ঢাকা, রবিবার   ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০, || আশ্বিন ১২ ১৪২৭

Ekushey Television Ltd.

ঋণ না দেয়ায় ব্যাংকের এমডিকে হত্যার হুমকি!

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১১:৪৯ ২৭ মে ২০২০ | আপডেট: ১১:৫২ ২৭ মে ২০২০

এক্সিম ব্যাংকের এমডি মোহাম্মদ হায়দার আলী মিয়া

এক্সিম ব্যাংকের এমডি মোহাম্মদ হায়দার আলী মিয়া

সিকদার গ্রুপের একটি প্রজেক্টে ঋণ দিতে রাজি না হওয়ায় এক্সিম ব্যাংকের এমডি মোহাম্মদ হায়দার আলী মিয়া ও অতিরিক্ত এমডি মোহাম্মদ ফিরোজ হোসেনকে গুলি করে হত্যা চেষ্টার অভিযোগে গুলশান থানায় একটি মামলা করা হয়েছে।

মামলার আসামিরা হলেন- সিকদার গ্রুপের এমডি রন হক সিকদার ও তার ভাই দীপু হক সিকদার। তারা সিকদার গ্রুপের কর্ণধার জয়নাল সিকদারের ছেলে। সম্প্রতি এক্সিম ব্যাংক কর্তৃপক্ষ গুলশান থানায় মামলাটি করে।

পুলিশের গুলশান বিভাগের ডিসি সুদীপ কুমার চক্রবর্তী জানান, সিকদার গ্রুপের একটি প্রজেক্টে ঋণ দেওয়ার করার কথা ছিল এক্সিম ব্যাংকের। ব্যাংকটির ওই দুই উচ্চপদস্থ কর্মকর্তা ঋণের বিপরীতে বন্ধকি সম্পত্তি পরিদর্শন করতে সিকদার গ্রুপের লোকজনের সঙ্গে ঢাকার অদূরে যান। তবে ওই সাইট দেখার পর তারা ঋণ দিতে রাজি হচ্ছিলেন না। এরপর এক্সিম ব্যাংকের এমডি  ও অতিরিক্ত এমডিকে সিকদার গ্রুপের লোকজন তাদের বনানী কার্যালয়ে নিয়ে আটকে রাখে। এ সময় তারা জোরপূর্বক তাদের প্রজেক্টের ভিডিও প্রেজেন্টেশন দেখাতে চায়। এ ঘটনায় এক্সিম ব্যাংকের পক্ষ থেকে মামলা হয়েছে। 

মামলার এজাহারে বলা হয়, ঋণ দিতে রাজি না হওয়ায় এক্সিম ব্যাংকের এমডি  ও অতিরিক্ত এমডিকে গুলি করে হত্যার চেষ্টা ও মারধর হয়। এ সময় রন হক সিকদার ও দিপু হক সিকদার ব্যাংকটির এমডির কাছ থেকে একটি সাদা কাগজে জোর করে স্বাক্ষর নেন।

গুলশান থানার ওসি কামরুজ্জামান জানান, ৫০০ কোটি টাকা ঋণ প্রস্তাব নিয়ে গত ৭ মে'র ওই ঘটনায় এক্সিম ব্যাংক ১৯ মে মামলা করে। ঋণের বিপরীতে বন্ধকি সম্পত্তি পরিদর্শন করতে গিয়েছিলেন এক্সিম ব্যাংকের ওই দুই কর্মকর্তা। এ সময় জামানত হিসেবে ওই সম্পত্তির বন্ধকি মূল্য কম বলে জানান ব্যাংকটির এমডি ও অতিরিক্ত এমডি। 

ওসি আরও জানান, অভিযোগ তদন্ত করা হচ্ছে। অভিযুক্তরা পলাতক রয়েছে।

এমবি//


New Bangla Dubbing TV Series Mu
New Bangla Dubbing TV Series Mu

© ২০২০ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি