ঢাকা, সোমবার   ১৭ জুন ২০২৪

মেক্সিকোতে অভিদিও গুজম্যানকে গ্রেফতারে সংঘর্ষ, নিহত ২৯

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ২৩:২৩, ৭ জানুয়ারি ২০২৩

মেক্সিকোর কারাবন্দী মাদক সম্রাট হোয়াকিন ‘এল চাপো’ গুজম্যানের ছেলে অভিদিও গুজম্যানের গ্রেপ্তারের প্রতিবাদে দফায় দফায় সংঘর্ষ হয়েছে। এতে ২৯ জন নিহত হয়েছে। নিহত ব্যক্তিদের মধ্যে সন্দেহভাজন মাদক চক্রের ১৯ সদস্য ও ১০ জন সেনা সদস্য রয়েছে। মেক্সিকোর সরকার শুক্রবার এ কথা জানিয়েছে। খবর এএফপি’র।

দেশটির উত্তরাঞ্চলীয় রাজ্য সিনালোয়ায় এসব সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। বর্তমানে সেখানে হাজার হাজার সৈন্য মোতায়েন রয়েছে। তারা সিনালোয়ার নিয়ন্ত্রণ নিয়েছে। 
মেক্সিকোর নিরাপত্তা বাহিনী কারাবন্দী মাদক সম্রাট এল চাপোর ৩২ বছর বয়সী ছেলে অভিদিওকে গত বৃহস্পতিবার গ্রেপ্তার করে। 

এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে নিরাপত্তা বাহিনীর সাথে মাদক ব্যবসায়ী চক্রের সদস্যদের সঙ্গে বন্দুক যুদ্ধের ঘটনা ঘটে। এছাড়া সিনালোয়া কার্টেলের সদস্যরা সড়ক অবরোধ, ব্যাপক ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগ করে।

সিনালোয়া রাজ্যে ‘সিনালোয়া কার্টেল’ নামে মাদক সাম্রাজ্য গড়ে তুলেছিলো এল চাপো। তিনি কারাবন্দী হওয়ার পর ছেলেরাই সেটার দেখভাল করছিল।
অভিদিওর বাবা ‘এল চাপো’ যুক্তরাষ্ট্রে কড়া নিরাপত্তাধীন একটি কারাগারে সাজা ভোগ করছেন। তাঁকে ২০১৭ সালে যুক্তরাষ্ট্রের কাছে হস্তান্তর করা হয়। তাকে নিউইয়র্কের একটি আদালত দোষী সাব্যস্ত করে।

তবে অভিদিওকে যুক্তরাষ্ট্রের কাছে আপাতত হস্তান্তর করা হবে না বলে জানিয়েছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট আন্দ্রেস ম্যানুয়েল লোপেজ ওভ্রাদর। 
যদিও মাদক পাচারের অভিযোগে কয়েক বছর ধরে অভিদিওকে হস্তান্তরের দাবি জানিয়ে আসছে প্রতিবেশী যুক্তরাষ্ট্র। তাঁকে গ্রেপ্তার ও বিচারের আওতায় আনতে তথ্য দিয়ে সহায়তা করলে ৫০ লাখ ডলার পুরস্কার দেওয়া হবে বলে ২০২১ সালে ঘোষণা দেয় মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

অভিদিওকে ২০১৯ সালেও একবার গ্রেপ্তার করা হয়েছিল। কিন্তু গ্রেপ্তারের পর সংঘর্ষ ছড়িয়ে পড়লে প্রাণহানি এড়াতে প্রেসিডেন্ট লোপেজ ওভ্রাদরের নির্দেশে তাঁকে মুক্তি দেওয়া হয়।

এতে ওভ্রাদর তীব্র সমালোচিত হলে তিনি বলেন, বেসামরিক নাগরিকদের জীবন রক্ষায় তাকে এ সিদ্ধান্ত নিতে হয়েছে। 
কেআই//


Ekushey Television Ltd.


Nagad Limted


© ২০২৪ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি