ঢাকা, মঙ্গলবার   ১৪ জুলাই ২০২০, || আষাঢ় ৩০ ১৪২৭

Ekushey Television Ltd.

জনজীবন স্বাভাবিক করার ঘোষণা সৌদি সরকারের

মোহাম্মদ ফিরোজ, সৌদি আরব থেকে

প্রকাশিত : ১৬:০৯ ২৬ মে ২০২০

বৈশ্বিক মহামারী করোনা ভাইরাসের কারণে কারফিউ ও লকডাউন ঘোষণায় সৌদিতে বন্ধ ছিল বেশিরভাগ কার্যক্রম ও জনজীবন। তবে আগামী ২১ জুন থেকে জনজীবন স্বাভাবিকভাবে চলাচলের ঘোষণা দিয়েছে সৌদি সরকার। আজ সৌদি স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের বরাত দিয়ে দেশটির প্রেস এজেন্সি এ তথ্য জানায়। 

দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, মক্কা বাদে অন্যান্য স্থানে আগামী ২৮ মে হতে ৩০ মে পর্যন্ত সকাল ৬টা হতে বিকাল ৩টা পর্যন্ত কারফিউ শিথিল থাকবে। এই সময়ে (সকাল ৬টা-বিকাল ৩টা) ব্যক্তিগত গাড়ি দিয়ে এক শহর থেকে অন্য শহরে যাওয়া যাবে। তবে তার আগে সৌদি সরকারের নির্দেশনাগুলো মেনে চলতে হবে। 

অন্যদিকে, আগামী ৩১ মে থেকে ২০ জুন পর্যন্ত মক্কার মসজিদে হারাম ছাড়া অন্য সকল মসজিদে জুম্মার নামাজ ও ওয়াক্তিয় নামাজ আদায়ের অনুমতি দেওয়া হয়েছে। তবে স্বাস্থবিধি মেনে চলতে হবে। সকাল ৬টা হতে রাত ৮টা পর্যন্ত কারফিউ শিথিল থাকবে। স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের নির্দেশনা মেনে সরকারি ও প্রাইভেট অফিস আদালত খোলা থাকবে। এসময়ে আভ্যন্তরীন বিমান চলাচলের অনুমতিও দেওয়া হয়েছে।
 
পরবর্তীতে আগামী ২১ জুন থেকে সৌদি আরবের সমস্ত এলাকার কারফিউ তুলে দেওয়া হবে এবং মক্কার মসজিদে হারাম বা হারাম শরীফে নামাজের অনুমতি দেওয়া হবে। জনজীবন স্বাভাবিক করা হবে। তার আগে, সামাজিক দূরত্বের দিক নির্দেশগুলো অবশ্যই মেনে চলতে হবে এবং ৫০ জনের অধিক লোকের জন সমাবেশ নিষিদ্ধ থাকবে।

সরকারি ও বেসরকারি অফিস আদালত পরিচালনা করার অনুমতি দেওয়ার পাশাপাশি পাইকারি ও খুচরা দোকানে এবং মলের পাশাপাশি কয়েকটি অর্থনৈতিক ও বাণিজ্যিক ক্রিয়াকলাপ আগের মতোই পরিচালিত হবে। এসময়ে ক্যাফেগুলোকে আরও একবার পরিচালনা করার অনুমতি দেওয়া হবে।

তবে যে সমস্ত অফিস ও কার্যক্রমে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা সম্ভব না সেগুলো পরবর্তী নির্দেশনা না দেয়া পর্যন্ত বন্ধ থাকবে। যেমন - বিউটি পার্লার, সেলুন দোকান, স্পোর্টস এবং স্বাস্থ্য ক্লাবগুলো, বিনোদন কেন্দ্র এবং সিনেমার হল। 

এছাড়া, পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত ওমরাহ তীর্থযাত্রা এবং আন্তর্জাতিক বিমান চলাচল স্থগিত থাকবে। আর নতুন নিয়মগুলো স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় নিয়মিত পর্যবেক্ষণ করে আগামীতে পরিস্থিতির দাবি অনুযায়ী পরিবর্তন করা যেতে পারে। 

এর আগে, স্বাস্থ্যমন্ত্রী ডাঃ তৌফিক আল-রাবিয়া বলেছেন, যতক্ষণ পর্যন্ত আমরা পর্যায়ক্রমে ধীরে ধীরে আগের অবস্থায় ফিরে না যাচ্ছি ততক্ষণ সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে হবে। তিনি আরও বলেন, করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের প্রথম দিকে সৌদি সরকার সতর্কতামূলক পদক্ষেপ গ্রহণ ভাইরাসটির বিস্তার রোধে সহায়তা করেছে। 

স্বাস্থ্যমন্ত্রী আরও বলেন, মন্ত্রণালয় পরবর্তী ধাপের জন্য একটি পরিকল্পনা তৈরি করেছে। যা দুটি প্রধান কারণের উপর নির্ভর করে। গুরুতর ক্ষেত্রে মোকাবেলা করার জন্য স্বাস্থ্যসেবা ব্যবস্থার সক্ষমতা এবং যত তাড়াতাড়ি সম্ভব নতুন সংক্রমণ শনাক্ত করার জন্য পরীক্ষার সম্প্রসারণ করা।

এদিকে, সোমবার (২৫ মে) সৌদি ক্রাউন প্রিন্স মোহাম্মদ বিন সালমান তার ঈদ উপলক্ষে দেওয়া ভাষণে দেশটির নাগরিকদের আশ্বস্ত করে বলেন, আল্লাহ চাইলে এই খারাপ পরিস্থিতি কেটে যাবে এবং আল্লাহর রহমতে আমরা ভালোর দিকে এগিয়ে যাচ্ছি। 

প্রসঙ্গত, সবশেষ তথ্য অনুযায়ী গত ২৪ ঘণ্টায় সৌদি আরবে নতুন করে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ২ হাজার ২৩৫ জন। মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৭৪ হজার ৭৯৫ জন। মারা গেছে ৯ জন, এ নিয়ে দেশটিতে মৃত্যের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৩৯৯ জনে। অন্যদিকে সুস্থ হয়েছেন ২ হাজার ১৪৮ জন, যাতে দেশটিতে সর্বমোট সুস্থ হয়ে ঘরে ফিরেছেন ৪৫ হাজার ৬৬৮ জন। 

এনএস/


New Bangla Dubbing TV Series Mu
New Bangla Dubbing TV Series Mu

© ২০২০ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি