ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ২৫ এপ্রিল ২০২৪

দিনে একটি ডিম খেলে হৃদরোগের ঝুঁকি কমে

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১৫:৩৪, ২২ মে ২০১৮

দিনে একটি ডিম খেলে হৃদরোগের ঝুঁকি হ্রাস পায় বলে জানিয়েছেন গবেষকরা। চীনে ৪ লাখ প্রাপ্ত বয়স্ক মানুষের উপর গবেষণা চালিয়ে এমন তথ্য দিয়েছেন তারা। গবেষকরা জানিয়েছেন, ‘দিনে একটি ডিম গ্রহণ করলে হৃদরোগের ঝুঁকি ১৮ শতাংশ হ্রাস পায়।’

জার্নাল হার্টে গত সোমবার এই গবেষণা প্রতিবেদন প্রকাশ করা হয়। প্রতিবেদনে বলা হয়, যারা ডিম খান না, তাদের চেয়ে যারা ডিম খান তাদের হৃদরোগের ঝুঁকি ১৮ শতাংশ কম। হৃদরোগ সংক্রান্ত রোগকে আমরা এক কথায় হৃদরোগ বলে থাকি। তবে হৃদরোগ বলতে হৃদযন্ত্রের অচল হওয়া, ধমনি-শিরার অস্বাভাবিক আচরণ, হৃদযন্ত্রের ভালবের সমস্যাসহ স্ট্রোক ও হার্ট অ্যাটাক রয়েছে।

জানা যায়, রক্তে উচ্চ রক্তচাপ বৃদ্ধি, অতিরিক্ত ওজন ও স্থুলতা এবং রক্তে সুগার বেড়ে গেলে হৃদরোগের সম্ভাবনা দেখা দেয়। মূলত ধূমপান ও অ্যালকোহল সেবনের ফলেই এ রোগগুলো সবচেয়ে বেশি হয়ে থাকে। অতীতে রোগীদের বেশি করে ডিম খাওয়া নিষিদ্ধ করা হতো। যদিও ডিমের মধ্যে প্রচুর পরিমাণে প্রোটিন ও অন্যান্য ইতিবাচক পুষ্ঠি রয়েছে, তবু ডিমে প্রচুর পরিমাণে কোলেস্টেরল রয়েছে, যা হৃদরোগের জন্য ঝুঁকি হিসেবে চিহ্নিত করা হতো। বেইজিংয়ের পাবলিক হেলথ এন্ড পিকিং ইউনিভার্সিটি স্কুলের পুষ্ঠি বিভাগের অধ্যাপক ক্যানকিং জো গবেষণা প্রতিবেদনে এমনটিই জানিয়েছেন।

এর আগে ডিমকে হৃদরোগের জন্য ক্ষতিকর হিসেবে বিবেচনা করা হতো। তবে সম্প্রতি বিতর্ক দেখা দেওয়ায় এই গবেষণা কার্যক্রম পরিচালনা করে চীনা গবেষকরা। শুরুর দিকে তারা চীনের ১০টি এলাকার ৫ লাখ লোকের উপর গবেষণা করেন। গবেষণায় দেখা যায়, ৪ লাখ ১৬ হাজার ২১৩ জন লোক কখনো হৃদরোগ বা ডায়াবেটিসে আক্রান্ত হননি।

প্রাপ্ত বয়স্কদের (৩০ থেকে ৭৯ বছর) মধ্যে ১৩ শতাংশ বলেন, তারা নিয়মিত অন্তত একটি ডিম খেতেন। অন্যদিকে ৯ শতাংশ বলেন, তারা নিয়মিত ডিম খেতেন না। তবে সবাই বলছেন, তারা মুরগির মাংস খেতেন। নয় বছর ধরে এ গবেষণা কার্যক্রম পরিচালনা করা হয়।

সূত্র: সিএএন
এমজে/


Ekushey Television Ltd.


Nagad Limted


© ২০২৪ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি