ঢাকা, সোমবার   ১৯ এপ্রিল ২০২১, || বৈশাখ ৫ ১৪২৮

জাতীয় বাজেটের আকার বেড়েছে ৭৬০ গুণ (ভিডিও)

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১১:১৩, ৫ মার্চ ২০২১ | আপডেট: ১১:১৪, ৫ মার্চ ২০২১

স্বাধীনতার ৫০ বছরে বাংলাদেশের জাতীয় বাজেটের আকার বেড়েছে ৭৬০ গুণ। ১৯৭২ সালে বঙ্গবন্ধু সরকারের অর্থমন্ত্রী তাজউদ্দিন আহমেদের বাজেট ছিল ৭৮৬ কোটি টাকার। ২০২০-২১ অর্থবছরের যা উন্নীত হয়েছে ৫ লাখ ৬৮ হাজার কোটি টাকায়। আর আগামী জুনে প্রায় ৬ লাখ কোটি টাকার বাজেট দিতে যাচ্ছে সরকার।

১৯৭২। একটি যুদ্ধবিধ্বস্ত সদ্য স্বাধীন দেশ। ভঙ্গুর অর্থনীতি। চারদিকে হানাদারদের থাবার চিহৃ। কৃষি, শিল্প-কারখানা, ব্যবসা-বাণিজ্য প্রায় সব-ই অচল। তবে দেশ পুনর্গঠনে রয়েছে জোরালো তাগিদ। 

এমন পরিস্থিতিতে ১৯৭২ সালের ৩০ জুন ৭৮৬ কোটি টাকার প্রথম বাজেট দেন বঙ্গবন্ধু সরকারের অর্থমন্ত্রী তাজউদ্দিন আহমেদ। শুরু হয় দেশ পনর্গঠনের কাজ।

নানা ঘাত-প্রতিঘাত সত্ত্বেও বাংলাদেশের জাতীয় বাজেটের আকার কখনোই নিম্নমুখী হয়নি। ১৯৭৩-৭৪-এ ৯৯৫ কোটি, আর ১৯৭৫-৭৬ অর্থবছরে দেয়া হয় প্রায় ১,৫৫০ কোটি টাকার জাতীয় বাজেট। 

কিন্তু ’৭৫-এর ১৫ আগস্ট বঙ্গবন্ধুকে স্বপরিবারে হত্যার পর বাজেটের বৈশিষ্ট্য ও লক্ষ্যে পরিবর্তন আসে। দিকভ্রান্ত হয় জাতি।  

তবে ২০০৮ সালের জাতীয় নির্বাচনে জাতির জনকের কন্যার নেতৃত্বে আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসর পর লাফিয়ে বাড়তে থাকে বাজেটের আকার। ২০০৯-১০ অর্থবছরে প্রথমবারের মতো বাজেট ১ লাখ কোটি টাকা ছাড়ায়। 

আর বর্তমান সরকারের টানা তিন মেয়াদে দেশের অর্থনীতি ও অবকাঠামো খাতের বৈপ্লবিক পরিবর্তন আসে। ব্যাপক ব্যয় চাহিদা পূরণে ২০১৩-১৪ অর্থবছরে বাজেট অতিক্রম করে ২ লাখ টাকার মাইলফলক। 

এদিকে, ২০১৬-১৭ অর্থবছরের এসে জাতীয় বাজেটের আকার দাঁড়ায় ৩ লাখ ৪০ হাজার কোটি টাকা। এরই ধারাবাহিকতায় পরের বছর ৪ লাখ ২৬৬ কোটি টাকা, এবং ২০১৯-২০ অর্থবছরের বাজেট রূপ নেয় ৫ লাখ কোটি টাকায়। আর চলতি অর্থবছরের ৫ লাখ ৬৮ হাজার কোটি টাকার বাজেট বাস্তবায়নে কাজ করছে সরকার।  

আগামী জুনে আরেকটি নতুন বাজেট আসছে। প্রাথমিক তথ্যানুযায়ী, যার আকার হতে পারে ৫ লাখ ৯৬ হাজার কোটি টাকা।

ভিডিও...

একে//


Ekushey Television Ltd.

© ২০২১ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি