ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ২১ জানুয়ারি ২০২১, || মাঘ ৭ ১৪২৭

আকস্মিক সফরে কলারোয়ায় জার্মান রাষ্ট্রদূত

কলারোয়া (সাতক্ষীরা) প্রতিনিধি

প্রকাশিত : ২১:৫৫, ১৪ নভেম্বর ২০২০

সাতক্ষীরার কলারোয়ায় হাতে তৈরী হস্তশিল্প জার্মানিতে রপ্তানির ব্যাপারে উদ্যোগ নেয়ার আশ্বাস দিয়েছেন বাংলাদেশে নিযুক্ত দেশটির রাষ্ট্রদূত পিটার ফারেনহোল্টজ। তিনি শুক্রবার (১৩ নভেম্বর) বিকেলে আকস্মিক এক সফরে উপজেলার জালালাবাদ গ্রামের ঋষিপাড়ায় হস্তশিল্প দেখতে আসেন।

হস্তশিল্প দেখতে এসে জার্মান রাষ্ট্রদূত এখানকার হস্তশিল্পের সুবিধা-অসুবিধার ব্যাপারে সার্বিক খোঁজ-খবর নেন। দ্বোভাষীর মাধ্যমে কথা বলেন হস্তশিল্পী তৈরীর প্রান্তিক পর্যায়ের নারীদের সঙ্গেও। হস্তশিল্পগুলো কোন কোন দেশে রপ্তানী হয়, এগুলো তৈরী করতে কি কি কাঁচামাল লাগে সেগুলোর ব্যাপারেও খোঁজখবর নেন, পাশাপাশি হস্তশিল্প তৈরির কারিগরদের আর্থিক অবস্থারও খোঁজখবর নেন তিনি। 

এসময় জার্মান রাষ্ট্রদূত পিটার ফারেনহোল্টজ বলেন, বহির্বিশ্বে ক্ষতিকর প্লাস্টিকের ব্যবহার আস্তে আস্তে কমানোর দিকে এগিয়ে যাচ্ছে। এজন্য প্রাকৃতিক ব্যাগ, আসবাবপত্রের প্রয়োজন দিন দিন বেড়ে যাচ্ছে। হাতে তৈরী এসকল নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্য জার্মানে রপ্তানি করার ব্যাপারে বিশেষভাবে উদ্যোগ গ্রহণ করবেন বলে তিনি আশ্বাস দেন। 

পরে তিনি বিষ্ণু নামে স্থানীয় এক অসহায় ব্যক্তিকে চিকিৎসার জন্য নগদ পাঁচ হাজার টাকা সহযোগিতা করেন। এসময় তার সফরসঙ্গী হিসেবে ছিলেন- জার্মান দূতাবাসের অ্যাসিস্ট্যান্ট প্রোটকল অফিসার হাসানুর রহমান, এডভাইজার ল মিটলেফ, জালালাবাদ ইউপি সদস্য মশিয়ার রহমানসহ অন্যান্যরা।

প্রসঙ্গত, কলারোয়া উপজেলার জালালাবাদ ইউনিয়নসহ অন্যান্য ইউনিয়নের বিভিন্ন গ্রামে খড় ও সোনালী আঁশ পাট দিয়ে হাতের তৈরি ফিডব্যাক, সবজি ব্যাগ, বালতি, গামলা, কূলা, পাঁটের তৈরী হাত ব্যাগ, বস্তা ইত্যাদি তৈরী করা হস্তশিল্প স্থানীয় শিল্পী সংস্থা কিনে নিয়ে ইতালি, ফ্রান্স, আমেরিকাসহ বেশ কয়েকটি দেশে রপ্তানি করে থাকে। 

এনএস/


Ekushey Television Ltd.

© ২০২১ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি