ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২১, || ফাল্গুন ১২ ১৪২৭

নরসিংদীতে বিড়ি শ্রমিকদের মানববন্ধন

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১৬:৪৯, ১৭ জানুয়ারি ২০২১ | আপডেট: ২১:২৪, ১৭ জানুয়ারি ২০২১

শিল্প ও শ্রমিক বাঁচাতে বিড়ির উপর শুল্ক কমানোসহ ৬ দফা দাবিতে মানববন্ধন করেছে নরসিংদী জেলা বিড়ি শ্রমিক ইউনিয়ন। রোববার বেলা ১১টায় নরসিংদী কাস্টমস, এক্সাইজ ও ভ্যাটের বিভাগীও কর্মকর্তার কার্যালয়ের সামনে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। 

মানববন্ধনে বক্তারা চলতি অর্থবছরের বাজেটে বিড়ির উপর অতিরিক্ত ৪ টাকা মূল্যস্তর প্রত্যাহার, বিড়িতে অগ্রীম ১০% আয়কর প্রত্যাহার, সিগারেটের ন্যায় বিড়িতেও ৩ টি মূল্যস্তর করণ, শ্রমিকদের মজুরী বৃদ্ধি, ভারতের ন্যায় বিড়ি শিল্পকে সুরক্ষা আইন বাস্তবায়নের দাবি জানান। 

মানববন্ধনে বক্তব্য প্রদান করেন বাংলাদেশ বিড়ি শ্রমিক ফেডারেশনের সভাপতি এমকে বাঙ্গালী, সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রহমান, যুগ্ম-সম্পাদক হারিক হোসেন, সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুল গফুর, প্রচার সম্পাদক শামীম ইসলাম, নরসিংদী জেলা বিড়ি শ্রমিক নেতা আলী নোমান প্রমুখ। 

এমকে বঙ্গালী বলেন, বিড়ি শিল্পে সমাজের অসহায় শ্রমিকরা কাজ করে জীবিকা নির্বাহ করে। তাদের দুঃখ দুর্দশা দেখে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাজেট বক্তৃতায় বিড়ির উপর কর কমিয়ে সিগারেটের উপর বেশি কর বাড়ানোর প্রস্তাব দেন। কিন্তু বিদেশী সিগারেট কোম্পানীর ষড়যন্ত্রে জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের কতিপয় অসাধু কর্মকর্তা প্রধান মন্ত্রীর নিদের্শনা অমান্য করে বিড়িতে মাত্রাতিরিক্ত শুল্কারোপ করেছে। ফলে করের বোঝা সহ্য করতে না পেরে মালিকরা কারখানা বন্ধ করে দিচ্ছে। শ্রমিকরা কাজ না পেয়ে বেকার হয়ে মানববেতর জীবন যাপন করছে। 

সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রহমান বলেন, বিড়ি ও সিগারেট দুটোই স্বাস্থের জন্য ক্ষতিকর। তাহলে ধূমপান বন্ধের নামে সিগারেটের চেয়ে বিড়িতে কেন শুল্ক বৃদ্ধি করা হয়েছে? বিড়ি দেশের গরীব মানুষ তৈরি করে গরীব মানুষ খায়। সেখানে শ্রমের সুযোগ রয়েছে। সিগারেট মেশিনে তৈরী হয় ধনীরা ধূমপান হিসেবে ব্যবহার করে। অথচ প্রতি প্যাকেট সিগারেটে মূল্যস্তর মাত্র দুই টাকা বৃদ্ধি করা হয়েছে। অন্যদিকে প্রতি প্যাকেট বিড়িতে চার টাকা বৃদ্ধি করা হয়েছে। এটা চরম বৈষম্যমূলক। যা গরীবের রুটি রুজির উপর আঘাত করা হয়েছে। আগামী বাজেটে বিড়ির উপর শুল্ক বৃদ্ধি হলে কঠোর আন্দোলনের মাধ্যমে প্রত্যাহারে বাধ্য করা হবে বলে হুশিয়ারি করেন তিনি।

মানববন্ধন শেষে কাস্টমস, এক্সাইজ ও ভ্যাটের বিভাগীও কর্মকর্তার মাধ্যমে জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের চেয়ারম্যান বরাবর স্মারক লিপি প্রদান করেন শ্রমিক নেতারা। 

আরকে//


Ekushey Television Ltd.

© ২০২১ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি