ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ২১ নভেম্বর ২০১৯, || অগ্রাহায়ণ ৭ ১৪২৬

Ekushey Television Ltd.

এখনও প্রথম হুমায়ুন আহমেদ!

প্রকাশিত : ১৮:২২ ২২ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ | আপডেট: ১২:৫৫ ৮ নভেম্বর ২০১৯

হুমায়ুন আহমেদ ছিলেন বাংলা কথাসাহিত্যে এক অপ্রতিদ্বন্দ্বী জাদুকর। শুধু উপন্যাস বা গল্প নয়, নাটক ও চলচ্চিত্র নির্মাণেও ছিলেন তিনি সেরা। পাঠকরা যেমন তার বই কেনার জন্য হুমড়ি খেয়ে পড়তো, প্রকাশকরাও তেমনি তার বই ছাপানোর জন্য অপেক্ষায় থাকতো।

এখনও তিনি নেই। তবুও তিনিই প্রথম। তার নাম এখনও পাঠকদের বইমেলা মুখী করছে।

অমর একুশে গ্রন্থমেলা ঘুরে দেখা যায় পাঠকরা তার বই কিনছে। প্রকাশনা স্টলগুলোতে বিক্রেতারা স্বীকার করলেন, এখনও হুমায়ুন আহমেদ প্রথম। তার বই বিক্রি হচ্ছে সবচেয়ে বেশী।

অনন্যা প্রকাশন- এর স্টলে কথা হলো বিক্রয় কর্মী ফারুক আহমেদ- এর সঙ্গে। তিনি বলেন, আজ মেলার বাইশতম দিন। প্রথমদিন থেকে এখনও প্রত্যেকদিন হুমায়ুন আহমেদ - এর বই বিক্রি করছি সবচেয়ে বেশী।

একই কথা বললেন, কাকলী প্রকাশ- এর বিক্রয় কর্মী জহির। তিনি বলেন, শুধু তরুণ-তরুণীরা নয়, প্রবীনরাও প্রথমেই খোঁজ নেয় হুমায়ুন আহমেদ-এর বই। বিক্রয় তালিকায় প্রতিদিনই প্রথম থাকেন হুমায়ুন আহমেদ।

কথা হলো মৌরিতা মজুমদার- এর সঙ্গে। বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রী মৌরিতা`র ব্যাগ ভর্তি হুমায়ুন আহমেদ- এর বই। এর মধ্যে কয়েকটি হলো, বাঘবন্দি মিসির আলী, ইস্টিশন, চৈত্রের দ্বিতীয় দিবস।

বইমেলার বেশ কয়েকটি স্টলে ঘুরে হুমায়ুন আহমেদ- এর যেসব বই সবচেয়ে বেশি বিক্রি হতে দেখা গেলো সেগুলো হলো, হিমু সমগ্র, মিসির আলী সমগ্র। এছাড়াও হুমায়ুন আহমেদ- এর দশটি উপন্যাস, সেরা হুমায়ুন, বাদল দিনের প্রথম কদম ফুল, ভালোবেসে যদি সুখ নাহি, শ্রেষ্ঠ উপন্যাস,  হুমায়ুন বিচিত্রা, শুভ্র সমগ্র, পুফি, রোদন ভরা এ বসন্ত, বাঘবন্দি মিসির আলি, তোমাদের এই নগরে, ইস্টিশন, চৈত্র্যের দ্বিতীয় দিবস, জীবন কৃষ্ণ মেমোরিয়াল হাই স্কুল,  এইসব দিনরাত্রি, অন্যভুবন, ময়ূরাক্ষী, তোমাকে, সেদিন চৈত্রমাস, তিনপুরুষ, মে ফ্লাওয়ার, অন্ধকারের গান, হরতন ইশকাপন, অপরাহ্ন, কুহুরানী উল্লেখযোগ্য।

বেশ কয়েকটি স্টলে কথা বলে জানা যায়, হুমায়ুন আহমেদ- এর বই প্রকাশ করেছে এমন স্টলগুলোতে প্রতিটি বই (আলাদাভাবে প্রতিটি বই) গড়ে দৈনিক একশ কপি করে বিক্রি হচ্ছে। ছুটির দিনগুলোতে সেই গড় সংখ্যা দেড়শ`তে পৌঁছায়।

হুমায়ুন আহমেদ কেন এখনো সেরা এমন প্রশ্নে দিলীপ মহাজন নামে একজন পাঠক একুশে টেলিভিশন অনলাইনকে বলেন, আমরা হুমায়ুন আহমেদ- এর বই যখন পড়ি তখন মনে হয় তিনি আমাদের মধ্যবিত্ত জীবনের চিত্র এঁকেছেন। তাকে আমাদের আপন মনে হয়।

 

আ আ//এসএইচ/

© ২০১৯ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি