ঢাকা, মঙ্গলবার   ১৮ জুন ২০২৪

সড়ক দুর্ঘটনায় গোপালগঞ্জের পিপি রনজিৎ কুমার নিহত

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১২:১২, ২৩ মার্চ ২০২৪

গোপালগঞ্জে সড়ক দুর্ঘটনায় জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি এবং নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের স্পেশাল পাবলিক প্রসিকিউটর (স্পেশাল পিপি) অ্যাডভোকেট রনজিৎ কুমার বাড়ৈ গামা (৭০) নিহত হয়েছেন।  

শুক্রবার রাতে আশঙ্কাজনক অবস্থায় ঢাকা নেয়ার পাথে তার মৃত্যু হয়।

পুলিশ জানায়, শহরতলীর মান্দারতলা এলাকায় নিজের প্রতিষ্ঠিত নির্মানাধীন শেখ ফজলুল করিম সেলিম ল' কলেজ থেকে বাসায় ফেরার জন্য বিকেল ৫টার দিকে ঢাকা-খুলনা মহাসড়কের মান্দারতলা এলাকায় আসেন তিনি। এ সময় দ্রুতগামী একটি মোটরসাইকেল তাকে ধাক্কা দেয়।

সেখানে তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়ার পথে রাত ৮টার দিকে তার মৃত্যু হয়। গোপালগঞ্জের ভাটিয়াপাড়া হাইওয়ে পুলিশের পরিদর্শক মোঃ আবুল হাশেম মজুমদার আওয়ামী লীগ এ নেতার সড়ক দুর্ঘটনায় নিহতের বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

অ্যাডভোকেট রনজিৎ কুমার বাড়ৈ গোপালগঞ্জ নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের স্পেশাল পাবলিক প্রসিকিউটর ছিলেন। রনজিৎ কুমার গামা জেলার টুঙ্গিপাড়া উপজেলার রূপাহাটি গ্রামের কালীপদ বাড়ৈ'র ছেলে। তিনি গোপালগঞ্জ শহরের পূর্ব থানাপাড়া এলাকার বাড়িতে বসবাস করতেন।

জেলা আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে শোকসন্তোপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর শোক ও সমবেদনা প্রকাশ করা হয়েছে।

গোপালগঞ্জ সদর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোহাম্মদ আনিচুর রহমান জানান, শুক্রবার সন্ধ্যার একটু আগে রাস্তা পারাপারের সময় দ্রুতগতির একটি মোটরসাইকেলের ধাক্কায় তিনি গুরুতর আহত হন। তাকে উদ্ধার করে গোপালগঞ্জ ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে নেয়া হলে সেখানে তার অবস্থার অবনতি হয়। পরে সেখান থেকে ঢাকায় নেয়ার পথে রাত ৮টার দিকে পথিমধ্যে তার মৃত্যু হয়।

নিহতের লাশ গোপালগঞ্জ ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতাল মর্গে রাখা হয়েছে। যেহেতু দুর্ঘটনাটি মহাসড়কে সেক্ষেত্রে হাইওয়ে পুলিশ আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করবে। আজ শনিবার ময়নাতদন্তের পর লাশ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হবে। 

এএইচ


Ekushey Television Ltd.


Nagad Limted


© ২০২৪ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি