ঢাকা, রবিবার   ২০ অক্টোবর ২০১৯, || কার্তিক ৫ ১৪২৬

Ekushey Television Ltd.

খুলনায় মদপানে ৮ জনের মৃত্যু

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১৩:৩১ ১০ অক্টোবর ২০১৯

বিজয় দশমীতে প্রতিমা বিসর্জন দিয়ে অতিরিক্ত মদ্যপানে খুলনার পূজা উদযান কমিটিরি সাধারণ সম্পাদকসহ ৮ জনের মৃত্যু হয়েছে। 

বুধবার (৯ অক্টোবর) দুপুর থেকে রাত পর্যন্ত তারা খুলনা মেডিকেল কলেজ ও নগরীর গাজী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান তারা। 

খুলনার সিভিল সার্জন ডা. এ এসএম আব্দুর রাজ্জাক গণমাধ্যমকে বলেন, বিজয় দশমী উৎসবে অতিরিক্ত মদ্যপানে তারা আহত ১০ জনকে হাসপাতালে নিয়ে আসেন তাদের স্বজনরা। 

তাদের মধ্যে রূপসার পরিমল (২৮) ও গ্লাক্সো মোড়ের প্রদীপ শীলের ছেলে সুজন শীলকে (২৬) হাসপাতালে আনার পর মঙ্গলবার (৮ অক্টোবর) রাত সাড়ে ১০ দিকে মৃত ঘোষণা করা হয়। বাকি তিনজন চিকিৎসাধীন অবস্থায় গতকাল মারা যান। 

তারা হলেন, গল্লামারী ঋষিপাড়ার নরেন্দ্রনাথ দাশের ছেলে প্রসেনজিত দাশ (২৯), মহানগরীর সদর থানা এলাকার ভৈরব টাওয়ারসংলগ্ন এলাকার মানিক বিশ্বাসের ছেলে রাজু বিশ্বাস (২৫) ও রূপসার অমিত শীল (৩৮)।

এদিকে মদ্যপানে গল্লামারী ঋষিপাড়ার নরেন্দ্রনাথ দাশের আরেক ছেলে তাপস দাশের (৩৫) অবস্থা খারাপ হলে তাকে গাজী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে আনা হয়। পরে গতকাল তিনি সেখানে মারা যান। এছাড়া মদ্যপানে রায়পাড়ার ইন্দ্রানী বিশ্বাস (২৫) ও রূপসার দীপ্ত (২৮) নামে আরো দুজন এ হাসপাতালে মারা যান। এদের মধ্যে ইন্দ্রানী গতকাল বিকাল সাড়ে ৫টায় ও দীপ্ত বেলা ২টায় মারা যান। বিষয়টি গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করেছেন গাজী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ম্যানেজার আশিকুর রহমান।

খুলনা মেট্রোপলিটন পুলিশের সহকারী কমিশনার মো. কামরুজ্জামান জানান, দুর্গোৎসবে তারা অতিরিক্ত মদ্যপান করেন তারা। মঙ্গলবার রাতে তাদের হাসপাতালে নেয়া হলে, ওই রাতে দুইজন ও পরদিন বাকিরা মারা যান। এ ঘটনায় খুলনা ও সোনাডাঙ্গা থানায় অপমৃত্যু মামলা দায়ের হয়েছে বলেও জানান তিনি।  

এদিকে, মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর খুলনার উপপরিচালক রাশেদুজ্জামান বলেন, নিহতদের আত্মীয়-স্বজনের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, তারা ভারত থেকে আনা মদ পান করেন। সে মদে বিষাক্ত কোনো কিছু দেয়া হয়েছে কিনা এবং মদের সন্ধ্যান ও বিক্রেতা কারা ছিল সে রহস্য উদ্ঘাটনে তদন্ত করা হচ্ছে।
 
আই/
 

© ২০১৯ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি