ঢাকা, বুধবার, ১৩ ডিসেম্বর, ২০১৭ ৭:৩০:০৯

রাজধানীতে যুবকের গলাকাটা লাশ উদ্ধার

রাজধানীতে যুবকের গলাকাটা লাশ উদ্ধার

রাজধানীর আফতাবনগরের একটি বাসা থেকে এক ব্যক্তির হাত ও গলাকাটা লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। সোমবার দুপুরের দিকে বাড্ডা থানা এলাকার আফতাবনগরের বি ব্লকের ৩ নম্বর রোডের একটি ফ্ল্যাট থেকে লাশটি উদ্ধার করা হয়। নিহত ব্যক্তির নাম মন্দিল (৩০)। তিনি ওই এলাকায় রিকশার ব্যবসা করতেন। বাড্ডা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কাজী ওয়াজেদ আলী জানিয়েছেন, আজ নিজের ফ্ল্যাট থেকে হাত ও গলা কাটা অবস্থায় মন্দিলের লাশটি উদ্ধার করা হয়েছে। লাশ ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। তিনি আরো বলেন, ময়না তদন্তের পরেই এই ঘটনা সম্পর্কে বিস্তারিত বলা যাবে। নিহত ব্যক্তি ওই এলাকায় রিকশার ব্যবসা করতেন।   আর
ঢাকাস্থ চট্টগ্রাম সমিতির নির্বাচনে আবদুল মাবুদ পরিষদ বিজয়ী

শতবর্ষের ঐতিহ্যবাহী ঢাকাস্থ চট্টগ্রাম সমিতির ২০১৮-২০১৯ সালের দ্বি-বার্ষিক নির্বাচনে আবদুল মোবারক-মাবুদ পরিষদ বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় পূর্ণ প্যানেলে বিজয়ী হয়েছেন। সমিতির কার্যনির্বাহী পরিষদের ৩৫টি পদের মধ্যে সবকয়টিতে কোন প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী না থাকায় নির্বাচন কমিশন  মোঃ আবদুল মোবারক - মোঃ আবদুল মাবুদ পরিষদকে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় পূর্ণ প্যানেলে নির্বাচিত ঘোষণা করেন।   সাবেক নির্বাচন কমিশনার মোঃ আবদুল মোবারক এবং সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মোঃ আবদুল মাবুদ যথাক্রমে সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছেন।   সমিতির গঠনতন্ত্র মোতাবেক প্রধান নির্বাচন কমিশনার হিসেবে নির্বাচন পরিচালনা করেন সমিতির আজীবন সদস্য ও সাবেক সচিব মোঃ দিদারুল আনোয়ার, অপর দুই কমিশনার হলেন পরিবেশ ও বন মন্ত্রণালয়ের যুগ্ম-সচিব ড. মোহাম্মদ মহিউদ্দিন এবং জীবনসদস্য ও পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ের উপ-সচিব আবু আহমদ ছিদ্দীকী।   কার্যনির্বাহী পরিষদের নির্বাচিত অন্যান্য প্রার্থীরা হলেন সহ-সভাপতি পদে মোহাম্মদ মুসলিম চৌধুরী, হেলালুদ্দীন আহমদ, সৈয়দ নুরুল ইসলাম, সাইফুদ্দিন মোহাম্মদ খালেদ ও মোঃ গিয়াস উদ্দীন খান, অর্থ সম্পাদক মোহাম্মদ শাহ আলম, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এম. সাইফুদ্দিন আহমদ (বাবুল) ও শফিকুর রহমান শফিক, সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ ফরিদুল আলম, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক এম. ওয়াহিদ উল্লাহ, শিক্ষা ও পাঠাগার সম্পাদক মাহ্মুদ সালাহ্উদ্দীন চৌধুরী, সাহিত্য ও সেমিনার সম্পাদক ইঞ্জিনিয়ার উজ্জ্বল মল্লিক, ক্রীড়া সম্পাদক মহিউদ্দিন আহমদ চৌধুরী, সাংস্কৃতিক সম্পাদক ইঞ্জিনিয়ার মোস্তফা কামাল শানু, দপ্তর সম্পাদক মোহাম্মদ নাছের (নাছির), স্বাস্থ্য ও সমাজ কল্যাণ সম্পাদক মোঃ মামুনুর রশীদ রাসেল, আন্তর্জাতিক সম্পাদক মোঃ তানভীর খান, মানব সম্পদ উন্নয়ন সম্পাদক মোহাম্মদ শাহজাহান (মন্টু), মহিলা ও শিশু বিষয়ক সম্পাদক এডভোকেট আনিচ উল মাওয়া (আরজু), আইন বিষয়ক সম্পাদক এডভোকেট মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর আলম চৌধুরী, নির্বাহী সদস্য ইঞ্জিনিয়ার তাজুল ইসলাম চৌধুরী, মোহাম্মদ মনসুর আলী চৌধুরী, মোঃ কামাল হোসেন তালুকদার, মোঃ কায়কোবাদ ওসমানী, আহমদ মমতাজ, রাহুল বড়ুয়া, মোঃ গিয়াস উদ্দিন চৌধুরী, মোস্তফা ইকবাল চৌধুরী (মুকুল), মোঃ শাহাদাত হোসেন চৌধুরী (হিরো), আলম ইশরাক চৌধুরী, ইঞ্জিনিয়ার জাহিদ আবছার চৌধুরী, মোহাম্মদ হাবিবুল কবির চৌধুরী ও আবরাজ নুরুল আলম। বিজ্ঞপ্তি   একে//  

ঢাকা উত্তরের মেয়র নির্বাচনের তফসিল শিগগিরই

ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র নির্বাচনের সময়সূচি দু-এক দিনের মধ্যেই জানিয়ে দেওয়া হবে। এ নির্বাচন নিয়ে আর কোনো আইনি জটিলতা নেই বলে জানিয়েছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। দায়িত্বরত মেয়রের মৃত্যুর ৯০ দিনের মধ্যেই এই নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ার বাধ্যবাধকতা রয়েছে। তাই শিগগিরই ডিএনসিসি নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করবে ইসি। রোববার নির্বাচন কমিশনে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সঙ্গে এক আলোচনা সভায় একথা বলেন ভারপ্রাপ্ত সচিব হেলালউদ্দীন আহমেদ। এই নির্বাচন করার ক্ষেত্রে কোনো আইনি বাধা আছে কি না— জানতে চাইলে হেলালুদ্দীন আহমদ বলেন, আইনি কোনো প্রতিবন্ধকতা আছে বলে মনে হচ্ছে না। কারণ, নতুন যুক্ত হওয়া ১৮টি ওয়ার্ডে নির্বাচন করার জন্য ইতিমধ্যে স্থানীয় সরকার বিভাগ ইসিকে অনুরোধ করেছে। এর আগে মেয়র আনিসুল হকের মৃত্যুর কারণে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র পদ শূন্য ঘোষণা করে ৩ ডিসেম্বর প্রজ্ঞাপন জারি করে স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়। অতীতে প্রশাসক দিয়ে মেয়রের দায়িত্ব পালন করানো হলেও ওই আইন রহিত হওয়ায় এখন আর প্রশাসক নিয়োগের সুযোগ নেই। আগস্ট মাস থেকে আনিসুল হক অসুস্থ থাকায় প্যানেল মেয়র দায়িত্ব পালন করছেন। কিন্তু মেয়রের মৃত্যুর কারণে মৃত্যুর দিন থেকে ৯০ দিনের বেশি দায়িত্ব পালন করতে পারবেন না প্যানেল মেয়র। গত ৩০ নভেম্বর রাতে যুক্তরাজ্যের লন্ডনের দ্য ওয়েলিংটন হাসপাতালে মারা যান ঢাকা উত্তরের মেয়র আনিসুল হক। গত ২৯ জুলাই ব্যক্তিগত সফরে সপরিবার যুক্তরাজ্যে যান তিনি। অসুস্থ হয়ে পড়লে গত ১৩ আগস্ট তাকে লন্ডনের ন্যাশনাল নিউরোসায়েন্স হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরীক্ষা-নিরীক্ষার পর তার মস্তিষ্কের প্রদাহজনিত রোগ ‘সেরিব্রাল ভাস্কুলাইটিস’ শনাক্ত করেন চিকিৎসকেরা। এরপর তাকে দীর্ঘদিন আইসিইউতে রেখে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছিল। একপর্যায়ে মেয়রের শারীরিক পরিস্থিতির কিছুটা উন্নতি হওয়ায় ৩১ আগস্ট আইসিইউ থেকে রিহ্যাবিলিটেশন সেন্টারে স্থানান্তর করা হয়। পরে তাকে ওয়েলিংটন হাসপাতালে নেওয়া হয়। সেখানেই তার মৃত্যু হয়।   /ডিডি/  এআর

পরিবেশ দূষণ রোধে সম্মিলিত প্রচেষ্টা প্রয়োজন : বন ও পরিবেশমন্ত্রী

পরিবেশ দূষণ রোধে সম্মিলিতভাবে কাজ করার আহ্বান জানিয়েছেন বন ও পরিবেশমন্ত্রী আনোয়ার হোসেন মঞ্জু এমপি। আজ রোববার হোটেল সোনারগাঁওয়ে বিশ্বব্যাংক আয়োজিত `Unlocking Opportunities for Clean and Resilient Growth’ শীর্ষক সেমিনারে তিনি এ আহ্বান জানান। এ সময় জীববৈচিত্র্য ও প্রাকৃতিক ভারসাম্য রক্ষায় সকলের  প্রচেষ্টা ও সহযোগিতা কামনা করেন তিনি। বন ও পরিবেশমন্ত্রী বলেন, বর্তমান সরকার দেশে সবুজায়ান বৃদ্ধিতে কাজ করছে। একইসঙ্গে পরিবেশ দুষণ রোধে বিভিন্ন প্রকল্প গ্রহণ করেছে এবং সেগুলো ধীরে ধীরে বাস্তবায়ন হচ্ছে। তিনি বলেন, বাংলাদেশ বন্যপ্রাণী সেবা ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে লাউয়াছড়ার জীববৈচিত্র্য ও পরিবেশ রক্ষায় শিমুল গাছের চারা রোপণ হয়েছে যা প্রকৃতি ও পরিবেশের দূষণ রোধে গুরুত্বপুর্ণ ভূমিকা পালন করবে। শহরবাসী যারা একটু সময় পেলে দেখে আসবেন লাউয়াছড়া জাতীয় উদ্যান। পরিবেশ দুষণ রোধে ঢাকা সিটি কর্পোরেশন, রাজউক, ঢাকা ওয়াসাসহ সকলকে নিজ নিজ দায়িত্ব নিয়ে কাজ করতে হবে। এখন যে শিল্পে কল-কারখানা তৈরি হচ্ছে সেগুলো যাতে পরিবেশের ক্ষতি করতে না পারে সে বিষয় দীর্ঘমেয়াদী পরিকল্পনা তৈরি করতে হবে। তিনি আরও বলেন, শুধু পরিবেশ নয়, বর্তমান সরকার দেশের সার্বিক উন্নয়নে কাজ করছে। কিন্তু সমস্যা হলো আমাদের দেশের দক্ষ জনবলের অভাব রয়েছে। যার কারণে দীর্ঘমেয়াদী পরিকল্পনা গ্রহণ করলেও বাস্তবায়ন সম্ভব হচ্ছে না। দেশের সার্বিক উন্নয়নে আমাদের দেশের ১০০টির অধিক ইকোনোমিক জোন তৈরি হয়েছে। যা সঠিকভাবে কাজে লাগাতে পারলে দেশের কাঠামোগত উন্নয়ন সম্ভব। সেমিনারে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, বিশ্ব ব্যাংকের কান্ট্রি ডিরেক্টর জহির হোসাইন, পরিবেশ অধিদপ্তরের ব্যবস্থাপনা পরিচালক রাছইউল আলম মন্ডল, সচিব ইসতেয়াক আহমেদ প্রমুখ।   /এমআর

২০৩০ সালের মধ্যেই এসডিজি অর্জন করবে বাংলাদেশ : শিরীন শারমিন

জাতীয় সংসদের স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেছেন, ২০৩০ সালের মধ্যেই টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা (এসডিজি) অর্জন করবে বাংলাদেশ। রাজধানীর শাহবাগের সুফিয়া কামাল জাতীয় গণগ্রন্থাগারের শওকত ওসমান স্মৃতি মিলনায়তনে ‘দারিদ্র্য বিমোচন ও মৌলিক মানবাধিকার নিশ্চিতকরণে আমাদের করণীয়’ শীর্ষক জাতীয় কনভেনশনের উদ্বোধনী অধিবেশনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন। এতে সভাপতিত্ব করছেন সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী ডা. দীপু মনি এমপি। শিরীন শারমিন বলেন, দারিদ্র্য বিমোচনে কাজ করে যাচ্ছে সরকার। আইটি সেক্টরে সকলের অংশগ্রহনের জন্যও কাজ করছে সরকার। সেই সাথে সামাজিক নিরাপত্তার প্রতি জোর দেওয়া হচ্ছে। একটি বাড়ি একটি খামার প্রকল্পের মাধ্যমে প্রান্তিক জনগোষ্ঠীকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী। কনভেনশনটি চারটি ধাপে অনুষ্ঠিত হচ্ছে। কারিগরি অধিবেশন, উদ্বোধনী অধিবেশন, প্লেনারি অধিবেশন ও সমাপনী অধিবেশন। সকাল ১০টা থেকে বিকাল ৫টা পযর্ন্ত চলবে এ কনভেনশন। অনুষ্ঠানটি যৌথভাবে পরিচালনা করছে OXFAM ও  আমার অধিকার ক্যাম্পেইন।   /এমআর

নানা কর্মসূচির মধ্য দিয়ে পালিত হচ্ছে বিশ্ব মানবাধিকার দিবস

আজ ১০ ডিসেম্বর। আন্তর্জাতিক মানবাধিকার দিবস। বিশ্বের অন্যান্য দেশের মতো সারাদেশব্যাপী পালিত হচ্ছে দিবসটি। রাজধানীর প্রেসক্লাবে দিবসটি উপলক্ষে মানববন্ধন ও আলোচনা সভার আয়োজন করেছে বিভিন্ন সংগঠন। শীতের সকালে দুর্যোগপূর্ণ আবহাওয়াকে উপেক্ষা করে স্বতস্ফূর্তভাবে বিভিন্ন মানবাধিকার ও সামাজিক সংগঠনকে এসব কর্মসূচিতে অংশগ্রহণ করতে দেখা গেছে। দিবসটি উপলক্ষ্যে আলোচনা সভার আয়োজন করেছে ন্যাশনাল প্রেস ইনস্টিটিউট। মাহবুবুর রহমানের সভাপতিত্বে এতে প্রধান অতিথি ছিলেন বিচারপতি মমতাজ উদ্দিন। মানবাধিকার প্রতিষ্ঠা ও বাস্তবায়ন সংস্থা নামক একটি সংগঠন মানববন্ধন ও আলোচনা সভার আয়োজন করেছে। এতে প্রধান অতিথি থাকবেন আওয়ামীলীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ। সভাপতিত্ব করছিলেন মুক্তিযোদ্ধা এম এ খালেক। আদিবাসীদের সংগঠন গারো সমঅধিকার সংস্থা একই সময়ে জাতীয় প্রেসক্লাবে মানববন্ধন করেছে। এতে সভাপতিত্ব করছিলেন সংগঠনের সভাপতি লিটন দ্রং। পরিবেশ নিয়ে কাজ করে মানবাধিকার সংগঠন হিউম্যান রাইটস অ্যান্ড এনভায়রনমেন্ট। হাজী মো. সাজেদুল হকের সভাপতিত্বে তাদের মানববন্ধনে উপস্থিতি ছিলো চোখে পড়ার মতো। বাংলাদেশ ইতিহাস ঐতিহ্য কেন্দ্র নামক একটি সংগঠন সেলিম রেজা সভাপতিত্বে মানববন্ধন করেছে। সবচেয়ে বেশি নারী নিয়ে দীর্ঘ মানববন্ধন করেছে গার্হস্থ্য নারী শ্রমিক ইউনিয়ন। সংগঠনটির সভাপতি আমেনা বেগমের সভাপতিত্বে এতে অতিথি ছিলেন সংগঠনটির উপদেষ্টা আবু হোসেন। হিউম্যান রাটস বাংলাদেশ নামক একটি সংগঠনকেও এ সময় মানববন্ধন করতে দেখা যায়। ইউনিটি ফর উইমেন রাইটস অব বাংলাদেশ এর মানববন্ধনে সভাপতিত্ব করছিলেন সংগঠনটির সভাপতি মো: মহসীন মিয়া। অতিথি ছিলেন কেরামত আলী। এছাড়াও এর আগে পরে আরও বেশ কয়েকটি সংগঠনকে মানববন্ধন ও আলোচনা সভা করতে দেখা গেছে।   //এমআর

‘স্বজনহারার কষ্ট লাঘবে প্রধানমন্ত্রীকেই উদ্যোগ নিতে হবে’

গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের ট্রাস্টি ড. জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেছেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, আপনিও স্বজনহারা। স্বজনহারাদের কষ্ট আপনি সবচেয়ে ভালো বুঝার কথা। মানবতার নেত্রী হিসেবে আপনি পরিচিতি পাচ্ছেন। তাই এ স্বজনহারা মানুষগুলোর কষ্ট লাঘবে আপনাকেই উদ্যোগ নিতে হবে। মানবাধিকার দিবস উপলক্ষে জাতীয় প্রেসক্লাবে স্বজনহারানো পরিবারগুলোর উদ্যোগে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন তিনি। সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক ও সাবেক ডাকসু ভিপি মাহমুদুর রহমান মান্না। এ সময় গুম হওয়া ব্যক্তিদের ছবি হাতে তাদের স্বজনদের দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা যায়।                                            //এমআর

উবার-পাঠাও এর প্রশংসায় প্রতিমন্ত্রী পলক

রাইড শেয়ারিং এপস উবার এবং পাঠাও এর প্রশংসা করেছেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী জুনায়েদ আহমেদ পলক। শনিবার ‘ডিজিটাল ওয়ার্ল্ড-২০১৭’ এর সমাপনী অনুষ্ঠানে বক্তৃতা প্রদানকালে উবার ও পাঠাও এর প্রশংসা করে প্রতিমন্ত্রী বলেন, আমাদের দেশে এ ধরনের সেবা দরকার আছে। বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রের হল অব ফেমে আয়োজিত এ অনুষ্ঠানে নগরীর যানজটের কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, আমি নিজে সড়কের উল্টো পাশ দিয়ে আমার গাড়ি নিয়ে যাই না। তাই আমাকেও জ্যামে বসে থাকতে হয়। এমন সময় মোটরসাইকেল রাইড শেয়ারিং এপস পাঠাও এর খুব প্রয়োজন অনুভব করি। আবার পরিবার পরিজন নিয়ে বেড়াতে গেলে লাগে উবার। এসময় যানজটকে নেতিবাচক অর্থে না দেখে উন্নয়নের কারণে ‘সামান্য অসুবিধা’ হিসেবে বিবেচনা করার অনুরোধ করেন প্রতিমন্ত্রী পলক। এটাকে তিনি ‘ডেভেলপমেন্ট পেইন’ বলে আখ্যায়িত করেন। তিনি বলেন, ‘উন্নয়নের পথে এরকম একটু আকটু সমস্যা থাকবে। দেশ উন্নত হচ্ছে বলেই তো সড়কে এত গাড়ি। তাই জ্যাম তো একটু হবেই”। তবে প্রযুক্তি খাতে বিদেশী প্রতিষ্ঠানের থেকে দেশীয় প্রতিষ্ঠানকে গুরুত্ব দিতে তিনি সবাইকে অনুরোধ করেন।তিনি বলেন, “আমাদের দেশেই একদিন মাইক্রোসফট, এপল বা গুগলের মত প্রতিষ্ঠান হবে। আমাদের দেশ প্রযুক্তি পণ্য উদ্ভাবনে সক্ষম।উবার যেমন একটি বিদেশী প্রতিষ্ঠান তেমনি পাঠাও আমাদের নিজেদের।ইজিয়ার আছে। আমাদের এসব দেশীয় প্রতিষ্ঠানগুলোর প্রসার করতে হবে”। পরে প্রতিমন্ত্রী জানান, ২০২১ সালের মধ্যে দেশের ৩ লক্ষ তরুণ-তরুণীকে প্রযুক্তি প্রশিক্ষণ দেয়া হবে এবং ২১ লক্ষ লোকের কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করা হবে। ডিজিটাল ওয়ার্ল্ডের এবারের ৫ম আসর নিয়েও তিনি সন্তোহশ প্রকাশ করেন। //এস এইচ এস// এআর

যাত্রীর অন্তর্বাসে মিলল ৪০০ গ্রাম সোনা

শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে আবুধাবি থেকে আসা এক যাত্রীর অন্তর্বাস থেকে প্রায় আধা কেজি সোনা উদ্ধার করেছে শুল্ক গোয়েন্দা বিভাগ। পরে তাকে আটক করা হয়। আটককৃত মো. সাইদুর রহমানের গ্রামের বাড়ি ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবা উপজেলায়। শুল্ক গোয়েন্দা বিভাগের মহাপরিচালক মইনুল খান গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন, সাইদুর শনিবার সকাল ১১টায় বাংলাদেশ বিমানের একটি ফ্লাইট করে আবুধাবি থেকে শাহজালাল বিমানবন্দরে অবতরণ করেন। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে খবর পেয়ে শুল্ক গোয়েন্দারা তাকে নজরদারিতে রাখে। সাইদুর গ্রিন চ্যানেল পার হওয়ার সময় তাকে থামিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। কিন্তু তার কাছে স্বর্ণ থাকার বিষয়টি অস্বীকার করেন। তার বিষয়ে পূর্ব থেকে তথ্য থাকা আর কথাবার্তায় অসঙ্গতির কারণে শুল্ক গোয়েন্দারা তার দেহ তল্লাশি করে। পরে তার অন্তর্বাস থেকে তিনটি সোনার বার ও একটি অলঙ্কার উদ্ধার করে গোয়েন্দারা। মইনুল খান জানান, উদ্ধার করা তিনটি সোনার বারের মোট ওজন ৩৪৯ গ্রাম, আর অলঙ্কারের ওজন ৫৭ গ্রাম। তার কাছ থেকে মোট ৪০৬ গ্রাম সোনা উদ্ধার করা হয়, যার আনুমানিক বাজার মূল্য ২০ লাখ ৩০ হাজার টাকা। তিনি বলেন, এ ঘটনায় সাইদুরের বিরুদ্ধে শুল্ক আইনে মামলা হয়েছে। তাকে বিমানবন্দর থানায় সোপর্দ করার হয়েছে ।     আর

রাজধানীতে গুড়ি গুড়ি বৃষ্টি

বঙ্গোপসাগরের গভীর নিম্ন চাপের প্রভাব পড়েছে রাজধানী ঢাকাতেও। গতকাল শুক্রবার দিবাগত রাত ২টা থেকে গুড়ি গুড়ি বৃষ্টি শুরু হয়েছে যা আজ শনিবার সকাল পর্যন্ত অব্যহত আছে। এতে দুর্ভোগে পড়েছেন রাজধানী ঢাকার কর্মব্যস্ত মানুষেরা। আবহাওয়ার বুলেটিনে বলা হয়েছে, খুলনা, বরিশাল ও চট্টগ্রাম বিভাগের অধিকাংশ জায়গায়, ঢাকা, ময়মনসিংহ, রাজশাহী ও সিলেট বিভাগের অনেক জায়গায় এবং রংপুর বিভাগের দুয়েক জায়গায় হাল্কা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি হতে পারে। নিম্নচাপের প্রভাবে ঝড়ো হাওয়ার আশঙ্কায় দেশের সমুদ্র বন্দরগুলোকে তিন নম্বর সতর্ক সংকেত দেখাতে বলেছে আবহাওয়া অধিদপ্তর। আবহাওয়া অধিদপ্তর সূত্রে জানা যায়, নিম্নচাপটি গতকাল শুক্রবার সন্ধ্যায় পশ্চিম-মধ্য বঙ্গোপসাগর ও তৎসংলগ্ন এলাকায় অবস্থান করছিলো। তবে নিম্নচাপটি ঘূর্ণিঝড়ের রূপ নেওয়ার সম্ভাবনা দেখা যাচ্ছে না।

নিহতদের স্মরণ করলো উদীচী শিল্পীগোষ্ঠী

শ্রদ্ধা আর ভালোবাসায় নেত্রকোনা বোমা হামলায় নিহতদের স্মরণ করলো বাংলাদেশ উদীচী শিল্পীগোষ্ঠী। এ হত্যাকাণ্ডের যুগ পূর্তিতে নিহতদের স্মরণে শুক্রবার বিকালে রাজধানীর জাতীয় জাদুঘরের সামনে উদীচী আয়োজন করে প্রতিবাদী সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। প্রসঙ্গত, ২০০৫ সালের ৮ ডিসেম্বর নেত্রকোনায় বাংলাদেশ উদীচী শিল্পীগোষ্ঠীর কার্যালয়ে ঘৃণ্য হামলায় প্রাণ হারান উদীচী’র তৎকালীন সহ-সাধারণ সম্পাদক খাজা হায়দার হোসেন, সংগঠন বিষয়ক সম্পাদক সুদীপ্তা পাল শেলীসহ আটজন। নিহতদের স্মরণে স্থাপিত অস্থায়ী বেদিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান উদীচী কেন্দ্রীয় সংসদ, ঢাকা মহানগর সংসদসহ বিভিন্ন শাখা সংসদ, বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি, ছাত্র ইউনিয়নসহ বিভিন্ন প্রগতিশীল সংগঠনের নেতারা। অনুষ্ঠানের শুরুতে দলীয় সঙ্গীত পরিবেশন করেন উদীচী শিল্পীরা। এরপর শুরু হয় আলোচনা সভা। উদীচী কেন্দ্রীয় সংসদের সহ-সভাপতি হাবিবুল আলমের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন উদীচী কেন্দ্রীয় সংসদের সহ-সভাপতি প্রবীর সরদার, সাধারণ সম্পাদক জামসেদ আনোয়ার তপন, সহ-সাধারণ সম্পাদক সঙ্গীতা ইমাম, কেন্দ্রীয় সংসদের সদস্য আজিজুল মালিক। সভায় বক্তারা বলেন, ৭১’র পরাজিত শক্তি আবারো বাংলাদেশকে পিছিয়ে নিয়ে যাওয়ার ষড়যন্ত্র করছে। বর্তমানে কিছুটা চাপে থাকলেও মৌলবাদী, সাম্প্রদায়িক, জঙ্গিগোষ্ঠী নানাভাবে তাদের অপকৌশল প্রয়োগে সচেষ্ট রয়েছে। তারা বলেন, তাদের আর্থিক পৃষ্ঠপোষকতার উৎস বন্ধ করতে না পারলে এদেশকে আফগানিস্তান বা পাকিস্তানের মতো ব্যর্থ রাষ্ট্রে পরিণত করবে। উল্লেখ্য, ২০০৫ সালের ৮ ডিসেম্বর সকাল ৯টার দিকে নেত্রকোনায় উদীচী কার্যালয়ের লাগোয়া সাংস্কৃতিক সংগঠন শতদল গোষ্ঠীর কার্যালয়ে একটি বোমা পড়ে থাকতে দেখে এক পথচারী। বিষয়টি জানাজানি হলে সাধারণ মানুষের পাশাপাশি খাজা হায়দার হোসেন এবং সুদীপ্তা পাল শেলীসহ উদীচী’র নেতৃবৃন্দও ভীড় করেন ঘটনাটি দেখতে। এর ঘন্টাখানেক পর সাইকেল আরোহী এক যুবক নিরাপত্তা বেস্টনী পেরিয়ে উদীচী নেতৃবৃন্দের কাছাকাছি পৌঁছেই তার সাইকেলে বহন করে আনা বোমা বিকট শব্দে বিস্ফোরণ ঘটালে ঘটনাস্থলেই মারা যান উদীচী নেত্রকোনা জেলা সংসদের সেসময়কার সহ-সাধারণ সম্পাদক খাজা হায়দার হোসেনসহ সাতজন। বিস্ফোরণে গুরুতর আহত হন নয়জন পুলিশ সদস্য এবং উদীচী’র বেশ কয়েকজন নেতা-কর্মীসহ অন্তত ৬০ জন। তাদের মধ্যে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় পরদিন মারা যান সুদীপ্তা পাল শেলী।     আর

ক্যাবল কাটা পড়ায় বিকল লক্ষাধিক ফোন

রাজধানীর মগবাজার এলাকায় বিটিসিএলের একটি কোর ক্যাবল কাটা পড়ায় বৃহস্পতিবার রাত থেকে বিকল হয়ে পড়েছে লক্ষাধিক ফোন। যার মধ্যে ফায়ার সার্ভিসের মত জরুরি সেবা সংস্থার ফোনও রয়েছে বলে জানা গেছে। এই জটিলতায় তবে বিপাকে পড়ছে নগরবাসী। সেই সংখ্যা বিটিসিএলের কর্মকর্তাদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়নি। একজন কর্মকর্তা বলেন, কোর কেবল থেকে বিভিন্ন দিকে সাব কেবল গেছে। ফলে সমস্যাটা শহরের বিভিন্ন অংশেই হচ্ছে। বিকল নম্বরের সংখ্যা হবে বেশ কয়েক হাজার। এব্যাপারে জানাতে চাইলে বিটিসিএলের পরিচালক (জনসংযোগ ও প্রকাশনা) মীর মোহাম্মদ মোরশেদ বলেন, মগবাজার দিলু রোডে সিটি করপোরেশনের সংস্কার কাজের কারণে টেলিফোনের ওই ‘কোর ক্যাবল’ কাটা পড়ে গত রাতে। আজ (শুক্রবার) সকাল থেকে মেরামতের কাজ শুরু হয়েছে। আশা করি দ্রুত সময়ের মধ্যে পরিস্থিত স্বাভাবিক হবে। ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের মহাপরিচালক আলী আহাম্মেদ খান বলেন, তাদের নিয়ন্ত্রণ কক্ষের সব বিটিসিএল নম্বর ভোরে আকস্মিকভাবে বিকল হয়ে যায়। এসব নম্বর থেকে কোথাও ফোন করা যাচ্ছে না; আসছেও না। ফলে কোথাও অগ্নিকাণ্ড বা দুর্ঘটনা ঘটলে সেই তথ্য ফায়ার সার্ভিস নিয়ন্ত্রণ কক্ষকে জানাতে পারছেন না কেউ। ফায়ার সার্ভিস কর্মীদের নির্ভর করতে হচ্ছে দুটি মোবাইল ফোনের ওপর। নিয়ন্ত্রণকক্ষের দায়িত্বরত কর্মকর্তা মাহফুজ রিবেন জানান, যে কেউ জরুরি প্রয়োজনে ০১৭৩০৩৩৬৬৯৯, ০১৭১৩০৩৮১৮২ নম্বরে ফোন করলে কথা বলতে পারবেন। ফায়ার সার্ভিসের আরেকজন কর্মকর্তা জানান, কেবল নিয়ন্ত্রণ কক্ষ নয়, অনেক ফায়ার স্টেশনের ফোনই সকাল থেকে বিকল। ঢাকার লালবাগ, গ্রিন রোড, মালিবাগ, মিরপুরসহ বিভিন্ন এলাকা থেকেও গ্রাহকরা তাদের ফোন বিকল থাকার কথা জানিয়েছেন। এই জটিলতা কাটিয়ে উঠতে বিটিসিএল এর কাজের তদারকি করছেন বিটিআরসির একজন কর্মকর্তা।   আর

© ২০১৭ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি