় রশি দেওয়া ফাঁস অবস্থায় উদ্ধার করে পুলিশ। এ ঘটনায় নিহতের বাবা আবু বক্কর সিদ্দিক বাদী হয়ে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। 

মামলায় স্ত্রী সনি খাতুন ও তার প্রেমিক রনি হোসেনকে আসামি করা হয়।

মামলার তদন্ত চলাকালে আসামি সনি খাতুন স্বেচ্ছায় আদালতের কাছে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন। তিনি উল্লেখ করেন, উপজেলার পশ্চিম রামচন্দ্রপুর গ্রামের একটি খামার বাড়িতে চাকরির সুবাদে রনি হোসেনর সঙ্গে পরিচয় হয় সনি খাতুনের। পরে তারা পরকীয়ায় জড়িয়ে পড়েন। 

এ নিয়ে স্বামী পলাশ হোসেন তাকে ও তার প্রেমিক রনি হোসেনকে নিয়ে সন্দেহ করতেন। সেই জন্য তারা দুজনেই নিজ ঘরে খাবারের সাথে ঘুমের ট্যাবলেট খাওয়ান। এরপর স্বামী ঘুমিয়ে পড়লে সে ও তার প্রেমিক শ্বাসরোধ করে হত্যা করে পুকুরে ফেলে দেন। 

দীর্ঘ শুনানি শেষে আদালত এ রায় প্রদান করেন।

জয়পুরহাট জেলা দায়রা জজ আদালতের সরকারি কৌঁসুলি এ্যাডভোকেট নৃপেন্দ্রনাথ মণ্ডল বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

এএইচ/


Ekushey Television Ltd.





© ২০২৪ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি