ঢাকা, মঙ্গলবার   ২৫ জুন ২০২৪

রোহিঙ্গা নারীকে ধর্ষণের অভিযোগ, গ্রেফতার ২

নোয়াখালী প্রতিনিধি

প্রকাশিত : ১৭:৪৫, ১৪ এপ্রিল ২০২২

নোয়াখালীর দ্বীপ উপজেলা হাতিয়ার ভাসানচর আশ্রয়ন প্রকল্প থেকে পালিয়ে আসা এক রোহিঙ্গা নারীকে (২০) গণধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। এসময় ওই নারীর সাথে থাকা মহিবুল্ল্যা (১৫) নামের এক কিশোরকে মারধর করে অভিযুক্তরা। এঘটনায় অভিযুক্ত কামাল (২৮) ও সিরাজুল মাওলা মনিরকে (২৭) গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার দুপুরে ওই রোহিঙ্গা নারী বাদি হয়ে দুইজনের নাম উল্লেখ ও অজ্ঞাত দু’জনকে আসামি করে চরজব্বর থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে একটি মামলা দায়ের করেন। গ্রেফতারকৃত দুইজন সুবর্ণচর উপজেলার মোহাম্মদপুর ইউনিয়নের বাসিন্দা, তারা মামলার এজাহারভুক্ত আসামি।

অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, গত মঙ্গলবার রাতে রোহিঙ্গা এক তরুণসহ ওই নারী ভাসানচর রোহিঙ্গা ক্যাম্প থেকে গফুর মাঝির বোটে কক্সবাজারের উখিয়ার বালুখালীর উদ্দেশ্যে রওনা করেন। বুধবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে কৌশলে তাদের বোট থেকে সুবর্ণচরের মোহাম্মদপুর ইউনিয়নের একরাম বাজার এলাকার বোরখাল এলাকায় নামিয়ে দেওয়া হয়। ওই স্থান থেকে একটি মোটরসাইকেল যোগে তারা সোনাপুর যাওয়ার জন্য রওনা হলে পথে চরলক্ষ্মী গ্রামের নয়নের দোকান এলাকায় মোটরসাইকেল থামিয়ে তাদের নামানো হয়।

পরে ওইস্থানে থাকা অজ্ঞাত দুই ব্যক্তি রোহিঙ্গা কিশোরকে মারধর করে এবং মোটরসাইকেল দুই চালকসহ নারীকে শাহজাহানের প্রজেক্টে নিয়ে ইচ্ছার বিরুদ্ধে পালাক্রমে জোরপূর্বক গণধর্ষণ করে। এসময় রোহিঙ্গা কিশোরের চিৎকারে স্থানীয় লোকজন এগিয়ে এসে কামাল ও সিরাজুল মাওলাকে আটক করলেও অপর দু’জন পালিয়ে যায়।

চরজব্বর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. জিয়াউল হক বলেন, রোহিঙ্গা নারীর দায়ের করা মামলায় দুইজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তাদেরকে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। ভুক্তভোগী নারীকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট নোয়াখালী জেলারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে বলেও জানান ওসি।
কেআই//
 


Ekushey Television Ltd.


Nagad Limted







© ২০২৪ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি