ঢাকা, বুধবার   ২৮ অক্টোবর ২০২০, || কার্তিক ১৩ ১৪২৭

Ekushey Television Ltd.

ঠাকুরগাঁওয়ের মকছেদ আলীর পরিবারকে ঘর প্রদান

ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি 

প্রকাশিত : ১৭:২৮ ৯ সেপ্টেম্বর ২০২০

১৯৭১ সালে স্বাধীন বাংলাদেশে বঙ্গবন্ধু সরকার দেশের প্রথম নিরক্ষরমুক্ত গ্রাম ঘোষণা করেছিল ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার সালন্দর ইউনিয়নের কচুবাড়ি কৃষ্টপুরকে। আর এই নিরক্ষরমুক্ত আন্দোলনের পুরোধা ছিলেন মকছেদ আলী।

স্বাধীনতার পর বঙ্গবন্ধুর সেই আহবানে নিরক্ষরতামুক্ত আন্দোলনে মকছেদ আলী ঝাঁপিয়ে পড়েছিলেন ঠাকুরগাঁওয়ের কচুবাড়ি কৃষ্টপুর গ্রামকে দেশের প্রথম গ্রাম হিসেবে নিরক্ষরমুক্ত করার লক্ষ্য নিয়ে। এজন্য সেইসময় তাকে কঠোর পরিশ্রম করতে হয়েছিল এবং তিনি সেইসময় পেয়েছিলেন রাষ্ট্রপতি পুরস্কার। কিন্তু তিনি আজ বেঁচে না থাকলেও রয়েছে তাঁর কাজের স্বীকৃতি ।  

তাঁর কাজের সেই স্বীকৃতি স্বরুপ এবার আন্তর্জাতিক সাক্ষরতা দিবস উপলক্ষে বুধবার ঠাকুরগাঁও জেলা প্রশাসক ড. কে এম কামরুজ্জামান সেলিম কচুবাড়ি কৃষ্টপুরে মরহুম মোকছেদ আলীর পরিবারকে নবনির্মিত দূর্যোগ সহনীয় পাকা বাড়ি উপহার প্রদানের মাধ্যমে তাকে সম্মান জানিয়েছেন। 

জেলা প্রশাসক কৃষ্টপুর গ্রামে গিয়ে মকছেদ আলীর সহধর্মিণী জাহেদা বেওয়ার হাতে ঘরের চাবি তুলে দিলে তিনি আবেগে আপ্লুত হয়ে কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন। এসময় বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার আব্দুল্লাহ-আল-মামুন এবং উপস্থিত ছিলেন সালন্দর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মাহবুবুর রহমান মুকুল, ইউপি সদস্যসহ স্থানীয় জনসাধারণ। ঘরটি নির্মাণে ব্যয় হয় ২ লাখ ৯৯ হাজার। 

অনুষ্ঠানে জেলা প্রশাসক তাঁর বক্তব্যে রাষ্ট্রপতি পুরস্কারপ্রাপ্ত মরহুম মোকছেদ আলীর সমাধিস্থল পাকাকরণে প্রয়োজনীয় সহায়তার আশ্বাস দেন। পরে জেলা প্রশাসক উপস্থিত স্থানীয় জনসাধারণের মাঝে মাস্ক, ব্লিচিং পাউডার এবং মুজিব বর্ষ উপলক্ষে সাক্ষরতা  অগ্রসেনানী মোকছেদ আলীর  বাড়ির  প্রাংগণে বৃক্ষরোপণ এবং গাছের চারা বিতরণ করেন।

আরকে//


New Bangla Dubbing TV Series Mu
New Bangla Dubbing TV Series Mu

© ২০২০ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি