ঢাকা, শুক্রবার   ২৭ জানুয়ারি ২০২৩

সবই খুলছে আজ, খুলছে না পর্যটন ও বিনোদনকেন্দ্র

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ০৮:৩৪, ১৫ জুলাই ২০২১

করোনাভাইরাস সংক্রমণ রোধে চলমান কঠোর বিধি-নিষেধ শিথিল করেছে সরকার। আজ বৃহস্পতিবার থেকে ২৩ জুলাই শুক্রবার সকাল ৬টা পর্যন্ত শিথিল অবস্থা থাকবে। এই সময়ে সারা দেশে বাস, ট্রেন, লঞ্চ চলাচল স্বাভাবিক থাকবে। বসবে কোরবানির পশুর হাট। ঈদের ছুটির আগ পর্যন্ত সব সরকারি অফিস খোলা থাকবে। তবে কড়াকড়িভাবে মানতে হবে স্বাস্থ্যবিধি। ঈদের ছুটিতে সরকারি কর্মচারীরা কর্মস্থল ছাড়তে পারবেন না। যাঁরা বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে চাকরি করেন, তাঁদের জন্য এমন কোনো বাধা থাকছে না। তবে এই সময়ে পর্যটন ও বিনোদনকেন্দ্র এবং জনসমাবেশ হয়—এমন সামাজিক অনুষ্ঠান পরিহার করতে হবে।

বুধবার সরকারের নতুন তথ্য বিবরণীতে এ বিষয়টি জানানো হয়েছে। 

লকডাউনের সময় সরকারি অফিসের বিষয়ে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ সূত্র জানায়, ঈদে অন্যান্যবারের মতো সরকারি কর্মচারীরা কর্মস্থলে উপস্থিত থাকবেন। ঈদের স্বাভাবিক ছুটি বাড়াতে পারবেন না। এর বাইরে গার্মেন্টসহ সব শ্রেণি-পেশার মানুষ তাঁদের মতো ছুটি কাটাতে পারবেন। সরকারের পক্ষ থেকে এ বিষয়ে হস্তক্ষেপ করা হবে না। তবে সংক্রমণ কমানোর জন্য সরকারের পক্ষ থেকে চলাচলে সাধ্যমতো নিয়ন্ত্রণে থাকার অনুরোধ করা হচ্ছে। সবাই নিজেদের ও তাঁদের পরিবারের কথা চিন্তা করে সেটি বিবেচনায় নেবেন বলে সরকার আশা করে।

তথ্য অধিদপ্তরের বিবরণীতে জানানো হয়, ঈদ উদযাপনে ১৪ জুলাই মধ্যরাত থেকে ২৩ জুলাই সকাল ৬টা পর্যন্ত সব বিধি-নিষেধ শিথিল করা হয়েছে। তবে সামাজিক অনুষ্ঠান, যেমন—বিবাহোত্তর অনুষ্ঠান, ওয়ালিমা, জন্মদিন, পিকনিক, পার্টি ইত্যাদি এবং রাজনৈতিক ও ধর্মীয় আচার-অনুষ্ঠান পরিহার করতে হবে। এ ছাড়া কভিড-১৯-এর সংক্রমণ বিস্তার রোধে এই সময়ে সর্বাবস্থায় মাস্ক পরিধানসহ স্বাস্থ্যবিধি কঠোরভাবে অনুসরণ করতে হবে।

কোরবানির পশুর হাট প্রসঙ্গে অধিদপ্তরের নির্দেশনায় বলা হয়েছে, অনলাইনের পাশাপাশি যথাযথ স্বাস্থ্যবিধি এবং সরকারি অন্যান্য নির্দেশনা মেনে কোরবানির পশুর হাট বসাতে হবে। পশুর হাটে ক্রেতা-বিক্রেতাদের একমুখী চলাচল থাকতে হবে। বৃদ্ধ ও শিশুদের পশুর হাটে প্রবেশ নিয়ন্ত্রণ করতে হবে। হাটে আসা সবাই যাতে স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ করেন, তা নিশ্চিত করতে হবে। হাটে আসা ক্রেতা-বিক্রেতা সবার তাপ মাপার জন্য যন্ত্র, হাত ধোয়ার জন্য পর্যাপ্ত পানি, বেসিন ও জীবাণুনাশক সাবান রাখতে হবে। অনলাইনে পশু ক্রয়-বিক্রয়ে মানুষকে উৎসাহিত করতে হবে।
এসএ/


Ekushey Television Ltd.

© ২০২৩ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি