ঢাকা, সোমবার   ১৯ এপ্রিল ২০২১, || বৈশাখ ৫ ১৪২৮

১৪ দফা দাবিতে মানববন্ধনে শাহমুখদুম মেডিকেলের শিক্ষার্থীরা

রাজশাহী প্রতিনিধি

প্রকাশিত : ১৪:৪৫, ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০

বাংলাদেশ মেডিক্যাল অ্যান্ড ডেন্টাল কাউন্সিলের (বিএমডিসি) অনুমোদনসহ ১৪ দফা দাবিতে মানববন্ধন করেছেন রাজশাহীর বেসরকারি শাহমুখদুম মেডিকেল কলেজের শিক্ষার্থীরা।

আজ রোববার বেলা সাড়ে ১০টা থেকে সাড়ে ১১টা পর্যন্ত সাহেববাজার জিরোপয়েন্টে মানববন্ধন করেন তারা।

এ দাবিতে শিক্ষার্থীদের লাগাতার আন্দোলনের মুখে শনিবার অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ ঘোষণা করা হয় কলেজটি। সেই সঙ্গে শনিবার রাত ৮টার মধ্যে ছাত্রদের এবং রোববার সকাল ১০টার মধ্যে ছাত্রীদের হোস্টেল ছাড়ার নির্দেশ দেয়া হয়। রোববার শিক্ষার্থীরা হল থেকে রের হয়ে সাহেববাজার জিরোপয়েন্টে গিয়ে মানববন্ধনে অংশ নেয়।

মানববন্ধনে শিক্ষার্থীরা জানান, ‘বিএমডিসির অনুমোদন ছাড়াই গত সাত বছর ধরে অবৈধভাবে শিক্ষার্থী ভর্তি করিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি। বিষয়টি এতদিন ধামাচাপা দিয়ে রাখলেও সম্প্রতি পাস করা কয়েকজন শিক্ষার্থীরা এমবিবিএস পাস করে। কিন্তু বিএমডিসির অনুমোদন না থাকায় তারা ইন্টার্নশিপ করার সুযোগ পাননি। এর পর বিষয়টি জানা জানি হয়। পরে বিএমডিসির অনুমোদনসহ ১৪ দফা দাবিতে গত ৯ ফেব্রুয়ারি থেকে ক্লাস বর্জন করে আন্দোলন শুরু করেন শিক্ষার্থীরা।’

প্রতিষ্ঠানটি থেকে এমবিবিএস পাস করা শিক্ষার্থী মামুনুর রশিদ বলেন, ‘নানা সংকটের মধ্যেও আমি গত বছর ১২ মার্চ এমবিবিএস পাস করেছি। কিন্তু ইন্টার্নশিপ করতে পারছি না। সেটি জানতে বার বার মেডিকেল কলেজের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষের দ্বানস্থ হয়েছি। কিন্তু তারা আমাকে কোনো সদুত্তর দিতে পারেননি। উল্টো আমাকে নানাভাবে হুমকি দেওয়া হয়েছে, যেন আমি বিষয়টি নিয়ে বেশি বাড়াবাড়ি না করি। পরে খবর নিয়ে জানতে পারি বিএমডিসির রেজিস্ট্রেশন এখনও হয়নি। এ কারণে ইন্টর্নশিপ করতে পারছি না। চারজন এমবিবিএস পাস শিক্ষার্থীর একই অবস্থা বলে জানান তিনি।’

জানতে চাইলি প্রতিষ্ঠানটির ব্যবস্থাপনা পরিচালক মনিরুল ইসলাম স্বাধীন বলেন, ‘বিএমডিসির অনুমোদনের জন্য আবেদন করা হয়েছে। তারা পরিদর্শন করেছেন এবং কিছু শর্ত দিয়েছে, সেগুলো পূরণের চেষ্টা চলছে। হয়তো দ্রুত আমরা অনুমতি পেয়ে যাবো।’

তিনি বলেন, কিছু শিক্ষার্থী হয়তো কারো প্ররোচণায় আন্দোলনে নেমেছে। তারপরও তারা তাদের ন্যায্য দাবি উত্থাপন করতেই পারে। আমরা শিক্ষার্থীদের সঙ্গে কথা বলে বোঝানোর চেষ্টা করছি কিন্তু তারা শুনেনি। ক্লাস বর্জন করে আন্দোলন চালিয়ে যাচ্ছিল। সে কারণে প্রতিষ্ঠান অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে।’

এআই/

 


Ekushey Television Ltd.

© ২০২১ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি