ঢাকা, শনিবার   ২৫ জানুয়ারি ২০২০, || মাঘ ১২ ১৪২৬

Ekushey Television Ltd.

সোনামসজিদ স্থলবন্দর

বাংলা ট্রাক সংকটে পেঁয়াজ সরবরাহ বিঘ্নিত

ফারুক আহমেদ চৌধুরী

প্রকাশিত : ১৮:৩০ ২০ আগস্ট ২০১৮ | আপডেট: ১৮:৩১ ২০ আগস্ট ২০১৮

চাঁপাইনবাবগঞ্জের সোনামসজিদ স্থলবন্দরে হঠাৎ করে বাংলা ট্রাক সংকট হওয়ায় দেশের অভ্যন্তরে পেঁয়াজ সরবরাহ বিঘ্নিত হচ্ছে। অন্যদিকে প্রচন্ড গরমে নষ্ট হচ্ছে পেঁয়াজ। এদিকে পেঁয়াজের মুল্য কেজিতে ১০ টাকা কমে যাওয়ায় আমদানিকারকেরা পড়েছেন বিপাকে। লোকসানের আশংকা করছেন ব্যবসায়ীরা।

বন্দর সুত্রে জানা গেছে, আসন্ন ঈদকে সামনে রেখে পেঁয়াজের চাহিদা বেশি থাকায় কাস্টমস কর্তপক্ষের আন্তরিকতায় এ বন্দর দিয়ে ব্যাপক পরিমানে পেঁয়াজ আমদানী হচ্ছে। কিন্তু সে অনুযায়ী বাংলাদেশী ট্রাক পাওয়া না যাওয়ায় বন্দরে পড়ে রয়েছে পেঁয়াজ। প্রচন্ড তাপপ্রবাহের কারনে আটকেপড়া পেঁয়াজে পচন ধরছে। ফলে ব্যবসায়ীদের মাথায় উঠেছে হাত।

আমদানিকারক বাবুল হাসনাত দুরুল জানান, গত শুক্রবার সাপ্তাহিক ছুটির দিনেও দেশের অভ্যন্তরে পেঁয়াজের বাজার যেন বৃদ্ধি না পায় সেজন্য ব্যবসায়ীরা কাস্টমসের সাথে আলাপ-আলোচনা করে বন্দরে শুধুমাত্র পেঁয়াজ আমদানি অব্যাহত রাখে। তবে বাংলা ট্রাকের সংকটের কারনে এর সুফল খুব একটা পাওয়া যায়নি।

সোনামসজিদ পানামা পোর্ট লিংক লিমিটেডের ম্যানেজার মইনুল ইসলাম জানায়, শুক্রবার এ বন্দর দিয়ে ৪ হাজার ৭২০ টন পেঁয়াজ আমদানি হয়। গত শনিবার স্থলবন্দরে প্রায় ১শ’ ট্রাক পেঁয়াজ এবং রবিবার এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত ৬৮ ট্রাক পেঁয়াজ সোনামসজিদ স্থলবন্দরে আমদানি হয়েছে। কিন্তু বাংলা ট্রাক সংকট ও পেঁয়াজের ক্রেতা কম থাকায় সোনামসজিদ বন্দরে আটকা পড়ে আছে অধিকাংশ পেঁয়াজ ভর্তি ট্রাক।

এ বিষয়ে আমদানি-রফতানিকারক গ্রুপের সাধারণ সম্পাদক তৌফিকুর রহমান বাবু জানান- ব্যবসায়ীদের আবেদনের প্রেক্ষিতে সোনামসজিদ ও মহদিপুর স্থলবন্দর খোলা রেখে পেঁয়াজ আমদানি অব্যাহত রয়েছে। বাংলা ট্রাক সংকট থাকায় কিছুটা বিপাকে পড়েছেন ব্যবসায়ীরা ।
চাঁপাইনবাবগঞ্জ ট্রাক মালিক সমিতির গোলাম কিবরিয়া সংকটের কথা শিকার করে জানান, ট্রাকের বৈধ লাইসেন্সধারী চালক সংকট ও কুরবানীর পশুর পরিবহনের চাপ বেড়ে যাওয়ায় এ সংকটের সৃষ্টি হয়েছে।

আরকে//

© ২০২০ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি