ঢাকা, সোমবার   ১০ মে ২০২১, || বৈশাখ ২৬ ১৪২৮

সেবার মান বাড়িয়ে হিলি স্থলবন্দরের রাজস্ব আহরণ বাড়ানো হবে

হিলি প্রতিনিধি

প্রকাশিত : ১৬:৫৪, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯

বন্দরের সেবার মান বাড়িয়ে দিনাজপুরের হিলি স্থলবন্দর দিয়ে ভারত-বাংলাদেশের মধ্যে পণ্য আমদানি- রফতানি বানিজ্য বাড়ানোর পাশাপাশি এই বন্দর থেকে রাজস্ব আহরণ বাড়ানো হবে বলে মন্তব্য করেছেন কাস্টমস এক্সসাইজ ও ভ্যাট রংপুর কমিশনারেটের নবনিযুক্ত কমিশনার শওকত আলি সাদীক।

মঙ্গলবার দুপুরে হিলি স্থলবন্দর পরিদর্শনে এসে হিলি স্থলশুল্কস্টেশন কার্যালয়ে ব্যবসায়ীদের সঙ্গে এক মতবিনিময় সভায় মিলিত হয়ে তিনি এ কথা বলেন।এরপরে তিনি বন্দর কতৃপক্ষের সঙ্গে বৈঠক করেন।

এসময় তিনি বলেন, এই বন্দর দিয়ে আমদানিকারকরা পণ্য আমদানি করবেন,স্থানীয় কাস্টমস কর্মকর্তারা দ্রুত সেই পণ্যটির পরিক্ষণ শুল্কায়ন কার্যক্রম সম্পূর্ণ করে বন্দর থেকে ছাড়করণ দেবেন, যাতে করে দীর্ঘসময় ধরে বন্দরে কোন পণ্য আটকা না থাকে। সেই সঙ্গে দেশের অন্যান্য বন্দরে পণ্য আমদানির ক্ষেত্রে যেসময় লাগে হিলি স্থলবন্দর দিয়ে পণ্য আমদানির ক্ষেত্রে সেই সময় বা তার চেয়ে যেন কম সময় লাগে সেভাবে কাজ করে সেবার মান বাড়ানোর আহবান জানান।

সেই সঙ্গে হিলি স্থলবন্দর দিয়ে পণ্য আমদানির ক্ষেত্রে কোন ব্যবসায়ীরা যেন কাস্টমস কতৃক হয়রানির স্বীকার না হয় সে ব্যাপারে সকল কাস্টমস কর্মকর্তাকে সতর্ক করে দিয়ে বলেন এ ধরনের কোন অভিযোগ পাওয়া গেলে তা সহ্য করা হবে না বলে তিনি জানান।

এ সময় তিনি ব্যবসায়ীদের নিয়মের মধ্যে হিলি স্থলবন্দর দিয়ে পণ্য আমদানি রফতানি কার্যক্রম পরিচালনার কথা বলেন।এ সময় ব্যবসায়ীদের পক্ষ থেকেও বন্দরের অভ্যন্তরে ব্যাংকের বুথ, কাস্টমসের সার্ভার জটিলতা ও দেশের অন্যান্য বন্দরের ন্যায় হিলি স্থলবন্দরে আমদানিকৃত পণ্যের শুল্কায়ন মুল্য নির্ধারনসহ বিভিন্ন দাবী জানানো হলে সেসব দাবীর বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহনের কথা জানান।  

এসময় সেখানে হিলি স্থল শুল্কস্টেশনের সহকারী কমিশনার আব্দুল হান্নান, রাজস্ব কর্মকর্তা নুর আমিন, আবু বকর সিদ্দিক, হিলি স্থলবন্দর আমদানি রফতানিকারক গ্রুপের সভাপতি ও উপজেলা চেয়ারম্যান হারুন উর রশীদ, সাধারণ সম্পাদক মোস্তাফিজার রহমান, সিএন্ডএফ এজেন্ট আ্যসোসিয়েশনের সহ-সভাপতি আব্দুল আজিজ,বন্দরের ম্যানেজার অশিত স্যানাল,জনসংযোগ কর্মকর্তা সোহরাব হোসেনসহ কাস্টমস কর্মকর্তা, সিএন্ডএফ এজেন্ট ও আমদানি রফতানিকারকগণ উপস্থিত ছিলেন।

এর আগে তিনি দুপুর ১২টায় হিলি স্থলবন্দর পরিদর্শনে আসলে হিলি স্থল শুল্কস্টেশনের কাস্টমস কর্মকর্তা ও ব্যবসায়ীরা ফুল দিয়ে তাকে শুভেচ্ছা জানান। এর পরে তিনি কাস্টমসে আমদানিকৃত পণ্য পরিক্ষন শুল্কায়নসহ বিভিন্ন কার্যক্রম পরিদর্শন করেন। এর পরে সীমান্তের শুন্যরেখায় উপস্থিত হয়ে দায়িত্বরত বিজিবি ও ভারতীয় কাস্টমস কর্মকর্তাদের সঙ্গে বৈঠক করেন।এরপরে তিনি বিকেল সাড়ে ৩টার দিকে রংপুরের উদ্দেশ্যে হিলি ছাড়েন।
কেআই/

 
 


Ekushey Television Ltd.

© ২০২১ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি