ঢাকা, সোমবার   ১৩ জুলাই ২০২০, || আষাঢ় ২৯ ১৪২৭

Ekushey Television Ltd.

বিয়ের প্রলোভনে ধর্ষণের অভিযোগে যুবকের বিরুদ্ধে মামলা

ঝালকাঠি প্রতিনিধি

প্রকাশিত : ১৭:৫৩ ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২০

ঝালকাঠি শহরের টিনের আড়ৎদার নয়ন তালুকদারের বিরুদ্ধে গত রোববার বরগুনার নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইবুনাল আদালতে বিয়ের প্রলোভনে ধর্ষণের অভিযোগে একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। বিয়ের প্রস্তাব নিয়ে আলোচনার কথা বলে গত ১২ জানুয়ারি রোববার রাত ১১টায় তাকে জোরপূর্বক ধর্ষণের অভিযোগে বেতাগীর ফুলতলা গ্রামের মৃত আ. মজিদ খানের কন্যা লাকী আক্তার মামলাটি দায়ের করেছে।

লাকী আক্তার মামলায় উল্লেখ করেছে, স্বামীর অবর্তমানে মোবাইল ফোনে ঝালকাঠী পৌরসভার ৮নং ওয়ার্ডের ৩০নং ষ্টেসন রোডের বাসিন্দা ও ইসলাম ট্রেডার্সের মালিক মো. আবুল কাসেম তালুকদারের ছেলে মো. নয়ন তালুকদারের সাথে পরিচয় হয়। ক্রমেই তাদের সম্পর্ক গভীর হলে নয়নের পরামর্শে প্রেমিকা লাকী আক্তার প্রবাসী স্বামীকে ডিভোর্স নোটিশ পাঠায়। এই অবস্থায় প্রেমিক নয়ন বিয়ের বিষয়ে সাক্ষাতে কথা বলার জন্য বারবার অনুরোধ করলে সে রাজী হয়।

সে অনুযায়ী নয়ন তালুকদার গত ১২ জানুয়ারি রাত ৮টার দিকে বেতাগী থানাধীন ১নং বিবিচিনি ইউনিয়নের তার মামার বাড়ী আসে। সেখানে লাকীর সাথে কথা বার্তার এক পর্যায়ে রাত বেশি হয়ে গেলে ওই বাড়িতে সে রাত্রিযাপন করে। রাতে সবাই ঘুমিয়ে পড়লে ঘরের সামনের রুমে থেকে নয়ন পিছনের রুমে ঘুমানো লাকীর কক্ষে যায়। সেখানে জোড়পূর্বক ধর্ষণকালে লাকীর ডাক চিৎকার করলে ঘরের অন্যরা জেগে উঠলে নয়ন তালুকদার পরের দিন সকালে তারা বিবাহ করবে বলে সবাইকে জানায়। ফলে সবাই আর বাড়াবাড়ি না করে ঘুমাতে গেলে সকলে কেউ ঘুম থেকে উঠার আগেই নয়ন পালিয়ে যায়।
 
পরবর্তীতে অনেক চেষ্টা করেও যোগাযোগে ব্যর্থ হয়ে প্রতারক নয়নের বিরুদ্ধে লাকী আক্তার গত ১৪ জানুয়ারি বেতাগী থানায় গেলে তার অভিযোগটি আমলে না নেয়ায় নিরুপায় লাকী আক্তার শেষ পর্যন্ত বরগুনা বিজ্ঞ নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইবুনাল আদালতে মামলা দায়ের করে। 

লাকী আক্তার জানায়, ‘নয়নের প্রলোভনে পড়ে আমি স্বামী-সংসার সব হারালাম এমন কি বিয়ের নামে ধর্ষণের শিকার হলাম। পাশাপাশি আমার পার্লার ব্যবসা করে জমানো কয়েক লাখ টাকাও নয়ন আত্মসাৎ করলো। আমার এখন মরণ ছাড়া কোন পথ নাই।’
 
কেআই/এসি
 
 


New Bangla Dubbing TV Series Mu
New Bangla Dubbing TV Series Mu

© ২০২০ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি