ঢাকা, মঙ্গলবার   ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯, || আশ্বিন ২ ১৪২৬

Ekushey Television Ltd.

প্রতিপক্ষের সঙ্গে সংঘর্ষে ছাত্রলীগের ৪ কর্মী আহত

বাউফল (পটুয়াখালী) প্রতিনিধি

প্রকাশিত : ১৭:১৭ ১০ আগস্ট ২০১৯

পটুয়াখালীর বাউফলে দেশীয় অস্ত্রসহ প্রতিপক্ষ গ্রুপের সদস্যদের সঙ্গে সংঘর্ষের ঘটনায় ছাত্রলীগের ৪ কর্মী আহত হয়েছে। আহতদের মধ্যে আশিক (২০) নামে একজনকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ও অন্যদের স্থানীয়ভাবে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। 

আজ শনিবার সকাল সাড়ে ১১টার দিকে পৌর সদরের থানা কমপ্লেক্স ভবনের সামনের সড়কে জাতীয় শোক দিবসের র‍্যালীকে কেন্দ্র করে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। 

স্থানীয় ও দলীয় সূত্রে জানা গেছে, উপজেলা ছাত্রলীগের নব-গঠিত কমিটির সাধারণ সম্পাদক তানজিল হোসেন অভি তার গ্রামের বাড়ি সূর্যমণি এলাকা থেকে ৪০-৫০ জন নেতাকর্মীসহ জাতীয় শোক দিবসের র‌্যালীতে অংশ নিতে পৌর সদরের দলীয় কার্যালয় জনতা ভবনের দিকে যাচ্ছিল। 

এক পর্যায়ে কুন্ডুপট্টি এলাকার পৌর আওয়ামী লীগ কার্যালয়ের সামনে পৌঁছলে তাদের উপর ইটপাটকেল নিক্ষেপ ও লাঠিসোটা ও দেশীয় অস্ত্র নিয়ে ধাওয়া করে শোক দিবসের আলোচনায় আসা ছাত্রলীগের হাসান-জামসেদ গ্রুপের ৫০-৬০ জন। এতে আশিক (২০), জিসান (২১) সহ চার ছত্রলীগ কর্মী আহত হন। 

এরপর নবগঠিত কমিটির (ত্বোহা-অভি) সমর্থিত ছাত্রলীগ কর্মীরা জড়ো হয়ে কুন্ডুপট্টি এলাকার পৌর কার্যালয় এলাকায় অবস্থান নেওয়া প্রতিপক্ষ (হাসান-জামসেদ) গ্রুপকে ধাওয়া দিতে গেলে পুলিশ বাধা দেয় ও ছত্রভঙ্গ করে। পরে প্রতিবাদে পৌর সদরে মিছিল বের করে ত্বোহা-অভি গ্রুপের সমর্থকরা।  

এ বিষয়ে নবগঠিত ছাত্রলীগের সভাপতি আল আমিন ত্বোহা বলেন, ‘২৮ জুলাই কেন্দ্রিয় কমিটির নির্দেশে জেলা ছাত্রলীগ কমিটি ঘোষণা করে আমাদের। কিন্তু আগের দিন বিকালে হাসান-জামসেদের লোকজন আমাদের নেতাকর্মীদের গতি রোধ করে ৭-৮টি মোটরসাইকেল ছিনিয়ে নেয়। আজও আবার তানজিল হোসেন অভিসহ নেতাকর্মীরা শোক র‌্যালীতে অংশ নিতে জনতা ভবনের দিকে যাওয়ার পথে পৌর আওয়ামী লীগ কার্যালয়ের সামনে হামলার শিকার হয়।’ 

তবে এ অভিযোগ অস্বীকার করে উপজেলা ছাত্রলীগের অপর গ্রুপের সাধারণ সম্পাদক মাহমুদ রাহাদ জামসেদ সাংবাদিকদের বলেন, ‘নেতা-কর্মীরা শোক দিবসের আলোচনা অনুষ্ঠানে ব্যস্ত ছিল। হামলা কিংবা মোটরসাইকেল ছিনিয়ে নেওয়ার মতো অপ্রীতিকর কোন কাজের সঙ্গে ছাত্রলীগের কোন নেতাকর্মী জড়িত নয়। 

তিনি আরও বলেন, ত্বোহা-অভিকে নিয়ে সাজানো ছাত্রলীগের কোন কমিটি বৈধ নয়। জেলা কমিটির দফতর সম্পাদক আসাদুল ইসলাম গত ১ আগস্ট প্রেস বিজ্ঞপ্তি দিয়ে ওই কমিটিকে অবৈধ ঘোষণা করেছেন।’

এদিকে উপজেলা ছাত্রলীগের কমিটি ঘোষণা নিয়ে জেলা কমিটির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের বিপরীত অবস্থান নেওয়ায় জটিলতা সৃষ্টি হয় এবং উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে বাউফল উপজেলা ছাত্রলীগের দু’গ্রুপের মাঝে। 

গতকাল শুক্রবার ত্বোহা-অভির নেতৃত্বে মোটরসাইকেল শো-ডাউনে হাসান-জামসেদ সমর্থকদের ধাওয়ার প্রতিবাদে প্রায় ঘণ্টাজুড়ে থানার সামনের সড়ক অবরোধ করে রাখে ছাত্রলীগের কয়েক শ’ নেতাকমী।

এনএস/আরকে

© ২০১৯ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি