ঢাকা, মঙ্গলবার   ১৪ জুলাই ২০২০, || আষাঢ় ৩০ ১৪২৭

Ekushey Television Ltd.

ঈদের দিনে করোনামুক্ত ৩ বীরকে সংবর্ধনা 

হিলি প্রতিনিধি

প্রকাশিত : ১৮:২৭ ২৫ মে ২০২০ | আপডেট: ১৮:৫০ ২৫ মে ২০২০

দিনাজপুরের বিরামপুরে প্রথম করোনা মুক্ত হওয়া তিন ব্যক্তিকে সংবর্ধনা দিয়ে চিকিৎসা কেন্দ্র থেকে বিদায় জানিয়েছে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স প্রশাসন। করোনামুক্ত তিন ব্যক্তিকে হাততালির মাধ্যমে সংবর্ধনা দিয়ে প্রত্যেকের হাতে পর্যাপ্ত পরিমান পুষ্টিকর ফল উপহার দেওয়া হয়। সোমবার দুপুর ১২ টায় বিরামপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এ সংবর্ধনার আয়োজন করা হয়। 

অনুষ্ঠানে স্বাস্থ্য কর্মকর্তা সোলায়মান হোসেন মেহেদীসহ করোনা চিকিৎসায় গঠিত দল,উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) তৌহিদুর রহমান, এএসপি মিথুন সরকার এবং ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মনিরুজ্জামান উপস্থিত ছিলেন। 

করেনা মুক্ত হওয়া তিনজন হলেন উপজেলার কল্যানপুর গ্রামের মোস্তফা, রামকৃষ্ণপুর গ্রামের উজ্জল হোসেন এবং পৌর শহরের পূর্ব পাড়া মহল্লার শাহার বানু। 

করোনা মুক্ত হওয়া ওই তিন ব্যক্তি জানান, করোনা আক্রান্ত হবার পর এক ধরনের ভয় কাজ করছিলো তাদের মধ্যে। কিন্তু চিকিৎসা কেন্দ্রে চিকিৎসক এবং প্রশাসনের কর্মকর্তা সার্বিক তত্ত্বাবধায়নে তাঁরা দ্রুত সেই ভয় কাটিয়ে ওঠেন। চিকিৎসকদের সার্বক্ষণিক অক্লান্ত চিকিৎসা সেবায় তাঁরা দ্রুতই সুস্থ হয়ে ওঠেন বলে জানান। 

বিরামপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. সোলায়মান হোসেন মেহেদী জানান, গত ৯ মে ওই তিন ব্যক্তির নমুনা পরীক্ষায় করোনা সনাক্ত হয়। এরপর থেকেই উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে তত্ত্বাবধায়নে বিরামপুরে করোনা চিকিৎসার জন্য নির্ধারিত প্রাতিষ্ঠানিক চিকিৎসা কেন্দ্র মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্সের আইসোলেশন সেন্টারে রাখা হয়েছিলো। সেখানে স্বাস্থ্য কর্মকর্তা সোলায়মান হোসেন মেহেদীর নেতৃত্বে গঠিত স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে অভিজ্ঞ চিকিৎসক দলের সার্বিক তত্ত্বাবধায়নে শারীরিক ও মানসিক চিকিৎসা সেবা চলতে থাকে। প্রথম পরীক্ষায় নেগেটিভ ফলাফল আসলে ওই তিনজনকে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে করোনা ইউনিটে নেওয়া হয়। সেখানে  চিকিৎসক দলের ধারাবাহিক চিকিৎসায় বিশ্ব স্বাস্থ সংস্থার নিয়ম অনুযায়ী নির্ধারিত দুটি পরীক্ষায় সর্বশেষ গতকাল রোববার রাতে ওই তিনজনের করোনা নেগেটিভ ফলাফল আসে। ফলে নিয়ম মেনে সোমবার ওই তিনজনকে করোনা মুক্ত ঘোষণা করে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে বিদায় জানানো হয়। 

বিরামপুর উপজেলা নির্বাহী নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. তৌহিদুর রহমান জানান, করোনা শনাক্ত হওয়ার পর জেলা প্রশাসকের নির্দেশনা অনুযায়ী তিন ব্যক্তির পরিবারসহ প্রতিবেশিদের লকডাউন করা পরিবারদের পর্যপ্ত খাদ্য সহায়তার পাশাপাশি সার্বিক সহযোগিতা দেওয়া হয়েছে। আজ ঈদের দিন ওই তিন ব্যক্তি করোনা মুক্ত হয়ে বিরামপুরবাসীর মধ্যে ঈদের খুশির আনন্দে নতুন মাত্রা যোগ করা হয়েছে।
কেআই/


New Bangla Dubbing TV Series Mu
New Bangla Dubbing TV Series Mu

© ২০২০ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি