ঢাকা, মঙ্গলবার   ২৫ জুন ২০২৪

অভিজাত রেস্তোরাঁয় শিশু শ্রমিককে পিটিয়ে হত্যা, আটক ১

নেত্রকোনা প্রতিনিধি

প্রকাশিত : ০৮:৪৬, ৩০ মার্চ ২০২২

শিশু শ্রমিক আল মামুনকে আটক করে নিয়ে যাচ্ছে থানা পুলিশ

শিশু শ্রমিক আল মামুনকে আটক করে নিয়ে যাচ্ছে থানা পুলিশ

নেত্রকোনা জেলা শহরের অভিজাত সালতি রেস্তোরাঁয় শিশু শ্রমিককে পিঠিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় ওই হোটেলের আরেক শিশু শ্রমিককে আটক করেছে পুলিশ।

মঙ্গলবার রাতে বড় বাজার এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

মৃত শিশু শ্রমিকের নাম ঈসমাইল (১৪) সদর উপজেলা রৌহা ইউনিয়ঢনের বড়গাড়া গ্রামের আব্দুল বারেক ও কণা দম্পতির ছেলে। এ ঘটনায় আল মামুন নামে অপর এক কর্মচারীকে আটক করেছে পুলিশ।

পুলিশ, রেস্তোরাঁ কর্তৃপক্ষ ও স্থানীরা জানায়, নেত্রকোনা সদর উপজেলার ছোট গাড়া গ্রামের আবদুল বারেকের স্ত্রী কনা আক্তার ও ছেলে ইসমাইল জেলা শহরের বড় বাজার এলাকার সালতি নামে ওই অভিজাত রেস্তোরাঁয় দীর্ঘদিন ধরে কাজ করে আসছেন। মঙ্গলবার কাজ শেষে মা কনা আক্তার বাড়ি চলে যান। ছেলে কাজ শেষে হোটেলেই থেকে যান।

রাত আনুমানিক পৌনে ৯টার দিকে ওই হোটেলের কর্মচারী আল মামুনের সাথে কথা কাটাকাটি নিয়ে ইসমাইলের ঝগড়া লাগে। এক পর্যায়ে ইসমাইলকে বেধরক মারপিট করে লাথি মেরে সিঁড়িতে ফেলে দেয় মামুন। 

এতে ইসমাইল অজ্ঞান হয়ে গেলে তাকে নেত্রকোনা আধুনিক সদর হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

খবর পেয়ে নেত্রকোনা মডেল থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে প্রাথমিক তদন্ত শেষে আল মামুনকে আটক করে থানায় নিয়ে যায়।

ছেলের মৃত্যুর খবর পেয়ে হাসপাতালে ছুটে যান মা কনা আক্তার। তিনি হত্যাকারীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানান।

নেত্রকোনা মডেল থানার (ওসি) তদন্ত সোহেল রানা জানান, ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে এক শ্রমিককে আটক করা হয়েছে। নিহতের লাশ ময়নাতদন্তের জন্য নেত্রকোনা আধুনিক সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

এএইচ/


Ekushey Television Ltd.


Nagad Limted







© ২০২৪ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি