ঢাকা, রবিবার   ০৮ ডিসেম্বর ২০১৯, || অগ্রাহায়ণ ২৪ ১৪২৬

Ekushey Television Ltd.

চাঁপাইনবাবগঞ্জের মাদক কারবারি আসলাম আটক

চাঁপাইনবাবগঞ্জ সংবাদদাতা

প্রকাশিত : ২০:২২ ২ ডিসেম্বর ২০১৯

চাঁপাইনবাবগঞ্জে মাদকের মামলায় সাজাপ্রাপ্ত মো. আসলাম নামে এক আসামি কে গ্রেফতার  করেছে গোয়েন্দা পুলিশ। রোববার সন্ধ্যায় চাঁপাইনবাবগঞ্জ শহরের  সোনারমোড় থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারকৃত আসলাম শিবগঞ্জ  উপজেলার পাঁকা ইউনিয়নের নয়রশিয়া গ্রামের হাসান আলির ছেলে। সোমবার সকালে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। 

জেলা গোয়েন্দা পুলিশের এসআই মশিউর রহমান গ্রেফতারের সত্যতা নিশ্চিত করে জানায়, আসলামের বিরুদ্ধে ৪টি মাদক মামলা রয়েছে। চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর মডেল থানায় দুটি, শিবগঞ্জ থানায় একটি ও রাজশাহীর বোয়ালিয়া থানায় একটি। রাজশাহীর বোয়ালিয়া থানার ২০১১ সালের মাদক মামলাটিতে ২০১৪ সালে তিন বছরের সশ্রম কারাদণ্ড দেয় আদালত। আসলামের বিরুদ্ধে সাজা গ্রেফতারি পরোয়ানা (ওয়ারেন্ট) রয়েছে। মাদকের কারবারি আসলাম দীর্ঘদিন ধরে পলাতক ছিল।

একাধিক সূত্রে জানা গেছে, গ্রেফতারকৃত আসলাম প্রায় এক দশক আগে ভারতীয় ফেনসিডিলের কারবার শুরু করেন। এরপর হেরোইন ও বর্তমানে সাজা ওয়ারেন্ট মাথায় নিয়ে ইয়াবার কারবার চালিয়ে যাচ্ছিলেন। এছাড়াও ইয়াবা সিন্ডিকেট পরিচালনা করছে ভারতের নাগাল্যান্ডের অবস্থানকারী শিবগঞ্জের আটরশিয়া গ্রামের ইসমাইল হোসেনের ছেলে শহিদুল। পশ্চিমবঙ্গের মালদা ও মুর্শিদাবাদ দিয়ে গরুর রাখালদের মাধ্যমে চাঁপাইনবাবগঞ্জে ইয়াবার চালান পাঠাচ্ছেন। শিবগঞ্জের আহসান ও বিজিবির সোর্স পরিচয়ে কামরুজ্জামান ইয়াবার কারবার চালাচ্ছেন। এদের সাথে নিবিড় যোগাযোগ ছিল গ্রেফতারকৃত আসলামের। তিনি বিশরশিয়ার তেলিখেড়ি হাটে কাপড়ের দোকান দিয়েছেন। কাপড় ব্যবসার আড়ালে চালিয়ে যাচ্ছিলেন ইয়াবার করবার। 

এছাড়াও পাঁকা ইউনিয়নের সামপুর গ্রামের ইব্রাহিম ইয়াবার করবারে জড়িত। কিছুদিন আগে বিজিবির গুলিতে আহত হয়। সে সময় আহত ইব্রাহিমকে চিকিৎসা শেষে কারাগারে পাঠানো হয়। জামিনে বেরিয়ে এখন তিনি পুরোদমে ইয়াবার কারবার করছেন। ইব্রাহিমের সাথে আরিফ ও শরিফুলসহ ৫/৬ জন ইয়াবার কারবারে জড়িত। শিবগঞ্জের আরেক শীর্ষ মাদক ব্যবসায়ী দুর্লভপুর ইউনিয়নের আলম। ইয়াবার কারবারে এরা সবাই এখন এলাকায় একেকজন কোটিপতি হিসেবে পরিচিত। ধরাছোঁয়ার বাইরে থেকে ইয়াবার কারবার চালিয়ে যাচ্ছেন তারা। 

সদর উপজেলার নারায়নপুর ইউনিয়নের আজিম আলী, একই এলাকার রাজিবুল ইসলাম। এরা এলাকায় চোরাইপথে গরু পাচারকারী হিসেবে পরিচিত হলেও ভিতরে ভিতরে ইয়াবার কারবার জড়িত। চাঁপাইনবাবগঞ্জে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী তাদের খুঁজছেন। 

আরকে//

© ২০১৯ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি