ঢাকা, শুক্রবার   ১৩ ডিসেম্বর ২০১৯, || অগ্রাহায়ণ ২৯ ১৪২৬

Ekushey Television Ltd.

দামুড়হুদায় স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগে শিক্ষক গ্রেফতার

চুয়াডাঙ্গা প্রতিনিধি

প্রকাশিত : ২২:৩০ ১৮ নভেম্বর ২০১৯

চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদা উপজেলার মজলিশপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক শাহীন উদ্দীনের বিরুদ্ধে চতুর্থ শ্রেণির এক ছাত্রীকে ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগ উঠেছে। অভিযুক্ত শিক্ষক শাহীন উদ্দীন দামুড়হুদা উপজেলার বিষ্ণুপুর গ্রামের ইসলাম উদ্দীনের ছেলে। 

শনিবার বিকালে স্কুলের একটি কক্ষে ওই শিক্ষার্থীকে ধর্ষণচেষ্টা চালায় ওই শিক্ষক। এ ঘটনায় ভুক্তভোগী ওই শিক্ষার্থীর মা দামুড়হুদা মডেল থানায় মামলা দায়ের করলে পুলিশ রোববার (১৭) মধ্যরাতে অভিযুক্ত শিক্ষককে গ্রেফতার করে। 

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, চুয়াডাঙ্গা জেলার দামুড়হুদা উপজেলার মজলিশপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে দীর্ঘদিন ধরে শিক্ষকতা করে আসছিল শাহীন উদ্দীন। ক্লাসের পর স্কুলের একটি কক্ষেই ছেলে-মেয়েদের প্রাইভেট পড়াতেন তিনি।
 
চতুর্থ শ্রেণির ওই শিক্ষার্থীর অভিযোগ, শনিবার বিকালে প্রাইভেট পড়া শেষে সবাইকে ছুটি দিলেও বাড়তি পড়ার কথা বলে তাকে আটকে রাখা হয়। এরপর সবাই চলে গেলে অভিযুক্ত শিক্ষক তাকে জোরপূর্বক ধর্ষণের চেষ্টা করেন। এক পর্যায়ে কৌশলে পালিয়ে রক্ষা পায় ওই স্কুলছাত্রী। 

ওই শিক্ষার্থীর বাবা জানান, বিষয়টি আমরা অবহিত হওয়ার পর স্কুল পরিচালনা পর্ষদকে জানাই। এরপর তারা রোববার সন্ধ্যায় সালিশ বৈঠকের আয়োজন করেন। বৈঠকে বিষয়টি মীমাংসার জন্য চাপ দিলে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে গ্রাম জুড়ে। এক পর্যায়ে মারামারির ঘটনাও ঘটে। মারপিটের শিকার হন একজন সংবাদকর্মীও। খবর পেয়ে পুলিশ দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। 

দামুড়হুদা মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ ওসি সুকুমার বিশ্বাস জানান, ঘটনাটি অবহিত হওয়ার পর আমরা দ্রুত ঘটনাস্থলে যাই। সেখান থেকে প্রাথমিকভাবে আমরা অভিযুক্ত শিক্ষককে আটক করে হেফাজতে নিই। পরে রাতে ওই শিক্ষার্থীর মা এ ঘটনায় দামুড়হুদা থানায় একটি মামলা দায়ের করলে অভিযুক্ত শিক্ষককে গ্রেফতার দেখানো হয়। 

কেআই/এসি
 

© ২০১৯ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি