ঢাকা, রবিবার   ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২

সরাইলে যত্রতত্র কিন্ডার গার্টেন: শিক্ষাক্ষেত্রে বাড়ছে অনিয়ম 

সরাইল প্রতিনিধি

প্রকাশিত : ১৮:১৪, ২৩ নভেম্বর ২০১৯

সরাইলে যত্রতত্র ব্যাঙ্গের ছাতার মত গড়ে উঠছে ব্যক্তিগত কিছু কিন্ডার গার্টেন স্কুল। এতে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোতে বাড়ছে যত অনিয়ম। আর অনিয়মের বহাল ছোবলের শিকার হচ্ছেন কোমলমতি স্কুল পড়ুয়া ছাত্র-ছাত্রীরা। যা নষ্ট করছে এলাকায় শিক্ষার মান।

জানা গেছে, সরাইল উপজেলা সদরে গত ১৭ নভেম্বর থেকে শুরু হওয়া প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনি পরীক্ষা ২০১৯ এ অংশগ্রহণ করে ৩য় শ্রেণীর এক ছাত্র। যে ছাত্র ২০১৭ সালের ১৯ জানুয়ারি উপজেলার বেসরকারি একটি প্রি-ক্যাডেট স্কুলে ২য় শ্রেণীতে ভর্তি হয়। সে ২০১৮ সনে ২য় শ্রেণীতে উত্তীর্ণ হয়ে ৩য় শ্রেণীতে ভর্তি হয়। 

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, সে ২০১৮ সালের বার্ষিক পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করেনি। অথচ এবছর ২০১৯ এ সে এলাকার একটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় পরীক্ষা কেন্দ্রে দিচ্ছে পিএসসি পরীক্ষা। সে অন্য একটি কোচিং সেন্টার হতে পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করেছে। 
 
উক্ত বিষয়ে প্রশ্ন করা হলে সরাইল উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার আব্দুল আজিজ কোন সদুত্তর দিতে পারেনি। তিনি বলেন, অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। এই প্রতিবেদক প্রশ্ন করেন, অভিযোগটি করবেন কে? তিনি তখন চুপ থাকেন, পরক্ষনেই বলেন বিষয়টি আমরা দেখছি।
 
এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ভারপ্রাপ্ত) ফারজানা প্রিয়াংকা বলেন, এই বিষয়টি খতিয়ে দেখা হবে। প্রাথমিক শিক্ষাক্ষেত্রে এরকম জালিয়াতি ও অনিয়ম আজ প্রাথমিক শিক্ষা ব্যবস্থাকে প্রশ্নবিদ্ধ করছে প্রতিনীয়ত। যত্রতত্র ব্যাঙ্গের ছাতার মত গড়ে উঠছে ব্যক্তিগত কিছু কিন্ডার গার্টেন স্কুল। 

এদিকে এ ধরণের অনিয়মে যথাযথ কর্তৃপক্ষের বিশেষ নজর দেয়া একান্ত জরুরি বলে মনে করেন বিশিষ্ট জনেরা। এসমস্ত ঘটনার দ্বায় অবশ্যই প্রাথমিক শিক্ষা অফিসের নিতে হবে, কারণ তারা ভালভাবে যাচাই না করেই কেন একটা শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের অনুমোদন দিয়ে দেন। এলাকায় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে অনিয়ম বন্ধে এ ধরণের যত্রতত্র বেসরকারি স্কুল প্রতিষ্ঠা বন্ধ করতে হবে।

কেআই/আরকে


Ekushey Television Ltd.

© ২০২২ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি