ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ২২ আগস্ট ২০১৯, || ভাদ্র ৭ ১৪২৬

Ekushey Television Ltd.

আমি মুসলিম তোষণ করি, ইফতারে যাব: মমতা

প্রকাশিত : ১০:৩৭ ২৬ মে ২০১৯ | আপডেট: ১০:৩৯ ২৬ মে ২০১৯

মুসলমান তোষণের অভিযোগকে পালটা চ্যালেঞ্জ জানিয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বললেন, ‘‘যে গরু দুধ দেয় তার লাথি খাওয়া উচিত।’’ রাজ্যে লোকসভা নির্বাচনের ফলাফল মমতাকে হতাশ করেছে।

২২টি আসনের থেমে গিয়েছে তৃণমূল। অন্যদিকে আসন সংখ্যা ২ থেকে ১৮টি তে বাড়িয়ে নিয়েছে বিজেপি। একাধিক রাজনৈতিক পর্যবেক্ষক দাবি করেছেন, বিজেপির এই সাফল্য বা তৃণমূলের পতনের অন্যতম কারণ মেরুকরণের রাজনীতি।

এই পর্যায়ের ধর্মীয় মেরুকরণ বঙ্গ রাজনীতিতে আগে দেখা যায়নি৷ ভোটের ফলাফলেও যা স্পষ্ট। ফলাফল প্রকাশের পাক্কা দু’দিন পর সাংবাদিক সম্মেলন করে মমতা নিজের মন্তব্যের মাধ্যমেই তোষণের রাজনীতির ব্যাখ্যা দিয়েছেন। তিনি বলেছেন, ‘‘আমি কিন্তু ইফতারে যাচ্ছি। আপনারাও আসবেন। আমি তো মুসলমানদের তোষণ করি। ১০০ বার যাব। যে গরু দুধ দেয় তার লাথি খাওয়া উচিত।’’

লোকসভা নির্বাচনের প্রচার চলাকালীন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী এবং বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহ রাজ্যে ৩৩টি সভা করেছেন। প্রতিটি সভাতেই তারা মমতার সংখ্যালঘু তোষণ নিয়ে সরব হয়েছেন।

বাংলাদেশী অনুপ্রবেশকারীরাই যে মমতার ভোটব্যাংক তা স্পষ্টভাবে জানিয়েছেন মোদী-শাহ। অন্যদিকে সিপিএমও বারবার প্রতিযোগিতামূলক সাম্প্রদায়িকতার কথা বলে মমতার সংখ্যালঘু তোষণের রাজনীতিকে আক্রমণের কেন্দ্রবিন্দুতে নিয়ে গিয়েছে। যুতসই জবাব দিতে মমতা শনিবার বিকালের সাংবাদিক সম্মেলনকেই বেছে নিয়েছেন।

সাফ জানিয়েছেন, ‘‘আমার মা বলেছিলেন মমতা যেন মমতাই থাকে। মনে রাখবেন, মমতা মমতাই থাকবে। নিজেকে কোনওদিন বদলাবে না।’’

রাজ্যের ১২টি সংখ্যালঘু অধ্যুষিত লোকসভার ৯টিতে ভালো ফল করেছে তৃণমূল। স্বাভাবিকভাবেই, সংখ্যালঘু ভোটব্যাংকের দিকেই যে আগামী নির্বাচনে তাকিয়ে থাকবেন মমতা তা শনিবার আরও একবার পরিষ্কার হয়ে গিয়েছে।

কিন্তু তিনি দলের দিকে নজর দিতে চান, এদিন তা জানিয়েছেন মমতা। জানিয়েছেন দলকে বেশি সময় দিতে চান।

তথ্যসূত্র: কলকাতা ২৪×৭

এমএইচ/

© ২০১৯ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি