ঢাকা, রবিবার   ০৫ ডিসেম্বর ২০২১, || অগ্রাহায়ণ ২০ ১৪২৮

পটুয়াখালীর বাউফলে মামলার বাদিকে পিটিয়ে হত্যা

বাউফল (পটুয়াখালী) সংবাদদাতা

প্রকাশিত : ১৫:৫৩, ৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯ | আপডেট: ১৫:৫৩, ৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯

পটুয়াখালীর বাউফলে একজনকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। হত্যায় অভিযুক্তরা নিহতের দায়ের করা একটি মামলার আসামী বলে জানা যায়। শনিবার সন্ধ্যায় উপজেলার কনকদিয়া ইউনিয়নের কম্বুখালী গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

নিহতের স্বজনরা জানান, পারিবারিক বিরোধের জেরে নিহত কবির বয়াতীর (৪৫) ছেলে স্কুলছাত্র সজীবকে ঘুমন্ত অবস্থায় কুপিয়ে হত্যার চেষ্টা চালায় দুর্বৃত্তরা। ঐ ঘটনায় গত ২৬ জুলাই কবির বয়াতী বাদী হয়ে থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

গতকাল শনিবার সন্ধ্যায় আসামী কুদ্দুসের বাড়ির সামনে দিয়ে যাওয়ার সময় কবির বয়াতীকে কুদ্দুসসহ তার লোকেরা মামলা তুলে নিতে বলেন। এ সময় তাদের মধ্যে বাকবিতণ্ডা হলে একপর্যায়ে বাড়ির উঠানে বেঁধে মারধর করা হয়।

পরে রাতে আহত বয়াতীকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। হত্যার ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে ঘটনাস্থল থেকে কুদ্দুসকে আটক করেছে পুলিশ।

এ ঘটনায় স্থানীয় কনকদিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. শাহিন জড়িত আছেন বলেও দাবী করেন নিহতের স্বজনরা। তবে অভিযোগ অস্বীকার করে শাহিন বলেন, ‘এসব ষড়যন্ত্রমূলক কথা। আমি খবর পেয়ে কবিরকে উদ্ধারের জন্য তাৎক্ষনিকভাবে পুলিশকে অবহিত করি এবং ঘটনাস্থলে চৌকিদার পাঠাই। জেলা সদরে থাকার কারণে আমি ঘটনাস্থলে যেতে পারি নাই।’

বাউফল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) খন্দকার মোহাম্মদ মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, ‘কয়েক দিন আগে জমি নিয়ে বিরোধে নিহতের ছেলেকে মারধর করেন কুদ্দুস ও তার সহযোগীরা। ঐ ঘটনায় কবির হোসেন বাদী হয়ে কুদ্দুসসহ কয়েকজনকে আসামী করে থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।’ হত্যার ঘটনায় অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে বলে জানান এ পুলিশ কর্মকর্তা।
এমএস/

 


Ekushey Television Ltd.

© ২০২১ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি