ঢাকা, সোমবার   ২৪ জানুয়ারি ২০২২, || মাঘ ১০ ১৪২৮

বিদ্যুৎ সংকটে চীনের লাখো মানুষ অন্ধকারে

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ২১:৩৬, ৫ অক্টোবর ২০২১

ভয়াবহ বিদ্যুৎ সংকটে পড়েছে চীন। দেশব্যাপি বিদ্যুৎ ঘাটতির কারণে চীনের লাখ লাখ মানুষকে বিদ্যুৎ ছাড়াই থাকতে হবে বলে ধারণা করা হচ্ছে। চলতি সপ্তাহে দেশের দুই তৃতীয়াংশই ব্ল্যাকআউটের সম্মুখিন হয়। 

বিদ্যুতের দামের সঙ্গে চাহিদার সামঞ্জস্য করতে হিমশিম খাচ্ছে চীন; এর ওপর কয়লার মজুদ মারাত্মক রকমভাবে কমে যাওয়ার কারণে দেশটি এ গভীর সংকটে নিমজ্জিত হয়েছে। তবে দেশটির শীর্ষ কর্মকর্তারা অভিযোগ করছেন জীবাশ্ম জ্বালানী থেকে নবায়নযোগ্য জ্বালানীমুখি হওয়ার কারণেই এ সমস্যা সৃষ্টি হয়েছে। দেশটির রাষ্ট্রায়ত্ত্ব গণমাধ্যমগুলোও সমস্যাটির বিষয় স্বীকার করেছেন এবং বেইজিংভিত্তিক গ্লোবাল টাইমস সমস্যাটি খুব দ্রুত সমাধানের অনুরোধ করেছে। 

গ্লোবাল টাইমসের এক প্রতিবেদনে সতর্ক করে বলা হয়েছে, ‘উত্তর-পূর্ব চীনের তাপমাত্রা নেমে যাচ্ছে। কিছু সমস্যা থাকার কারণেই (উত্তরপূর্ব) অঞ্চলের পাওয়ার গ্রিড ভেঙ্গে পড়েছে।’ তবে এ বিষয়টিও প্রপাগান্ডা থেকে ছাড় পায় নি উল্লেখ করে দাবি করা হয়েছে, ‘বিদ্যুৎ উৎপাদনের দিক থেকে আমরা বৈশ্বিক পরাশক্তি হয়ে উঠার লক্ষ্য নিয়েছি। তবে শীর্ষ অর্থনীতিগুলোর মধ্যে অধিকমাত্রায় কয়লাভিত্তিক বিদ্যুৎ উৎপাদন করে আমরা সবসময় পরাশক্তিধর হতে পারবো না।’

চীনে চলমান এই বিশৃঙ্খলা আন্তর্জাতিক সম্পর্ককে প্রভাবিত করতে পারে। তাইওয়ানের কর্মকর্তারা এই পরাশক্তির বিরুদ্ধে ‘হয়রানির’ অভিযোগ করেছে। 

উল্লেখ্য, একটি স্বাধীন দেশ হিসেবে তাইওয়ানের অস্তিত্বকে চীন স্বীকৃতি দেয় না। চীনের দাবি দেশটি চীনা প্রজাতন্ত্রের একটি বিশ্বাসঘাতক ফাঁড়ি। এর ওপর দক্ষিণ চীন সাগরের নিয়ন্ত্রণ নিয়ে ভূরাজনৈতিক যুদ্ধ বেড়ে যাওয়াতে উত্তেজনা আরো বৃদ্ধি পেয়েছে। সেইসঙ্গে বিদ্যুৎ সংকট অব্যাহত থাকলে চীনের অর্থনীতিতে আরো চাপ বাড়বে বলে ধারণা করা হচ্ছে।
সূত্র: ডেইলি স্টার ইউকে

এসি
 


Ekushey Television Ltd.

© ২০২২ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি