ঢাকা, বুধবার   ২১ অক্টোবর ২০২০, || কার্তিক ৬ ১৪২৭

Ekushey Television Ltd.

প্রথম চন্দ্রাভিযান নিয়ে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে বিতর্ক

প্রকাশিত : ১১:২৮ ৩০ জানুয়ারি ২০১৭ | আপডেট: ১১:২৮ ৩০ জানুয়ারি ২০১৭

প্রথম চন্দ্রাভিযান নিয়ে বিতর্ক বেশ পুরনো। অভিযানের ত্রুটি ও মানুষের চাঁদে পদার্পণ নিয়ে নানা কথা বলেছেন বিজ্ঞানীরা। তবে পুরনো বিতর্ক নতুন করে শুরু হল খোদ মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে।  নতুন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড  ট্রাম্পের বিজ্ঞান-প্রযুক্তি উপদেষ্টা বিজ্ঞানী ডেভিড গেলার্নটার বললেন, চাঁদের বুকে পা রাখেননি নীল আর্মস্ট্রং। ট্রাম্প-উপদেষ্টার এমন বক্তব্যকে নতুন মার্কিন প্রশাসন বা যুক্তরাষ্ট্রের ঘোষণাও বলে বলছেন অনেকে। ১৯৬৯ সালের ২০ জুলাই। ক্যালেন্ডারের পাতায় সাধারন একটি দিন। তবে দিনটি অসাধারণ হয়ে ওঠে চাঁদে মানুষের পদার্পণে। নীল আর্মস্ট্রং এবং এডুইন অলড্রিন নামের দুই মানুষ স্থান করে নেন ইতিহাসের পাতায়। কিছু দিন পরই ‘অ্যাপোলো-১১’-এর সেই চন্দ্রাভিযানের ছবি এবং ভিডিও প্রকাশ করে নাসা। আর সেই ছবিগুলি থেকে একাধিক ত্রুটি বের করতে শুরু করলেন ‘কন্সপিরেসি থিওরিস্ট’রা। যারা নাসার মহাকাশ গবেষণাকে চ্যালেঞ্জ জানিয়েই চলেছেন। এবার সে বিতর্কে ঘি ঢাললেন এক আমেরিকান-ই। নতুন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের বিজ্ঞান-প্রযুক্তি উপদেষ্টা ডেভিড গেলার্নটার প্রশ্ন তুললেন অভিযানটি নিয়ে। গেলো ২৪ জানুয়ারি মঙ্গলে মানুষ পাঠানো বিষয়ে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে,  চন্দ্র-বিজয় কে মানতেই চাননি যুক্তরাষ্ট্রের এ বিজ্ঞানী। ডেভিড গেলার্নটার বলেন, নীল আর্মস্ট্রং এবং এডুইন অলড্রিন চাঁদের মাটিতে পা রাখেননি। আর মঙ্গলে মানুষ পাঠানো অহেতুক ভাবনার বেশি কিছু নয় বলেও মন্তব্য করেন তিনি। অধ্যাপক গেলার্নটারের এমন মন্তব্যে শোরগোল পড়েছে সারা বিশ্বে। মার্কিন মহাকাশ গবেষণা সংস্থা নাসা’র ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন তুলছেন অনেকেই। ইতিহাসের সবচেয়ে বড় প্রতারণা বলে গুঞ্জন খোদ আমেরিকাতেই।
New Bangla Dubbing TV Series Mu
New Bangla Dubbing TV Series Mu

© ২০২০ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি