ঢাকা, শুক্রবার   ২৭ নভেম্বর ২০২০, || অগ্রাহায়ণ ১৩ ১৪২৭

Ekushey Television Ltd.

গণতন্ত্র সূচকে শীর্ষে নরওয়ে, তলানিতে উ. কোরিয়া

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১৮:২৩ ৩১ জানুয়ারি ২০১৮

বৈশ্বিক গণতন্ত্রের সূচকে চির শান্তির দেশ নরওয়ে শীর্ষে অবস্থান করছে। অন্যদিকে একের পর এক পারমাণবিক বোমা বানিয়ে ও বিরোধীদলের সদস্যদের নিধন করায় উত্তর কোরিয়া এই তালিকায় তলানিতে অবস্থান করছে।

ইকোনমিস্ট ইনটেলিজেন্স ইউনিটের (ইআইইউ) বৈশ্বিক গণতন্ত্রের সূচক-২০১৭ প্রকাশ করে সংগঠনঠি। গণতন্ত্রের সূচকে চারটি ক্যাটাগরিতে ভাগ করে এই তালিকা প্রকাশ করা হয়। তালিকায় ৮ পয়েন্ট থেকে ১০ পয়েন্ট পাওয়া দেশগুলোকে পূর্ণ গণতান্ত্রিক দেশের কাতারে ফেলা হয়েছে। পূর্ণ গণতান্ত্রিক দেশগুলোকে আবার দুই ভাগে ভাগ করা হয়েছে।

লন্ডনভিত্তিক দ্য ইকোনমিস্ট গ্রুপের গবেষণা ও বিশ্লেষণ বিভাগ ইকোনমিস্ট ইনটেলিজেন্স ইউনিট বুধবার (৩১ জানুয়ারি) সূচকটি প্রকাশ করেছে। ১৬৭টি দেশ নিয়ে সূচকটি তৈরি করা হয়েছে। তালিকায় আবারও শীর্ষস্থানটি দখল করেছে নরওয়ে। বিপরীতে উত্তর কোরিয়া মাত্র ১.৪ পয়েন্ট তালিকার তলানিতে অবস্থান করছে। তবে তালিকায় বাংলাদেশের অবস্থান ৮ ধাপ পিছিয়েছে।

গণতান্ত্রিক রাষ্ট্র হিসেবে বাংলাদেশের স্কোরও ২০১৬ সালের তুলনায় কমেছে। ২০১৭ সালের সূচকে বাংলাদেশের অবস্থান ৯২ তম এবং স্কোর ১০-এর মধ্যে ৫.৪৩। অথচ ২০১৬ সালে বাংলাদেশের অবস্থান ৮৪ তম এবং এর স্কোর ৫.৭৩ ছিল। ইকোনমিস্টের পরিসংখ্যান বলছে বিশ্বের মোট জনসংখ্যার ৫ শতাংশেরও কম মানুষ ‘পূর্ণ গণতন্ত্রের’ মধ্যে থাকে। এবার সারা বিশ্বের সার্বিক গণতান্ত্রিক পরিস্থিতিরও অবনতি হয়েছে বলে জানিয়েছে ইকোনমিস্ট। ২০১৬ সালে ১০ স্কোরের মধ্যে সারাবিশ্বের গড় অর্জন ছিল ৫.৫২। কিন্তু এইবার সার্বিক গড় ৫.৪৮। ইকোনমিস্টের সূচকে সাতটি মহাদেশের মধ্যে এশিয়া সার্বিক সূচকে নিচের দিকে রয়েছে। ১০ পয়েন্টের মধ্যে এশিয়ার গড় অর্জন ৫.৬৩।

সূত্র: ইকোনমিস্ট ইনটেলিজেন্স ইউনিট ওয়েবসাইট
এমজে/


New Bangla Dubbing TV Series Mu
New Bangla Dubbing TV Series Mu

© ২০২০ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি