ঢাকা, ২০১৯-০৪-২৪ ০:৪৮:০৬, বুধবার

Ekushey Television Ltd.

অবসরে যাচ্ছেন ঢাকা কলেজের অধ্যক্ষ মোয়াজ্জম হোসেন

তবিবুর রহমান

প্রকাশিত : ১০:৪৭ এএম, ১২ এপ্রিল ২০১৯ শুক্রবার | আপডেট: ০৩:৫৯ পিএম, ১২ এপ্রিল ২০১৯ শুক্রবার

ধ্যানে জ্ঞানে আপদমস্তক তিনি একজন মানবদরদী গুনি শিক্ষক। শিক্ষা যার ধ্যানজ্ঞান। শিক্ষাকে স্থান দিয়েছেন ইবাদতের পর্যায়ে। দেশের মানসম্মত শিক্ষা,গবেষণাসহ সামগ্রিক শিক্ষকতা পেশার উন্নয়ন, মর্যাদা বৃদ্ধি ও সুনাম অক্ষুন্ন রাখতে তাঁর অবদান অবিস্মরণীয়। বহু সংগ্রাম করে আজ তিনি সফল জীবনের এক প্রতিকৃতি। সহজ সরল এমন একজন মানুষ আজ পরিণত হয়েছেন জীবন্ত কিংবদন্তী হিসেবে।

বলছি ঢাকা কলেজের অধ্যক্ষ মোয়াজ্জম হোসেন মোল্লাহ’র কথা। আগামী ২৭ এপ্রিল তার চাকরি মেয়াদ শেষ হচ্ছে। সবকিছু ঠিক থাকলে ঐদিন অবসর নেবেন তিনি। ঢাকা কলেজের এই অধ্যক্ষের বিদায়ী সংবর্ধনা অনুষ্ঠানের প্রস্তুতি ও কলেজে সার্বিক বিষয় খোঁজ খবর নিতে গেলে তাঁর সম্পর্কে এসব কথা বলেন তার সহকর্মীরা।

অধ্যক্ষের অবসরের এবিষয়ে জানতে চাইলে ঢাকা কলেজের ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক আনোয়ার মাহমুদ একুশে টিভি অনলাইনকে বলেন, সব কিছু ঠিক থাকলে আগামী ২৭ এপ্রিল তিনি অবসর নেবেন। কলেজ প্রশাসন অধ্যক্ষের বিদায়ী সংবর্ধনার আয়োজন করবে। সেখান থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে তাকে বিদায় জানানো হবে। একইসঙ্গে তিনি বলেন, তরুণ শিক্ষকদের জন্য তার অবদান স্মরণীয় হয়ে থাকবে। এই কলেজ সব সময়ই তাঁর অভাব অনুভব করবে।

এবিষয় জানতে চাইলে ঢাকা কলেজের অধ্যক্ষ মোয়াজ্জম হোসেন মোল্লাহ একুশে টিভি অনলাইনকে বলেন, ঢাকা কলেজ একটি ঐতিহ্যবাহী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। এই প্রতিষ্ঠানের ৪ বছর অধ্যক্ষের দায়িত্ব পালন করতে পেরে আমি গর্বিত। সবার সহযোগিতায় এই পর্যায়ে পৌঁছেছে ঢাকা কলেজ। অধ্যক্ষ হওয়ার পর যে কাজ হাতে নিয়েছিলাম তার এক চতুর্থতাংশ বাস্তবায়ন হয়েছে। বাকি কাজ সময়ের অভাবে করতে করা যায়নি। আশা করি আমরা রেখে যাওয়া কাজ নতুন অধ্যক্ষ এসে শেষ করবে।

এসময় তিনি শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে বলেন, ‘জীবনের জন্য লক্ষ্য বা টার্গেট থাকতে হবে। কারো ক্ষতি করা নয়, বরং ভালোকিছু করার প্রবণতা থাকতে হবে। মানুষের জীবনে কিছু করে যাওয়ার মতো সময় খুব অল্পই পাওয়া যায়। এই সংক্ষিপ্ত জীবনের পরিভ্রমণে ভালো কিছু অর্জন করে তা মানুষের মাঝেই বিতরণ করে যেতে হবে।

উল্লেখ্য,২০১৬ সালে ২৭ মার্চ ঢাকা কলেজে ৭০তম অধ্যক্ষ হিসেবে নিয়োগ পান মোয়াজ্জম হোসেন মোল্লাহ।
এর আগে তিনি সাবেক উপাধ্যক্ষ হিসাবে কর্মরত ছিলেন। ছোটবেলা থেকেই কৌতুহলী, সৃষ্টিশীল, কল্পনা বিলাসী। মো. মোয়াজ্জেম হোসেন ১৯৬০ খ্রিস্টাব্দে ঢাকা জেলার ধামরাই উপজেলার যাদবপুর গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। বাবা জামাল উদ্দিন মোল্লা এবং নুরজাহান বেগমের ৫ম সন্তান তিনি। ছোটবেলা থেকে জ্ঞানের প্রতি ছিল তাঁর অকুন্ঠ তৃষ্ণা।

ঢাকা তিনি কলেজ থেকে ১৯৭৫ সালে এসএসসি এবং ১৯৭৭ খ্রিস্টাব্দে এইচএসসি পাস করেন। এরপর ১৯৮১ খ্রিস্টাব্দে জাহাঙ্গীরনগরে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে রসায়ন বিষয়ে স্নাতক সম্মান ডিগ্রি অর্জন করার পর ১৯৮২ খ্রিস্টাব্দে তিনি একই বিষয়ে এমএসসি ডিগ্রি সম্পন্ন করেন। ১৯৮৮ খ্রিস্টাব্দে তিনি বিসিএস শিক্ষা ক্যাডারে (৭তম) উত্তীর্ণ হয়ে চাকুরিজীবন শুরু করেন। অধ্যক্ষ মো. মোয়াজ্জেম হোসেন একই সঙ্গে ঐতিহ্যবাহী ঢাকা কলেজের ছাত্র, একজন শিক্ষক, দুইবার নির্বাচিত টিচার্স কাউন্সিলের সাধারণ সম্পাদক, ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ এবং সর্বশেষ ২০১৬ খ্রিস্টাব্দের ২৭ মার্চ অধ্যক্ষ পদ লাভ করার গৌরব অর্জন করেন।

দায়িত্ব পালন করার পর থেকে তিনি, আধুনিক এবং মানসম্মত শিক্ষাদানের মাধ্যমে ছাত্রদের শারীরিক উৎকর্ষ এবং মানসিক বিকাশে কাজ করে যাচ্ছেন। সর্বোপরি, তার সমগ্র জীবন বঙ্গবন্ধুর আদর্শে উজ্জীবিত। মহান মুক্তিযুদ্ধের অনুপ্রেরণায় গর্বিত প্রফেসর মোয়াজ্জেম হোসেন দেশের উন্নয়নে নিজেকে উৎসর্গ করতে চান।


টিআর/

 

 



© ২০১৯ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি