ঢাকা, মঙ্গলবার   ১৮ জুন ২০২৪

বরিশালে দূরপাল্লাসহ অভ্যন্তরীণ সব রুটে ২ দিন বাস চলাচল বন্ধ

বরিশাল প্রতিনিধি

প্রকাশিত : ১৪:৫১, ৩ নভেম্বর ২০২২

আগামী ৪ ও ৫ নভেম্বর বরিশাল বিভাগের ৬ জেলার বাস মালিক ও কর্মচারী এবং পরিবহন শ্রমিকরা কর্মবিরতিতে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। ফলে শুক্রবার থেকে দুই দিন বরিশাল বিভাগ থেকে দূরপাল্লাসহ অভ্যন্তরীণ সব রুটে বাস চলাচল বন্ধ থাকবে। 

পাশাপাশি বরিশাল জেলা মিশুক, বেবিট্যাক্সি, টেক্সিকার ও সিএনজি চালক শ্রমিক ইউনিয়নের পক্ষ থেকে আগামী ৪ ও ৫ নভেম্বর পাঁচ দফা দাবিতে ধর্মঘট আহ্বান করা হয়েছে। 

এদিকে বৃহস্পতিবার সকাল থেকে বরিশাল-ভোলা নৌপথে লঞ্চ চলাচল বন্ধ রয়েছে। এর আগে গতকাল বুধবার সন্ধ্যা থেকে বরিশাল-ভোলা নৌপথে স্পিডবোট চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। 

কী কারণে লঞ্চ ও স্পিডবোট বন্ধ রয়েছে তা বরিশাল নদী বন্দর কর্তৃপক্ষ জানাতে পারেনি।

তবে বিএনপির নেতারা বলেছেন, আগামী ৫ নভেম্বর বিএনপির বরিশালে বিভাগীয় গণসমাবেশ বাধাগ্রস্ত করতে নানা অপচেষ্টা চালানো হচ্ছে। গণসমাবেশে ব্যাপক লোকসমাগম ঠেকাতে সড়ক পথ ও নৌপথে চলাচল বন্ধ করা হয়েছে। 

বরিশাল অভ্যন্তরীন ও ঢাকা-বরিশাল নৌপথে চলাচলকরা লঞ্চের কয়েকজন মালিক জানান, বরিশাল মহানগর শ্রমিক লীগের সাধারণ সম্পাদক পরিমল চন্দ্র দাস পোর্ট রোড লঞ্চ মালিক সমিতি ভবনে গিয়ে আগামী ৪ ও ৫ নভেম্বর লঞ্চ বন্ধ থাকবে বলে নির্দেশ দেন। এরপর সমিতির পক্ষ থেকে মালিকদের ফোন করে লঞ্চ বন্ধ রাখতে বলা হচ্ছে।

তবে বরিশাল মহানগর শ্রমিক লীগের সাধারণ সম্পাদক পরিমল চন্দ্র দাস জানান, আমি কেন লঞ্চ বন্ধ করতে বলব। শুনেছি, মালিকদের কিছু দাবি আছে। দাবি আদায়ের লক্ষে তারা আগামী ৪ ও ৫ নভেম্বর লঞ্চ চলাচল বন্ধ রাখবেন।

বিআইডবিব্লউটিএ বরিশাল কার্যালয়ের বন্দর কর্মকর্তা মো. আব্দুর রাজ্জাক বলেন, বরিশাল থেকে অভ্যন্তরীন নৌরুট রয়েছে ১২টি। এরমধ্যে অন্যতম বরিশাল-ভোলা নৌরুট। প্রতিদিন এ রুটে ১৪টি লঞ্চ চলে। আর বরিশাল-ভোলা নৌরুটে ৩৬টির মত স্পিডবোট চলাচল করে। 

তবে অভ্যন্তরীন বাকি ১১টি নৌরুটে লঞ্চ চলাচল স্বাভাবিক রয়েছে। আজ রাতে বরিশাল থেকে ঢাকার উদ্দেশ্যে বড় কয়েকটি লঞ্চ ছেড়ে যাওয়ার কথা রয়েছে।

এএইচ


Ekushey Television Ltd.


Nagad Limted


© ২০২৪ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি