p উপসচিবদের গাড়ি কেনার ঋণ নিয়ে নতুন নির্দেশনা

ঢাকা, মঙ্গলবার   ৩০ নভেম্বর ২০২১, || অগ্রাহায়ণ ১৫ ১৪২৮

উপসচিবদের গাড়ি কেনার ঋণ নিয়ে নতুন নির্দেশনা

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১১:৫১, ২৭ আগস্ট ২০২০ | আপডেট: ১১:৫৪, ২৭ আগস্ট ২০২০

বর্তমানে বেশির ভাগ উপসচিব সরকারি সুদমুক্ত ঋণ সুবিধায় গাড়ি কিনে ব্যবহার করছেন। কিন্তু এখন উপসচিব পদে পদোন্নতি পেলেই গাড়ি কেনার ঋণ সুবিধা পাবেন না। তবে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা কমপক্ষে ৩ বছর উপসচিব পদে চাকরি করার পর গাড়ি কেনার জন্য ঋণ আবেদন করতে পারবেন।

সম্প্রতি এ সংক্রান্ত নীতিমালায় গুরুত্বপূর্ণ সংশোধনী আনা হয়েছে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় থেকে। এর আগে উপসচিব হওয়ার পর কর্মকর্তারা গাড়ি কেনার জন্য ঋণ আবেদন করতে পারতেন। 

সংশোধিত নীতিমালায় বলা হয়েছে, সরকারি ঋণ সুবিধা নিয়ে গাড়ি কেনার পর কোনো কর্মকর্তা তার দফতরের কোনো গাড়ি আর ব্যবহার করতে পারবেন না। যদিও এ ধরনের নিষেধাজ্ঞা ২০১১ সাল থেকেই ছিল। কিন্তু বেশির ভাগ কর্মকর্তা সেটি অনুসরণ করেন না। অনেকে ঋণ সুবিধায় কেনা গাড়ি থাকা সত্ত্বেও নিজ দফতরের রিকুইজিশন দেয়া লাইনের গাড়ি কিংবা প্রকল্প থেকে সরবরাহ করা গাড়ি ব্যবহার করছেন।

নীতি ৪(৩)(খ)তে বলা হয়েছে, সুদমুক্ত ঋণ গ্রহণ করে গাড়ি কেনার পর যানবাহন অধিদফতরের গাড়ি ব্যবহারের সুবিধা আর বহাল থাকবে না। নীতি ১৭(১)-এ বলা হয়েছে, ‘সুদমুক্ত ঋণ সুবিধা গ্রহণকারী কোনো কর্মকর্তা সাধারণভাবে তার দফতর থেকে রিকুইজিশনের ভিত্তিতে কোনো গাড়ি সরকারি বা ব্যক্তিগত প্রয়োজনে ব্যবহার করতে পারবেন না। 

এছাড়া গাড়ি রক্ষণাবেক্ষণ সম্পর্কে নীতিমালার এক স্থানে বলা আছে, কোনো কর্মকর্তা শিক্ষা ছুটিতে ওএসডি থাকলে তিনি সুদমুক্ত সুবিধায় কেনা গাড়ির রক্ষণাবেক্ষণ ভাতা বাবদ পূর্বের মাসিক ৫০ হাজার টাকার পরিবর্তে ২৫ হাজার টাকা পাবেন।

আরেকটি উল্লেখযোগ্য বিষয়ের হচ্ছে, কোনো কর্মকর্তার বিরুদ্ধে শৃঙ্খলাজনিত বিভাগীয় কিংবা ফৌজদারি মামলা চলমান থাকলে তিনি গাড়ি কেনার জন্য ঋণ আবেদন করতে পারবেন না। এছাড়া অধুনাবিলুপ্ত বিসিএস (ইকোনমিক) ক্যাডারের যুগ্মপ্রধান বা তদূর্ধ্ব পর্যায়ের কর্মকর্তা এবং লেজিসলেটিভ ও সংসদবিষয়ক বিভাগের যুগ্ম সচিব (ড্রাফটিং) থেকে তদূর্ধ্ব পর্যায়ের কর্মকর্তারা গাড়ি কেনার জন্য আবেদন করতে পারবেন। এর নিচের ধাপের কেউ পারবেন না।

এছাড়া নীতি ১৪(১) বলা হয়েছে, সুদমুক্ত সুবিধা নিয়ে কোনো কর্মকর্তা গাড়ি কিনলে কর্মস্থলের ৮ কিলোমিটারের মধ্যে কোনো টিএডিএ বিল দাবি করতে পারবেন না। 

নীতি ১৪(৩)-এ বলা আছে এই গাড়ি ভাড়া, লিজ বা অন্য কোনো ব্যক্তির কাছে হস্তান্তর বা বাণিজ্যিক উদ্দেশ্যে ব্যবহার করলে তা সরকারি কর্মচারী বিধিমালা অনুযায়ী অসদাচরণ বলে গণ্য হবে।

এএইচ/এমবি


Ekushey Television Ltd.

© ২০২১ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি