ঢাকা, শনিবার   ১৩ এপ্রিল ২০২৪

নিজের বাড়িতে ফেরা হলো না রাশিদা খাতুনের

কলারোয়া (সাতক্ষীরা) প্রতিনিধি

প্রকাশিত : ১১:৪৫, ১৫ মে ২০২৩

মেয়ের বাড়ি থেকে নিজের বাড়িতে ফেরা হলো না এক নারীর। ফিরেছে ওই নারীর লাশ। মর্মান্তিক এক সড়ক দুর্ঘটনায় রাশিদা খাতুন (৪৮) নিহত হন। এসময় আহত হয়েছেন তার স্বামী হাবিবুর রহমান।

কলারোয়া উপজেলার গোপিনাথপুরে যশোর-সাতক্ষীরার মহাসড়কে রোববার (১৪ মে)  ওই দুর্ঘটনাটি ঘটে। নিহতের গ্রামের বাড়ি সাতক্ষীরার তালতলা গ্রামে।

জানা গেছে, রাস্তার পাশের ট্রলির সঙ্গে ধাক্কা খেয়ে মোটরসাইকেল থেকে ছিটকে পড়ে বিপরীত দিক থেকে আসা যাত্রিবাহী বাসের চাকায় পিষ্ট হয়ে ঘটনাস্থলেই নিহত হন রাশিদা খাতুন নামের ওই নারী। 

নিহতের স্বামী হাবিবুর রহমান জানান, গত তিনদিন আগে স্ত্রীকে নিয়ে যশোরের বাগআঁচড়ায় মেয়ের বাড়িতে বেড়াতে যান। রোববার সকালে মোটরসাইকেলযোগে নিজ বাড়ি সাতক্ষীরার তালতলায় ফিরছিলেন। পথিমধ্যে গোপীনাথপুর এলাকায় পৌছুলে রাস্তার পাশের একটি ট্রলিকে সাইট দিতে গিয়ে মোটরসাইকেল থেকে পড়ে যান তারা দুইজন। এসময় তার স্ত্রী রাস্তার উপরে ছিটকে পড়লে যশোরগামী একটি যাত্রীবাহী বাস তাকে চাপা দিয়ে চলে যায়। ঘটনাস্থলে তার স্ত্রীর মৃত্যু হয়। 

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, ট্রলির পিছনে ধাক্কা খেয়ে মোটরসাইকেলের পিছনে বসে থাকা নারী রাস্তার উপর ছিটকে পড়ে। এসময় একটি যাত্রীবাহী বাস ওই মহিলাকে চাপা দিলে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়। 

কলারোয়া থানার অফিসার ইনচার্জ মোস্তাফিজুর রহমান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, দুর্ঘটনার খবর পাওয়া মাত্রই পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশ উদ্ধার করে। লাশ ময়নাতদন্তের জন্য সাতক্ষীরা পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় থানায় একটি অপমৃত্যুর মামলা রেকর্ড করা হয়েছে বলে জানান তিনি।

এএইচ


Ekushey Television Ltd.


Nagad Limted


© ২০২৪ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি