ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ২৫ এপ্রিল ২০২৪

কালকিনিতে কদর বেড়েছে হাতপাখার

কালকিনি (মাদারীপুর) প্রতিনিধি

প্রকাশিত : ১৪:৩৩, ১৮ এপ্রিল ২০২৩

প্রচণ্ড তাপদাহ ও বিদ্যুতের লোড শেডিংয়ে মাদারীপুরের কালকিনিতে হাত পাখার কদর বেড়েছে। প্রচণ্ড গরমে জনজীবন বিপর্যস্ত হয়ে পরেছে। এই গরমের মধ্যে বিদ্যুৎ চলে গেলে সাধারণ মানুষের কাছে এখন হাতপাখাই একমাত্র ভরসা।

মঙ্গলবার সকালে কালকিনি বাজারসহ বিভিন্ন জায়গায় হাতপাখা কিনতে ক্রেতাদের ভীড় দেখা যায়।

বাজারের দোকানসহ বিভিন্ন জায়গায় ফেরি করে পাখা বিক্রি করছেন বিক্রেতারা। তবে দাম একটু বেশি নিচ্ছে বলে অভিযোগ ক্রেতাদের। আগে যে হাতপাখা ২৫ থেকে ৩০ টাকা বিক্রি হতো বর্তমানে তা ৫০ থেকে ৬০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

তবে এই গরম থেকে স্বস্তি পেতে হাতপাখাই সবার ভরসা। 

বর্তমানে প্রতিটি বাসা-বাড়িতে রয়েছে বৈদ্যুতিক পাখা। কেউ কেউ আবার ব্যবহার করছেন এসি। কিন্তু প্রচণ্ড গরমে লোডশেডিং বেড়েছে। দিন-রাত মিলিয়ে বেশ কয়েক ঘন্টা বিদ্যুৎ থাকে না। একদিকে প্রচণ্ড গরম, অন্যদিকে লোডশেডিংয়ের কারণে অনেকেই হাতপাখা ব্যবহার করছেন।

হাতপাখা ব্যবসায়ী আবুল হোসেন বলেন, “১০ বছর ধরে জেলার বিভিন্ন হাট-বাজারসহ পথে পথে হাতপাখা বিক্রি করে আসছি। সেই টাকায় আমার সংসার চলে। আমার মতো অনেকেই পাখা বিক্রি করে সংসার চালাচ্ছেন। এ বছর গরম শুরুর প্রথম থেকেই বেড়েছে হাতপাখার চাহিদা। তাই কারিগরদের ব্যস্ততাও বেশি। প্রতি পিস হাতপাখা ৩০-৩৫ টাকায় কিনে ৪৫-৫০ টাকা করে বিক্রি করি।’

হাতপাখা ক্রেতা আশরাফুর রহমান বলেন, ‘গরম বেড়েছে, কারেন্টও থাকে না। তাই একটা হাতপাখা কিনলাম। তবে দাম আগের চেয়ে বেশি রেখেছে।’

আরেক ক্রেতা সালমা আক্তার বলেন, ‘দুটি তালপাতার পাখা কিনলাম ১১০ টাকা দিয়া। এই গরমে তো বাঁচা লাগবো। তাই হাতপাখার কোনো বিকল্প নাই। কারণ ফ্যানের বাতাসের চেয়ে হাতপাখার বাতাসে অনেক বেশি শান্তি।’

এদিকে আবহাওয়া অফিস জানিয়েছে, এ তাপদাহ অব্যাহত থাকবে কিছুদিন। বৃষ্টি না হওয়া পর্যন্ত গরমের তীব্রতা কমবে না।

এএইচ


Ekushey Television Ltd.


Nagad Limted


© ২০২৪ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি